kalerkantho

সোমবার । ৫ ডিসেম্বর ২০২২ । ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ । ১০ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

সালাম মুর্শেদীর বিদায়

লিগ কমিটি নিজের হাতেই রাখবেন সভাপতি!

লিগ কমিটির প্রধানের পদ থেকে সরে যাওয়া প্রসঙ্গে সালাম বলেছেন, ‘পেশাদার লিগ কমিটি চালাতে গেলে অনেক সময় দিতে হয়। কিন্তু আমার হাতে অত সময় নেই। আমার নির্বাচনী এলাকা গ্রামে, সেখানে আরো বেশি যেতে হবে আমাকে।’

২৮ আগস্ট, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



লিগ কমিটি নিজের হাতেই রাখবেন সভাপতি!

ক্রীড়া প্রতিবেদক : পেশাদার ফুটবল লিগ কমিটির চেয়ারম্যানের পদ থেকে সালাম মুর্শেদীর সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দেওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই নতুন ভাবনা শুরু হয়ে গেছে ফুটবল ফেডারেশনে। এই ভাবনায় বাফুফের সিনিয়র সহসভাপতিকে সিদ্ধান্ত বদলানোর অনুরোধ নেই, আছে কমিটি পুনর্গঠনের চিন্তা। বাফুফে সভাপতি নিজেই কমিটির দায়িত্ব নিতে পারেন।

বাফুফে ভবনে কাল লিগ কমিটির সভা শেষে সালাম মুর্শেদী জানিয়েছেন, ‘আমি আজ সভাপতিকে জানিয়ে দিয়েছি, পেশাদার লিগ কমিটি চালানোর মতো সময় আমার হাতে নেই।

বিজ্ঞাপন

’ জাতীয় নির্বাচন উপলক্ষে সামনে তাঁর রাজনৈতিক ব্যস্ততা বাড়বে, এমন দাবি করেই তিনি লিগ কমিটির চেয়ারম্যানের পদ থেকে সরে দাঁড়ানোর কথা বলেছেন, ‘পেশাদার লিগ কমিটি চালাতে গেলে অনেক সময় দিতে হয়। এখন সাইফ স্পোর্টিং খেলতে চাচ্ছে না, একটা দল কমে গেল। ফিক্সিংয়ের ব্যাপারও আছে। এগুলো সামলাতে গেলে অনেক সময় দিতে হয়, কিন্তু আমার হাতে অত সময় নেই। আমার নির্বাচনী এলাকা গ্রামে, সেখানে আরো বেশি যেতে হবে আমাকে। ’ 

সালাম মুর্শেদীর অপারগতার কারণগুলো শুনে বাফুফে সভাপতি কাজী সালাউদ্দিনও আর অনুরোধ করতে চান না তাঁকে, “তিনি নিজের অনেক ব্যস্ততার কথা বলেছেন। এরপর অনুরোধ করে আবার দায়িত্ব চাপিয়ে দেওয়ার মধ্যে শঙ্কা থাকে। খেলা চালানো নিয়ে বড় ঝামেলা তৈরি হলে তিনিও বলতে পারেন, ‘আমি তো থাকতে চাইনি। ’ নতুন করে ভাবাই উত্তম। ” সভাপতি নতুন ভাবনা শুরু করে দিয়েছেন পেশাদার লিগ কমিটি নিয়ে। শুধু উপকমিটির নতুন চেয়ারম্যান খোঁজা নয়, পাশাপাশি এটাকে আরো গতিশীল করাই তাঁর লক্ষ্য।

সালাম মুর্শেদীর গর্ব ১৩ বছরে ১২টি পেশাদার ফুটবল লিগ করার। তবু প্রিমিয়ার লিগের শক্তিশালী অবকাঠামো দাঁড়ায়নি। ফুটবল মৌসুমের জন্য নির্দিষ্ট সময় ঠিক করতে পারেননি। গত মৌসুমে রেফারিং নিয়েও ছিল বিস্তর অভিযোগ। অথচ এই রেফারিজ কমিটিরও প্রধান সালাম মৌসুম চলাকালীন একটি সভাও করেননি। সম্মানী বাড়ানোর দাবি তোলায় মানসম্পন্ন রেফারিদের ম্যাচ দেওয়া বন্ধ করে দেওয়া হয়। ট্রফি দেওয়ার আনুষ্ঠানিকতা বাদে কোনো বিগ ম্যাচে লিগ কমিটির চেয়ারম্যানকে মাঠে দেখা যায়নি।  

তাই পেশাদার লিগ কমিটির পুনর্গঠন নিয়ে নানামুখী ভাবনা শুরু করেছেন কাজী সালাউদ্দিন, ‘প্রিমিয়ার লিগ হলো দেশের ফুটবলের মেরুদণ্ড। এটাকে ঠিকঠাক চালানো না গেলে সব জায়গায় সমস্যা হবে। অনেক কিছুই ভাবছি আমি, দু-তিন দিনের মধ্যেই এই কমিটি পুনর্গঠন হয়ে যাবে। ’ এমন গুরুত্বপূর্ণ কমিটি নিজের হাতে রাখার সম্ভাবনা উড়িয়ে দেননি সালাউদ্দিন, ‘সেটাও হতে পারে। কোনো একটা ফর্মুলায় এটাকে গতিশীল করতে হবে। ’



সাতদিনের সেরা