kalerkantho

শনিবার । ১ অক্টোবর ২০২২ । ১৬ আশ্বিন ১৪২৯ ।  ৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

নতুনে চোখ আরোজির

বাহরাইনের টুর্নামেন্টটিই তো নয়, এই খেলোয়াড়রাই সামনে সিনিয়র জাতীয় দলের দরজায় কড়া নাড়বে। ওদের নিয়ে কাজ করার লক্ষ্যটা তাই আরো বড়।

১৭ আগস্ট, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ক্রীড়া প্রতিবেদক : কোর্টের পাশে ভলিবলের পুরনো মুখ আলিপোর আরোজি। ইরানি ভলিবল কোচ মনোযোগ দিয়ে যাঁদের খেলা দেখছেন, তাঁরা সবাই নতুন। সাঈদ আল জাবির, হরশিত্ বিশ্বাস, মাসুদ, কায়সাররাই এত দিন মাতিয়েছেন ভলিবল কোর্ট। আরোজি এবার নেমেছেন নতুন মুখের সন্ধানে।

বিজ্ঞাপন

২০ বছরের কম বয়সী খেলোয়াড় খুঁজতে বাছাই ক্যাম্প হয়েছে সারা দেশে। সেখান থেকে সেরাদের নিয়ে নতুন দল গড়ার কাজ করছেন ইরানি কোচ আরোজি।

পল্টন ভলিবল স্টেডিয়ামে দুই বেলা করে অনুশীলন চলে তাঁদের। এই যুব দলটির সামনে আন্তর্জাতিক ভলিবলের দরজা খোলা আছে। তাঁরা এশিয়ান যুব ভলিবল চ্যাম্পিয়নশিপে অংশ নেবে বাহরাইনে। আরোজি দলটিকে নিয়ে কাজ করছেন মাসখানেক। ‘বাহরাইনে টুর্নামেন্টটির জন্য আমাদের প্রস্তুতির সময় খুব বেশি নয়। নতুন খেলোয়াড়দের অনেক ঘষামাজা করতে হচ্ছে। এদের তৈরির জন্য সময় প্রয়োজন। তবে বাহরাইনের টুর্নামেন্টটিই তো নয়, এই খেলোয়াড়রাই সামনে সিনিয়র জাতীয় দলের দরজায় কড়া নাড়বে। ওদের নিয়ে কাজ করার লক্ষ্যটা তাই আরো বড়’, স্টেডিয়ামে যুব দলের অনুশীলনের ফাঁকে বলছিলেন ইরানি কোচ।

জাতীয় দলে জায়গার দাবি তোলার জন্য এ বছর আরেকটি টুর্নামেন্টে আরেকটি সুযোগ পাচ্ছেন যুবারা। এবারের এশিয়ান সেন্ট্রাল জোন টুর্নামেন্টেও বয়সসীমা বেঁধে দেওয়া হয়েছে, অনূর্ধ্ব-২৩। অবশ্য উন্মুক্ত ট্রায়ালের মাধ্যমে একটি আলাদা দলও গড়া হয়েছে। নভেম্বরে সেই টুর্নামেন্টের আগে এই দলটিরও আরব আমিরাতে একটি প্রস্তুতিমূলক টুর্নামেন্ট খেলার কথা রয়েছে।

এশিয়ান সেন্ট্রাল জোন টুর্নামেন্টকে ঘিরে বাংলাদেশের ভলিবল আবার জেগেছে। এ আসরে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পাশাপাশি দুইবার রানার্স আপও হয়েছে বাংলাদেশ। সাফল্যের সেই ধারা টিকিয়ে রাখতেই নতুন খেলোয়াড়দের ওপর এখন জোর ফেডারেশনের, নজর কোচের।

 



সাতদিনের সেরা