kalerkantho

বুধবার । ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২২ । ১৩ আশ্বিন ১৪২৯ ।  ১ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

ব্যালন ডি’অর

মেসি অধ্যায়ের সমাপ্তি

১৪ আগস্ট, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



মেসি অধ্যায়ের সমাপ্তি

ব্যালন ডি’অর জিতেছেন রেকর্ড সাতবার। ২০০৭ সালের পর একবার ছাড়া (২০১৮) সেরা তিনে ছিলেন সব সময়। আর ২০০৫ সালের পর সেরা ত্রিশে থাকতেন অবধারিতভাবে। সেই লিওনেল মেসি এবার নেই সংক্ষিপ্ত ৩০ জনের তালিকায়।

বিজ্ঞাপন

১৯৫৬ সাল থেকে ব্যালন ডি’অর দেওয়া ফ্রান্স ফুটবল সাময়িকী সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এ নিয়ে পড়েছে মেসি ভক্তদের তোপে। তবে মেসি কেন ৩০ জনের বিবেচনায় এলেন না সেই ব্যাখ্যায় বিশেষ নিবন্ধ লিখেছে লেকিপ। ফ্রান্স ফুটবল সাময়িকীটির প্রতিবেদক এমানুয়েল বোয়ান আবার ব্যাখ্যা দিলেন এভাবে, ‘ব্যালন ডি’অরের নতুন মানদণ্ডে খেলোয়াড়ের পুরো ক্যারিয়ার বিবেচনায় নেওয়ার ব্যাপারটা উঠে গেছে। আর পুরো বছর নয়, কেবল একটা মৌসুমের পারফরম্যান্সে এখন থেকে দেওয়া হবে পুরস্কারটা। কোপা আমেরিকা জয়ের সাফল্য তাই বাদ পড়েছে। স্বীকার করতেই হবে পিএসজিতে মেসির প্রথম মৌসুমটা ভালো কাটেনি। ’

ব্যালন ডি’অরে এত দিন বিবেচনা করা হতো জানুয়ারি থেকে ডিসেম্বরের পারফরম্যান্স। এবার থেকে বছর নয়, মৌসুমের হিসাবে দেওয়া হবে পুরস্কারটা। এ কারণে নভেম্বরে হতে যাওয়া বিশ্বকাপের পারফরম্যান্স দেখা হবে আগামীবার। পিএসজিতে যোগ দিয়ে লিগে ২৬ ম্যাচে ৬ গোল আর মৌসুমজুড়ে ১১ গোল করাতেই বাদ পড়েছেন বিবর্ণ মেসি। একই কারণে মৌসুমজুড়ে ২৮ ম্যাচে ১৩ গোল করায় তালিকায় নেই নেইমারও।

ব্যালন ডি’অর তুলে দেওয়া হবে আগামী ১৭ অক্টোবর প্যারিসে। প্রাথমিক তালিকাটা ৩০ জনের হলেও অন্যতম ফেভারিট করিম বেনজিমা। গত মৌসুমে ৪৬ ম্যাচে করেছেন ৪৪ গোল। চ্যাম্পিয়নস লিগে ১৫ গোল করে শিরোপা জিতিয়েছেন রিয়ালকে। পুরস্কারটা জিতলে রেমন্ড কোপা (১৯৫৮), মিশেল প্লাতিনি (১৯৮৩-১৯৮৫), জাঁ পিয়েরে পাপিন (১৯৯১) ও জিনেদিন জিদানের পর (১৯৯৮) পঞ্চম ফরাসি হিসেবে ব্যালন ডি’অর পাবেন বেনজিমা। রিয়াল কোচ কার্লো আনচেলোত্তির অবশ্য শঙ্কা নেই এ নিয়ে, ‘ও ব্যালন ডি’অর জয়ের পথে, কোনো সন্দেহ আছে?’ কিলিয়ান এমবাপ্পের কণ্ঠেও একই সুর, ‘বেনজিমা এবার না জিতলে ব্যালন ডি’অরের ওপর থেকে বিশ্বাস উঠে যাবে আমার। ’

এই তালিকায় আরো আছেন রিয়ালের থিবো কর্তোয়া, লুকা মডরিচ, ভিনিসিয়ুস জুনিয়র ও কাসেমিরো। পাঁচবার ব্যালন ডি’অর জয়ী ক্রিস্তিয়ানো রোনালদোও আছেন সেরা ত্রিশে। নিজের সেরা ছন্দে না থাকলেও মৌসুমজুড়ে ৪৯ ম্যাচে ৩২ গোল রোনালদোর। দুটি হ্যাটট্রিকসহ প্রিমিয়ার লিগে ম্যানইউর হয়ে করেছেন সর্বোচ্চ ১৮ গোল। লেকিপ



সাতদিনের সেরা