kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৬ অক্টোবর ২০২২ । ২১ আশ্বিন ১৪২৯ ।  ৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

দাবা অলিম্পিয়াড

মেয়েদের উন্নতি, পিছিয়েছেন নিয়াজরা

এক ধাপ অবনমন নিয়াজদের। আর গত অলিম্পিয়াডের অবস্থান হিসাব করলে ছেলেদের দল পিছিয়েছে ৯ ধাপ। গতবার জর্জিয়ায় ৫৬তম ছিল বাংলাদেশ।

১১ আগস্ট, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ক্রীড়া প্রতিবেদক : দাবা অলিম্পিয়াডে প্রত্যাশা পূরণ হয়নি নিয়াজ মোর্শেদদের। অন্তত ৫০ দলের মধ্যে থাকার আশা ছিল ছেলেদের। সেখানে বাংলাদেশ দল ৬৬তম হয়েছে। গড় রেটিংয়েই ৬৫তম দল হিসেবে বাংলাদেশ চেন্নাইয়ে এবারের আসরে অংশ নিয়েছিল।

বিজ্ঞাপন

সে হিসেবেও এক ধাপ অবনমন নিয়াজদের। আর গত অলিম্পিয়াডের অবস্থান হিসাব করলে ছেলেদের দল পিছিয়েছে ৯ ধাপ। গতবার জর্জিয়ায় ৫৬তম ছিল বাংলাদেশ।

মেয়েদের দল সে হিসেবে এগিয়েছে। গতবার ৭২তম হওয়া বাংলাদেশ এবার হয়েছে ৫৬তম। শুরুর র্যাংকিংয়ে শারমিন-নোশিনরা ছিলেন ৬৪তম স্থানে। সেখান থেকেও আট ধাপ এগিয়েছেন তাঁরা। ১১ খেলায় পুরুষ ও নারী দুই দলেরই পয়েন্ট ১২। ছেলেরা অবশ্য র্যাংকিংয়ে পিছিয়ে থাকা কোনো দলের কাছেই হারেননি। বরং এগিয়ে থাকা আলবেনিয়ার বিপক্ষে জিতেছে, ড্র করেছে ব্রাজিল ও সুইডেনের সঙ্গে। জিয়াউর রহমান ৯ খেলায় সবচেয়ে বেশি সাড়ে ৬ পয়েন্ট নিয়েছেন বাংলাদেশের হয়ে। ১১ খেলায় এনামুল হোসেনের সংগ্রহ ৬। সর্বকনিষ্ঠ তাহসিন তাজোয়ার ৩ পয়েন্ট পেয়েছেন সাত খেলায়। বাবা জিয়াউর রহমানের সঙ্গে এই আসরে একসঙ্গে খেলা হয়েছে তাঁর চারটি রাউন্ডে।

মেয়েদের দল অবশ্য র্যাংকিংয়ে এগিয়ে থাকা কোনো দলের বিপক্ষে জিততে বা ড্র করতে পারেনি। তবে পেছনের দলগুলোর কাছেও পয়েন্ট খোয়ায়নি। মেয়েদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি সাড়ে ৭ পয়েন্ট নিয়েছেন নোশিন আঞ্জুম। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ সাড়ে ৬ পয়েন্ট জান্নাতুল ফেরদৌসের। জান্নাতুল এ আসরে মিসরের একজন গ্র্যান্ড মাস্টারকেও হারিয়েছেন। সে কারণে এ আসরে তাঁর রেটিংও বেড়েছে সবচেয়ে বেশি।

অলিম্পিয়াডে এবার তরুণরা রাজত্ব করেছে। ১৭ বছর বয়সী গ্র্যান্ড মাস্টার নদিরবেক আব্দুস সাত্তারের নেতৃত্বে উজবেকিস্তান জিতেছে ওপেন বিভাগের শিরোপা। দলের পাঁচ দাবাড়ুর চারজনেরই বয়স ২১-এর নিচে। ভারত তাদের তরুণ গ্র্যান্ড মাস্টারদের নিয়ে দ্বিতীয় যে দলটি গড়েছিল, সেটিই শেষ পর্যন্ত লড়াই করেছে শিরোপার জন্য। শেষ পর্যন্ত তৃতীয় হয়েছে তারা। ১৬ বছর বয়সী ডি গুকেশ হয়েছেন ১ নম্বর বোর্ডের সেরা খেলোয়াড়।



সাতদিনের সেরা