kalerkantho

মঙ্গলবার । ৬ ডিসেম্বর ২০২২ । ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ । ১১ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

বায়ার্নের মিশন ১১

৫ আগস্ট, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বায়ার্নের মিশন ১১

দশে দশ। ইউরোপের মর্যাদার পাঁচ ফুটবল লিগে প্রথম দল হিসেবে টানা ১০টি লিগ জিতেছে বায়ার্ন মিউনিখ। ‘গোলমেশিন’ রবার্ত লেভানদোস্কি ক্লাব ছাড়লেও এবার ১১তম বুন্দেসলিগার অভিযানে খেলবে তারা। গত আট বছরে ৩৭৫ ম্যাচে ৩৪৪ গোল করা লেভার জায়গায় বায়ার্ন কিনেছে সাদিও মানেকে।

বিজ্ঞাপন

রক্ষণের শক্তি বাড়াতে জুভেন্টাস থেকে এসেছেন ম্যাথিয়াস ডি লিখট। মৌসুমটা তারা শুরু করেছে সুপার কাপে লিপজিগকে ৫-৩ গোলে হারিয়ে। তাই আজ বুন্দেসলিগার উদ্বোধনী ম্যাচে ইউরোপাজয়ী ফ্রাংকফুর্টের মুখোমুখি হওয়ার আগে আশাবাদী প্রধান নির্বাহী অলিভার কান, ‘আক্রমণে অনেক বিকল্প আছে আমাদের। এই দল খেলতে পারে নানা ফরমেশনে। আশা করছি এবারও শিরোপা জিতব আমরাই। ’

গতবারের রানার্স আপ বরুশিয়া ডর্টমুন্ড শক্তি হারিয়েছে আর্লিং হালান্ডকে ছেড়ে দিয়ে। তবে গত মৌসুমে ৫২ গোল হজম করায় এবার ফ্রেইবুর্গ থেকে নিকো স্কলেটারব্যাক ও বায়ার্ন থেকে এনেছে নিকলাস সুয়েলেকে। সলসবুর্গ থেকে এসেছেন ফরোয়ার্ড করিম আদেমি। এর পরও বাস্তবতাটা স্মরণ করিয়ে দিলেন স্পোর্টিং ডিরেক্টর সেবাস্তিয়ান কেল, ‘বায়ার্ন আমাদের চেয়ে ২৮৫ মিলিয়ন ইউরো বেশি আয় করেছে। দলবদলে খরচও করেছে আমাদের চেয়ে দ্বিগুণ। সমর্থকদের ধৈর্য ধরতে হবে। ’

গত মৌসুমে ফ্রেইবুর্গকে হারিয়ে জার্মান সুপার কাপ জিতেছিল লিপজিগ। এদিকে পয়েন্ট টেবিলের ১১ নম্বরে থেকে লিগ শেষ করা ফ্রাংকফুর্ট জিতেছে ইউরোপা। তাই সেরা চার দলের সঙ্গে পঞ্চম জার্মান ক্লাব হিসেবে চ্যাম্পিয়নস লিগ খেলবে ফ্রাংকফুর্ট। লেভানদোস্কি, হালান্ডের মতো তারকা চলে গেলেও বুন্দেসলিগার আবেদন তাই কমছে না।



সাতদিনের সেরা