kalerkantho

মঙ্গলবার । ৬ ডিসেম্বর ২০২২ । ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ । ১১ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

সাকিবকে কারণ দর্শাবে বোর্ড

৫ আগস্ট, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সাকিবকে কারণ দর্শাবে বোর্ড

ক্রীড়া প্রতিবেদক : দেশের শীর্ষ তারকা সাকিব আল হাসান। তাই বিজ্ঞাপনের বাজারেও তাঁর চাহিদা সর্বোচ্চ। যত পণ্যের দূতিয়ালি করেন এর সবই নিজের স্বীকৃত ফেসবুক পেজে পোস্ট দেন সাকিব। মঙ্গলবার তাঁর সে রকম একটি পোস্ট নিয়েই তোলপাড় ক্রিকেটাঙ্গনে।

বিজ্ঞাপন

সর্বশেষ যে ব্র্যান্ডের দূতিয়ালি করেছেন সাকিব, সেটি বেটউইনার নিউজ। নামে ‘নির্দোষ’ এ প্রতিষ্ঠানটির মালিকানা আবার সাইপ্রাস থেকে পরিচালিত বেটউইনার নামের একটি অনলাইন স্পোর্টস বেটিং ও ক্যাসিনো কম্পানির। এখানেই তীব্র আপত্তি বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড সভাপতি নাজমুল হাসানের। এমন অনুমতি বোর্ড দেয়নি এবং কখনো দেবে না বলেও জানিয়েছেন তিনি।

অবাক কাণ্ড বটে! জাতীয় চুক্তির শর্ত অনুযায়ী, যেকোনো প্রতিষ্ঠানের দূতিয়ালির আগে বোর্ডের অনুমোদন নিতে হয় সংশ্লিষ্ট ক্রিকেটারকে। এ ক্ষেত্রে সাকিব সেটি নেন বলেই জানিয়েছেন নাজমুল, ‘বেটিংসংক্রান্ত কিছু হয়ে থাকলে অনুমতি দেবই না। এর মানে হচ্ছে, আমাদের কাছে অনুমতি চায়নি (সাকিব)। ’ তবে ফেসবুক পোস্টের ভিত্তিতে ব্যবস্থা নিতে রাজি নন বোর্ড সভাপতি, ‘(সাকিব) আদৌ চুক্তি করেছে কি না, এটিও আমাদের জানতে হবে। আজকের সভায় কথাটি উঠেছিল। আমরা বলেছি, এটি কিভাবে হয়! তাড়াতাড়ি বের করতে হবে যে এটি আসলেই হয়েছে কি না। (সাকিবকে) নোটিশ দেওয়া হবে, এটি কিভাবে সম্ভব! এটি তো বোর্ড কোনোভাবে অনুমোদন করবে না। ’

একই সভায় এশিয়া কাপের জন্য অধিনায়ক মনোনীত হবেন, এমন একটি জোর আলোচনা ছিল। তাতে সবার আগে সাকিবের নাম আছে। বেটউইনারের সঙ্গে চুক্তি করে থাকলে এই তালিকা থেকে তারকা অলরাউন্ডারের নাম কাটা পড়বে কি না, সেই প্রশ্নে সতর্ক বোর্ড সভাপতি, ‘আগে বিষয়টি জেনে নিই। ’

বেটউইনারের মতো প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে চুক্তি বাংলাদেশে বিদ্যমান আইনেও অনুমোদন নেই বলে জানিয়েছেন নাজমুল হাসান, ‘এটি তো শুধু ক্রিকেট বোর্ড নয়, বাংলাদেশের আইনেও অনুমতি নেই। আমাদের দেশের আইন এটি পারমিট করে না। এটি তো অবশ্যই সিরিয়াস ইস্যু। এ জন্যই ফেসবুক বা পোস্টিংয়ের ওপর নির্ভর না করে আমাদের তদন্ত করতে হবে। খুঁজে দেখতে হবে আসলে কী হয়েছে। এটি সত্যি হয়ে থাকলে বোর্ডের যা করার, অবশ্যই তা করবে। ’



সাতদিনের সেরা