kalerkantho

শনিবার । ২০ আগস্ট ২০২২ । ৫ ভাদ্র ১৪২৯ । ২১ মহররম ১৪৪৪

বেয়ারস্টোর টানা তিন

টেস্টে এটা তাঁর টানা তৃতীয় সেঞ্চুরি। সব মিলিয়ে এ বছরের প্রথম সাত মাসে টেস্ট সেঞ্চুরি পাঁচটি। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে শেষ দুই টেস্টের তিন ইনিংস ১৩৬, ১৬২ ও ৭১*।

৪ জুলাই, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



তখন চোখ রাঙাচ্ছিল ফলোঅন। ভারতের রানপাহাড়ে চাপা পড়া ইংল্যান্ড ৮৩ রানে হারিয়েছে ৫ উইকেট। উত্তাল সমুদ্রে দক্ষ নাবিকের মতোই হাল ধরেছেন জনি বেয়ারস্টো। ব্যাটে বসন্ত চলা এই মিডল অর্ডারের সেঞ্চুরিতে বার্মিংহামে গতকাল ফলোঅন এড়িয়েছে স্বাগতিকরা।

বিজ্ঞাপন

১২ রান নিয়ে তৃতীয় দিন শুরু করা বেয়ারস্টো থামেন ১০৬-এ। টেস্টে এটা তাঁর টানা তৃতীয় সেঞ্চুরি। সব মিলিয়ে এ বছরের প্রথম সাত মাসে টেস্ট সেঞ্চুরি পাঁচটি। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে শেষ দুই টেস্টের তিন ইনিংস ৯২ বলে ১৩৬, ১৫৭ বলে ১৬২ ও ৪৪ বলে ৭১*।

টি-টোয়েন্টি মেজাজে ব্যাট করা বেয়ারস্টো স্বাচ্ছন্দ্যে ব্যাট করেছেন ভারতের বিপক্ষেও। ১৪০ বলে ১৪ বাউন্ডারি দুই ছক্কায় সাজিয়েছিলেন ১০৬ রানের ইনিংসটি। বেন স্টোকসের দলের প্রথম ইনিংস থেমেছে ২৮৪ রানে। মোহাম্মদ সিরাজ নিয়েছেন চার উইকেট আর বুমরাহর শিকারটি তিনটি। ১৩২ রানের লিড নিয়ে দ্বিতীয় ইনিংস শুরু করা ভারত তৃতীয় দিন শেষে ৩ উইকেট হারিয়ে করেছে ১২৫ রান। সব মিলিয়ে সফরকারীরা এগিয়ে ২৫৭ রানে। চেতেশ্বর পূজারা ৫০ ও ঋষভ পান্ট ব্যাট করছিলেন ৩০ রানে। শুভমান গিল ৪, হনুমা বিহারি ১১ ও বিরাট কোহলি ফেরেন ২০ রানে।

আগের দিনের ৫ উইকেটে ৮৪ নিয়ে নড়বড়ে শুরুই করেছিল ইংল্যান্ড। বেন স্টোকস জীবন পান দুইবার। ১৮ রানে কভারে শার্দূল ঠাকুর আর ২৫ রানে মিড অফে তাঁর ক্যাচ ছাড়েন ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক জাসপ্রিত বুমরাহ। শেষ পর্যন্ত শার্দূলের বলেই ২৫ রানে বুমরাহর অসাধারণ ক্যাচে আউট হয়েছেন স্টোকস। ১৪৯ রানে ৬ উইকেট হারানোয় ফলোঅনের শঙ্কা কাটেনি তখনো। সপ্তম উইকেটে স্যাম বিলিংসকে সঙ্গে নিয়ে জনি বেয়ারস্টোর ৯২ রানের জুটিতে কাটে সেই কালো মেঘ। ১১তম টেস্ট সেঞ্চুরির কিছুক্ষণ পরই বেয়ারস্টোকে ফিরিয়ে জুটিটা ভাঙেন মোহাম্মদ সামি।

ঠিক সময়ে বুমরাহর বোলিং পরিবর্তনকে ফুটবলের সঙ্গে মিলিয়ে বলা হচ্ছে ‘দারুণ অ্যাসিস্ট’। আক্রমণে ফেরা সামির অফ স্টাম্পের বাইরের প্রথম বলটাই তাড়া করতে গিয়ে প্রথম স্লিপে বিরাট কোহলির তালুবন্দি তিনি। এরপর ইংল্যান্ডের লেজ ছেঁটে দেন মোহাম্মদ সিরাজ। ৪৩ রানের ব্যবধানে ষে চার উইকেট হারায় তারা, এর তিনটিই সিরাজের। ক্রিকইনফো



সাতদিনের সেরা