kalerkantho

রবিবার । ১৪ আগস্ট ২০২২ । ৩০ শ্রাবণ ১৪২৯ । ১৫ মহররম ১৪৪৪

হাল ছাড়ছেন না সেরেনা

৩০ জুন, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



হাল ছাড়ছেন না সেরেনা

সেই উইম্বলডন, সেই সেন্টার কোর্ট, সেই অশ্রুসিক্ত সেরেনা উইলিয়ামস। ১২ মাস আগে প্রথম রাউন্ড থেকে ছিটকে যান চোটে পড়ে। এরপর খেলেননি কোনো একক ম্যাচ। ফেরাটা হলো উইম্বলডনেই।

বিজ্ঞাপন

কিন্তু এবারও বিদায় প্রথম রাউন্ডে! অভিষিক্ত হারমোনি তানের কাছে হারলেন ৭-৫, ১-৬, ৭-৬ (১০/৭) গেমে। কদিন পর ৪১ বছরে পা রাখবেন ২৩ গ্র্যান্ড স্লামজয়ী এই কিংবদন্তি। এভাবে প্রথম রাউন্ড থেকে ছিটকে যাওয়ায় প্রশ্নটা উঠছে, এটাই কি শেষ উইম্বলডন তাঁর? ভবিষ্যৎ নিয়ে অনিশ্চিত সেরেনাও, ‘এটা এমন এক প্রশ্ন, যার উত্তর দিতে পারব না। জানি না (পরের উইম্বলডন খেলবেন কি না)। কোথায় নিজেকে ফিরে পাব কে জানে?’

তাহলে কি আলো ঝলমলে ক্যারিয়ারের ইতি টানতে চলেছেন সেরেনা। মার্গারেট কোর্টের ২৪ গ্র্যান্ড স্লামের রেকর্ড কি ছোঁয়া হবে না? এমন প্রশ্নে আবার হাল না ছাড়ার প্রত্যয় তাঁর কণ্ঠে, ‘আমি প্রথম গ্র্যান্ড স্লাম জিতেছিলাম ইউএস ওপেনে। এটা আমার কাছে বিশেষ কিছু। ঘরের কোর্টটা আরো ভালো খেলতে অনুপ্রেরণা জোগাবে আমাকে। ’

প্রথম সেটে লড়াই করে ৫-৭ গেমে হারেন সেরেনা। দ্বিতীয় সেটে প্রবলভাবে ঘুরে দাঁড়ান ৬-১-এ জিতে। তৃতীয় সেটে র্যাংকিংয়ে ১১৫ নম্বরে থাকা ফ্রান্সের হারমোনির ম্যাচ পয়েন্ট সেভ করেন সেরেনা। খেলা নেন টাইব্রেকারে। সেখানে এগিয়েও যান ৪-০ পয়েন্টে। এর পরই টানা ৫ পয়েন্ট জিতে হারমোনি সেট ও ম্যাচ নিজের করে নেন ১০/৭ ব্যবধানে। সেরেনার মতো কিংবদন্তিকে হারানোটা বিশ্বাসই হচ্ছে না তাঁর, ‘আবেগী হয়ে পড়েছি। সেরেনা টেনিসের কিংবদন্তি। তাঁর খেলা টিভিতে দেখে বড় হয়েছি। ড্রতে তাঁকে পেয়ে ভয় পেয়েছিলাম আমি। ভেবেছিলাম দু-একটা গেম জিততে পারি। এভাবে ম্যাচ জেতাটা বিশেষ কিছু। ’

এছাড়া ইগা শোয়াইতেক একুশ শতকের প্রথম নারী খেলোয়াড় হিসাবে জিতেছেন টানা ৩৬তম ম্যাচ। ছেলেদের এককে ২০১৯ সালের পর উইম্বলডনে ফেরাটা রাফায়েল নাদাল স্মরণীয় করেছেন জয়ে। এএফপি



সাতদিনের সেরা