kalerkantho

শনিবার । ২০ আগস্ট ২০২২ । ৫ ভাদ্র ১৪২৯ । ২১ মহররম ১৪৪৪

শিরোপার পথে আরেক পা কিংসের

২৭ জুন, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



শিরোপার পথে আরেক পা কিংসের

ক্রীড়া প্রতিবেদক : ম্যাচটা ছিল ডার্বি। দুই দলেরই যেহেতু এক ভেন্যু। সাম্প্রতিক ফর্মে শেখ রাসেল সেই ডার্বির উত্তেজনা বাড়িয়েছিল। গতকাল মাঠেও অনেকটা সময় দুই দল খেলেছে সমানতালে।

বিজ্ঞাপন

শেখ রাসেলই এগিয়ে গিয়েছিল শুরুতে। তবে বসুন্ধরা কিংস সমতা ফিরিয়ে ধীরে ধীরে ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ নিয়েছে। শেষ পর্যন্ত ৩-২ গোলে জিতেছে বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা।

এই জয়ে শিরোপার পথেও আরো এক ধাপ এগিয়ে গেছে দলটি। আবাহনীর চেয়ে ৯ পয়েন্ট এগিয়ে থেকে এখন শীর্ষে আছে কিংস। আবাহনী অবশ্য এক ম্যাচ কম খেলেছে। কিন্তু আকাশি-নীলের ওপর ৯ পয়েন্টের চাপ কম নয়।

রাসেল এই লিগে বলা যায় দুটি অধ্যায় পার করছে। প্রথম অধ্যায়টা হতাশার। বাকি সময়ে সেই হতাশা কাটিয়ে ছন্দে ফেরার। আবাহনীর সঙ্গে ড্র, শেখ জামালের সঙ্গে জয়ে সেই ছন্দটা পেয়েছিলও তারা। কিন্তু চ্যাম্পিয়ন কিংসের কাছ থেকে পয়েন্ট নেওয়াটা সম্ভব হয়নি তাদের। বসুন্ধরা কিংস অ্যারেনায় ম্যাচের ২৮ মিনিটে পেনাল্টি পায় শেখ রাসেল। বিশ্বনাথ ঘোষ রিচার্ড গাডজেকে ফাউল করলে পেনাল্টির বাঁশি বাজান রেফারি। যদিও কিংসের খেলোয়াড়দের দাবি ছিল ফাউলটা বক্সের বাইরে হয়েছে। কিন্তু রেফারি সায়মন সহকারীর সঙ্গে আলাপ করে নিজের সিদ্ধান্তে অটল থাকেন। তর্কে জড়িয়ে মাঝখান থেকে হলুদ কার্ড দেখেন রিমন হোসেন। পেনাল্টি থেকে গোল করে রাসেলকে এগিয়ে দেন আইজার আকমাতভ।

কিংস সমতা ফেরায় বিরতির আগে আগে। বক্সের ভেতর রোবিনহোর কাটব্যাক পেয়ে বাঁ পায়ের দর্শনীয় এক শটে বল জালে পাঠিয়েছেন মিগেল ফিগেইরা। ৬৫ মিনিটে রাসেলকে হত্যোদম করে কিংসকে এগিয়ে দেওয়া গোলটি খালেদ শাফিইর। মিগেলের ফ্রিকিক নুহা মারংয়ের ব্যাক হেড হয়ে দ্বিতীয় পোস্টে পড়লে ফাঁকায় থাকা খালেদ আলতো শটে সেই বল জালে জড়িয়ে দিয়েছেন। এরপর রোবিনহোর গোলে ৩-১ ম্যাচের ৮৫তম মিনিটে। বক্সের ভেতর বল পেয়ে একটা জাদুকরী মুহূর্তের উপহার দেন ব্রাজিলিয়ান তারকা। সামনে ছিলেন ডিফেন্ডার নাসিরউদ্দিন। তাঁর পেছনে গোলরক্ষক আশরাফুল। নাসিরউদ্দিনের পায়ের ফাঁক দিয়ে রোবিনহো দ্বিতীয় পোস্ট দিয়ে যখন বলটি জালে জড়াচ্ছেন, তখনো আশরাফুল তাঁর জায়গায় ঠায় দাঁড়িয়ে। নাসিরউদ্দিনের ভুল, নাকি তিনিই জায়গায় থাকতে পারেননি...তবে গোলে কিংস স্ট্রাইকারের মুনশিয়ানা স্পষ্ট। এই গোলের পর আসলে ম্যাচে আর সেভাবে সুযোগ থাকে না জুলফিকার মাহমুদের দলের। অতিরিক্ত সময়ে দীপক রায়ের ক্রসে বদলি নামা মান্নাফ রাব্বী সমতা ফেরালেও ম্যাচে ফেরার সুযোগ ছিল না তাদের।

লিগে কিংসের বাকি আর পাঁচ ম্যাচ। আবাহনীর চেয়ে ৯ পয়েন্টে এগিয়ে শিরোপার হাতছানিই দেখছে তারা।



সাতদিনের সেরা