kalerkantho

শনিবার । ১৩ আগস্ট ২০২২ । ২৯ শ্রাবণ ১৪২৯ । ১৪ মহররম ১৪৪৪  

মিচেলের জবাবে বেয়ারস্টো

২৫ জুন, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মিচেলের জবাবে বেয়ারস্টো

ডেরিল মিচেল : টানা তিন ম্যাচে সেঞ্চুরি

রান উৎসব চলছেই ডেরিল মিচেলের ব্যাটে। টানা তৃতীয় টেস্টে ছুঁয়েছেন তিন অঙ্কের জাদুকরী স্কোর। লর্ডসে প্রথম টেস্টে ১০৮ রানের পর নটিংহামে দ্বিতীয় ম্যাচে তিনি খেলেছিলেন ১৯০ রানের কাব্যিক ইনিংস। দুর্দান্ত ছন্দ ধরে রেখে লিডসে জ্যাক লিচ ও স্টুয়ার্ট ব্রডের ধ্বংসযজ্ঞের মাঝে ১০৯ রানের কার্যকর সেঞ্চুরি তাঁর।

বিজ্ঞাপন

৩টি ছক্কা ও ৯টি চারে সিরিজে তৃতীয় সেঞ্চুরিটি সাজিয়েছেন তিনি। ১২৩ রানে ৫ উইকেট হারানোর পরও নিউজিল্যান্ড ৩২৯ পর্যন্ত গেছে তাঁর ইনিংসটির কল্যাণেই! জবাবে জনি বেয়ারস্টো ও জেমি ওভারটনের ডাবল সেঞ্চুরি জুটিতে ৬ উইকেটে ২৬৪ রান করেছে ৫৫ রানে ৬ উইকেট হারিয়ে ধ্বংসস্তূপে পরিণত হওয়া ইংল্যান্ড। ওয়ানডে মেজাজে খেলে ২১টি চারে ১২৬ বলে ১৩০* রানের বিধ্বংসী ইনিংস বেয়ারস্টোর। ১২টি চার এবং ২টি ছক্কায় ৮৯* রানের কার্যকর ইনিংস ওভারটনের।

নিউজিল্যান্ডের পঞ্চম ব্যাটার হিসেবে টানা তিন টেস্টে সেঞ্চুরি করলেন মিচেল। দেশের বাইরে তিন ম্যাচের সিরিজের প্রতিটিতে সেঞ্চুরি করা প্রথম ব্যাটার শুধু তিনি। চলতি সিরিজে সর্বোচ্চ ৪৮২ রানও তাঁর। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে কুলীন টেস্টে এক সিরিজে কোনো কিউই ব্যাটারের সর্বোচ্চ রানের মার্টিন ডনলির ৭৩ বছরের পুরনো রেকর্ডও তাতে ভেঙেছেন মিচেল। ইংল্যান্ডের হয়ে পাঁচ উইকেট জ্যাক লিচের আর ৩ শিকারে নিজের টেস্ট উইকেট সংখ্যা ৫৪৯-এ নিয়ে গেছেন স্টুয়ার্ট ব্রড।  

লিডসে ইংল্যান্ডের শুরু হয়েছে যাচ্ছেতাই। ট্রেন্ট বোল্ট-নেইল ওয়াগনারদের গতির ঝড়ে একেবারে টালমাটাল অবস্থা স্বাগতিকদের। ৫৫ রান তুলতেই তারা হারিয়ে বসে ছয় ব্যাটারকে। প্রথম তিন উইকেটই শিকার করে ইংলিশ ব্যাটিং লাইন দুমড়ে-মুচড়ে দিয়েছেন বোল্ট। ৫ ওভারের ভয়ংকর এক স্পেলে ইনিংসে প্রথম ওভারে অ্যালেক্স লিসকে ফেরানোর পর পঞ্চম ও সপ্তম ওভারে শিকার বানান ওলি পোপ ও জ্যাক ক্রলিকে।

১৭ রানে ৩ উইকেট হারানোর পর বিপর্যস্ত ইংল্যান্ডের দুর্দশা আরো বেড়েছে টিম সাউদি ৩ রান পর জো রুটকে ফেরালে। এরপর জোড়া আঘাতে বেন স্টোকস ও বেন ফোকসকে ফিরিয়ে ইংল্যান্ডের মিডলঅর্ডার ধ্বসিয়ে দেন ওয়াগনার। তবে বেয়ারস্টো ও অভিষিক্ত ওভারটনের পাল্টা আঘাতে দুর্দান্তভাবে ঘুরে দাঁড়িয়েছে ইংল্যান্ড। এএফপি

 



সাতদিনের সেরা