kalerkantho

শনিবার । ২৫ জুন ২০২২ । ১১ আষাঢ় ১৪২৯ । ২৪ জিলকদ ১৪৪৩

এশিয়ান গেমস স্থগিতেও প্রস্তুতি থামছে না

৭ মে, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ৪ মিনিটে



এশিয়ান গেমস স্থগিতেও প্রস্তুতি থামছে না

ক্রীড়া প্রতিবেদক : কঠোর বিধি-নিষেধের মধ্যে জাপানে অলিম্পিক হয়ে গেছে। সারা বিশ্বেই এখন করোনাকে পেছনে ফেলেই সব হচ্ছে। তবে চীনের পরিস্থিতি ভিন্ন। সাংহাইয়ে এখনো লকডাউন চলছে, সেখানে হঠাত্ করেই বেড়ে গেছে সংক্রমণ।

বিজ্ঞাপন

চীনের বাণিজ্যিক রাজধানী থেকে মাত্র ১৭৫ কিলোমিটার দূরের হাংঝুতে সেপ্টেম্বরের এশিয়ান গেমস আয়োজন নিয়ে তাই শঙ্কা তৈরি হয়েছিল। সেই শঙ্কাই সত্যি হয়েছে শেষ পর্যন্ত।

কাল আনুষ্ঠানিক বিবৃতি দিয়ে অলিম্পিক কমিটি অব এশিয়া জানিয়েছে, নির্ধারিত সময়ে এবারের এশিয়ান গেমস হচ্ছে না। স্থগিত করা হয়েছে আসরটি। পরে কবে হবে তা জানা যাবে আগামী কিছুদিনের মধ্যেই। গেমসগুলোর মধ্যে এশিয়াডেই বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব সবচেয়ে বেশি থাকে। এবারও ১৭ ডিসিপ্লিনের বিশাল এক বহর যাওয়ার কথা হাংঝুতে। গেমসের জন্য এক মাস আগে অ্যাথলেটদের প্রস্তুতিও শুরু হয়েছে বাংলাদেশ অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশনের (বিওএ) তত্ত্বাবধানে। আসর স্থগিতের খবরে গতকাল বিওএর যে তাত্ক্ষণিক প্রতিক্রিয়া, তাতে ইঙ্গিত প্রস্তুতি ক্যাম্পও বন্ধ করে দেওয়ার। বিওএর মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) ফখরুদ্দিন হায়দার যেমন বলেছেন, ‘গেমস স্থগিত হয়ে যাওয়ায় প্রস্তুতি ক্যাম্পও নিশ্চয় এখন বন্ধ করে দেওয়া হবে। যদিও এ ব্যাপারে এখনো কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। খুব তাড়াতাড়িই এটা জানানো হবে। ’

তবে এশিয়াডের প্রস্তুতি ক্যাম্প বন্ধ হওয়ার খবরে ক্রীড়াঙ্গনে খুব বেশি যে হাহাকার তা নয়। হাইজাম্পার মাহফুজুর রহমান যেমন বলছিলেন, ‘একসঙ্গে তিনটি গেমসের প্রস্তুতি শুরু হয়েছে আমাদের—এশিয়ান গেমস, কমনওয়েলথ গেমস ও ইসলামিক সলিডারিটি গেমস। এশিয়ান গেমস স্থগিত হওয়ার খবরটা অবশ্যই দুঃখজনক। কারণ এরপর এসএ গেমস আছে। সেই আসরের জন্য পুরোপুরি তৈরি হতে এশিয়াডটা আমাদের সহায়ক হতো। তবে এখন কমনওয়েলথ গেমস ও ইসলামিক সলিডারিটি গেমসের জন্য আমরা একইরকমভাবে অনুশীলন চালিয়ে যেতে পারব আশা করি। ’ ফখরুদ্দিন হায়দারও তেমনটাই জানিয়েছেন, ‘বাকি গেমসগুলোর প্রস্তুতি নিশ্চয় চলমান থাকবে। ’

আগামী ২৮ জুলাই থেকে ৮ আগস্ট ইংল্যান্ডের বার্মিংহামে হবে কমনওয়েলথ গেমস। এর পরপরই তুরস্কে ইসলামিক সলিডারিটি গেমস। সেপ্টেম্বরের এশিয়ান গেমসে যে ১৭টি ডিসিপ্লিনে অংশ নেওয়ার কথা ছিল, তার আটটিই আছে কমনওয়েলথ বা ইসলামিক সলিডারিটি গেমসেও। অ্যাথলেটিকস, সাঁতার, আর্চারি, শ্যুটিং, জিমন্যাস্টিকস, কারাতে, ভারোত্তোলন, ফেন্সিংয়ে তাই প্রস্তুতি বন্ধ হচ্ছে না। এর বাইরে বাইরে বক্সিং অংশ নেবে শুধু কমনওয়েলথেই, টেবিল টেনিস ও কুস্তি কমনওয়েলথের পাশাপাশি সলিডারিটি গেমসে আর হ্যান্ডবল শুধু সলিডারিটি গেমসে। সেগুলোতেও তাই প্রস্তুতি বন্ধ হচ্ছে না। অর্থাত্ ১২ খেলায় আগের মতোই অনুশীলন চলবে।

শুধু এশিয়াডে অংশ নেওয়ার কথা ক্রিকেট, ফুটবল, গলফ, হকি, কাবাডি, ব্রিজ, দাবা, তায়কোয়ান্দো ও ই-স্পোর্টসে। এর মধ্যে হকি দল এই মুহূর্তে এশিয়ান গেমস বাছাই খেলতে থাইল্যান্ডে। টুর্নামেন্টের প্রথম ম্যাচে আজ ইন্দোনেশিয়ার বিপক্ষে মাঠেও নামার কথা বাংলাদেশ দলের। হকি ফেডারেশনের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ ইউসুফ জানিয়েছেন, বাছাই পর্ব যথানিয়মে চলবে, ‘গেমস স্থগিত হয়েছে, বাতিল তো হয়নি। আমি এশিয়ান হকি ফেডারেশনে যোগাযোগ করে যেটুকু জানতে পেরেছি, কয়েক মাসের জন্য হয়তো এটা পেছানো হয়েছে। তাই বাছাই পর্ব যেমন চলছে তেমনি চলবে। এখান থেকে যারা চূড়ান্ত পর্ব নিশ্চিত করবে, তারাই খেলবে পরবর্তী সময়ে যখনই গেমস হবে সে আসরে। ’

শ্যুটারদের জন্য গেমসটা স্থগিত হওয়া অবশ্য ভীষণ হতাশার। কারণ কমনওয়েলথে এবার শ্যুটিং নেই। এ বছর পাখির চোখ করেছিল তারা এশিয়াডই। সেটি না হওয়ার খবরে এখন নতুন করে পরিকল্পনা সাজাতে হবে বলেও জানিয়েছেন পিস্তল শ্যুটার শাকিল আহমেদ।



সাতদিনের সেরা