kalerkantho

শুক্রবার ।  ২৭ মে ২০২২ । ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ । ২৫ শাওয়াল ১৪৪

আইসিসির বর্ষসেরা আফ্রিদি

২৫ জানুয়ারি, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



আইসিসির বর্ষসেরা আফ্রিদি

বল হাতে আগুন ঝরিয়েছেন বছরজুড়ে। গতি, সুইং, বাউন্সে হয়ে উঠেছিলেন ব্যাটারদের আতঙ্ক। এরই স্বীকৃতি পেলেন শাহীন শাহ আফ্রিদি। পাকিস্তানি এই ফাস্ট বোলার জিতেছেন আইসিসি বর্ষসেরা ক্রিকেটারের পুরস্কার স্যার গ্যারফিল্ড সোবার্স ট্রফি।

বিজ্ঞাপন

গত বছর ৩৬টি আন্তর্জাতিক ম্যাচে নিয়েছিলেন ৭৮ উইকেট। টেস্টে ৪৭, ওয়ানডেতে ৮ আর টি-টোয়েন্টির উইকেট ২৩টি। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে পাকিস্তানকে সেমিফাইনালে নিয়ে যান ছয় ম্যাচে ৭ উইকেট নিয়ে।

শুধু পরিসংখ্যান দিয়ে আফ্রিদির বোলিংয়ের গুরুত্ব বোঝানো কঠিন। বিশ্বকাপে রোহিত শর্মা ও লোকেশ রাহুলকে ফিরিয়ে শুরুতেই যে আতঙ্ক ছড়ান সেটা আর কাটিয়ে উঠতে পারেনি ভারত। বর্ষসেরার পুরস্কার হাতে সেই ম্যাচটার কথাই স্মরণ করেছেন আফ্রিদি, ‘চেষ্টা ছিল পাকিস্তানের হয়ে ভালো কিছু করার। আমরা ভালো কিছু ম্যাচ জিতেছি। ভারতকে হারানো ছিল ঐতিহাসিক। ’

বর্ষসেরা নারী ক্রিকেটারের পুরস্কার ভারতের স্মৃতি মান্ধানার। ২২ ম্যাচে ৮৫৫ রান তাঁর। ২০১৮ সালেও আইসিসির সেরা হয়েছিলেন ভারতীয় এই ক্রিকেটার। টেস্টে বছরটা ছিল জো রুটের। ১৫ ম্যাচে ছয় সেঞ্চুরিসহ এক হাজার ৭০৮ রান করায় টেস্টের সেরা তিনিই। ওয়ানডেতে ৯ ম্যাচে ২৭৭ রান ও ১৭ উইকেট নিয়ে বর্ষসেরার দৌড়ে ছিলেন সাকিব আল হাসান। তাঁকে পেছনে ফেলে পুরস্কারটা জিতেছেন পাকিস্তানের বাবর আজম। ছয় ম্যাচে দুই সেঞ্চুরিসহ ৪০৫ রান করায় সাকিবকে পেছনে ফেলেন ভারতীয় অধিনায়ক। নিউজিল্যান্ড গত বছর জিতেছিল টেস্ট বিশ্বচ্যাম্পিয়নশিপ আর অস্ট্রেলিয়া টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। তবে দুই দেশের কারো হাতে কোনো বিভাগেই ওঠেনি সেরার স্বীকৃতি। আইসিসি



সাতদিনের সেরা