kalerkantho

বুধবার ।  ১৮ মে ২০২২ । ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ । ১৬ শাওয়াল ১৪৪৩  

রিয়ালের ১২, মার্সেলোর ২৩

১৮ জানুয়ারি, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



রিয়ালের ১২, মার্সেলোর ২৩

গত মৌসুমটা শিরোপাহীন কেটেছে রিয়াল মাদ্রিদের। খরাটা কাটল এবার। রিয়াদে অ্যাথলেতিক বিলবাওকে ২-০ গোলে হারিয়ে স্প্যানিশ সুপার কাপ জিতল কার্লো আনচেলোত্তির দল। এটা রিয়ালের ১২তম সুপার কাপ, যা দ্বিতীয় সর্বোচ্চ।

বিজ্ঞাপন

বার্সেলোনা শিরোপাটা জিতেছে ১৩ বার। এই জয়ে ইতিহাসের পাতায় মার্সেলো। রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে যৌথ সর্বোচ্চ ২৩ শিরোপা জেতার কীর্তি এখন এই ব্রাজিলিয়ানের। সমান ২৩ শিরোপা আছে কিংবদন্তি পাকো জেন্তোর। মার্সেলোর ২৩ শিরোপার চারটি চ্যাম্পিয়নস লিগ, চারটি ক্লাব বিশ্বকাপ, তিনটি ইউরোপিয়ান সুপার কাপ, পাঁচটি লা লিগা, দুটি কোপা দেল রে আর স্প্যানিশ সুপার কাপ পাঁচটি। তবে বয়সের কারণে অধিনায়ক হয়েও পরশু ম্যাচ শেষের মাত্র মিনিট পাঁচেক আগে বদলি হয়ে নেমেছিলেন মার্সেলো।

নতুন রেকর্ড গড়েছেন লুকা মডরিচও। ৩৮ মিনিটে ডি-বক্সে তিনজনের মধ্য থেকে ছোট করে কাটব্যাক করেন রদ্রিগো। প্রথম ছোঁয়ায় জোরালো উঁচু শটে জাল খুঁজে নেন মডরিচ। ৩৬ বছর ১২৯ দিনে গোল করলেন ক্রোয়েশিয়ার সাবেক অধিনায়ক, যা রিয়ালের হয়ে সবচেয়ে বেশি বয়সে লক্ষ্যভেদের কীর্তি। আগের রেকর্ডটা ছিল ১৯৭৬ সালে আমানসিওর, ৩৪ বছর পাঁচ মাসে। ৫২ মিনিটে পেনাল্টি থেকে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন করিম বেনজিমা। ৮৭ মিনিটে ডি-বক্সে এদের মিলিতাওয়ের হ্যান্ডবলের কারণে পেনাল্টি পায় বিলবাও আর লাল কার্ড দেখেন মিলিতাও। কিন্তু রাউল গার্সিয়ার স্পট কিক ঠেকিয়ে রিয়ালের ২-০ গোলের জয় নিশ্চিত করেন থিবো কর্তোয়া। রিয়ালে দ্বিতীয় দফা ফেরার পর কার্লো আনচেলোত্তির এটা প্রথম শিরোপা। ২০১৩ থেকে ২০১৫ মেয়াদে চ্যাম্পিয়নস লিগসহ চারটি শিরোপা জিতেছিলেন তিনি।

এদিকে প্রিমিয়ার লিগে ব্রেন্টফোর্ডকে ৩-০ গোলে হারিয়ে পয়েন্ট টেবিলের দুইয়ে উঠে এসেছে লিভারপুল। একটি করে গোল ফাবিনিয়ো, অ্যালেক্স অক্সলেইড চেম্বারলিন ও তাকুমি মিনামিনোর। সিরি ‘এ’তে ইন্টার মিলানের সঙ্গে গোলশূন্য ড্রতে শিরোপা লড়াই জমিয়ে তুলেছে আতালান্তা। সমান ২১ ম্যাচ শেষে ইন্টারের পয়েন্ট ৫০, এসি মিলানের ৪৮, নাপোলির ৪৩ ও আতালান্তার ৪২। ইএসপিএন



সাতদিনের সেরা