kalerkantho

বুধবার ।  ১৮ মে ২০২২ । ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ । ১৬ শাওয়াল ১৪৪৩  

কিংসের গ্রুপে কেরালা ও মাজিয়া

১৮ জানুয়ারি, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কিংসের গ্রুপে কেরালা ও মাজিয়া

ক্রীড়া প্রতিবেদক : এএফসি কাপে এবার বসুন্ধরা কিংসের বড় প্রতিপক্ষ ভারতের গোকুলাম কেরালা। গতকাল কুয়ালালামপুরে এএফসি কাপের ড্রয়ে ১০ গ্রুপে দলগুলোর বিন্যাস হয়েছে। বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নরা পড়েছে ‘ডি’ গ্রুপে, সেখানে ভারতের গোকুলাম কেরালার সঙ্গে আছে মালদ্বীপের মাজিয়া স্পোর্ট অ্যান্ড রিক্রিয়েশন। ছয় দলের প্লে-অফ খেলার পর চূড়ান্ত হবে গ্রুপের চতুর্থ দলটি।

বিজ্ঞাপন

গত মৌসুমের গোকুলাম কেরালাকে নিয়ে কেউ অতটা ভাবেনি। তাদের পরিচয় ছিল জায়ান্ট কিলার। অথচ সেই দলটিই কিনা প্রথমবারের মতো আই লিগ জিতে জায়ান্ট হয়ে চমকে দিয়েছে সবাইকে। তাদের সঙ্গেই মূল লড়াই হবে বসুন্ধরা কিংসের।

এএফসি কাপে গতবার সফল না হলেও বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নরা এবারও গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হওয়ার জন্য লড়বে। গ্রুপে তৃতীয় দল মালদ্বীপের মাজিয়া স্পোর্টকে গতবার ২-০ গোলে হারিয়েছিল তারা। এএফসি কাপের ব্যর্থতা ঘোচাতে কিংস এবার দলে কিছু পরিবর্তন আনলেও ইনজুরি সমস্যা রয়েছে। নির্ভরযোগ্য সূত্রে জানা গেছে, ঘরোয়া ফুটবল মৌসুমের মধ্যবর্তী দলবদলে তারা আবার নতুন বিদেশি আনার উদ্যোগ নেবে এই দুর্বলতা কাটাতে।

গ্রুপের চতুর্থ দল হিসেবে ঢাকা আবাহনীরও খেলার সুযোগ আছে। তবে লিগ চ্যাম্পিয়ন না হওয়ায় তারা সরাসরি খেলার সুযোগ পাচ্ছে না। গতবার প্রিলিমিনারি রাউন্ড খেলার সুযোগ পেলেও তারা নানা বাহানা করে শেষ পর্যন্ত বাদ পড়েছে টুর্নামেন্ট থেকে। এবারও প্রিলিমিনারি পর্ব উতরে আবাহনীকে খেলতে হবে প্লে-অফ। মালদ্বীপের ভ্যালেন্সিয়া ও ভুটানের পারো এফসির মধ্যে বিজয়ী দলের বিপক্ষে আগামী ১২ এপ্রিল আবাহনী মুখোমুখি হবে প্রিলিমিনারি রাউন্ডে। এটা জিতলেই খুলবে প্লে-অফের দুয়ার, দেখা হয়ে যেতে পারে এটিকে মোহনবাগানের সঙ্গে। ভারতীয় ফুটবলের ঐতিহ্যবাহী ক্লাবটির সঙ্গে গতবার ১-১ গোলে ড্র করেছিল কিংস। এবার তাদেরও প্লে-অফ খেলতে হচ্ছে। নেপালের মাচিন্দা ও শ্রীলঙ্কার ব্লু স্টারের মধ্যকার ম্যাচে বিজয়ী দলের সঙ্গেই প্রথম খেলতে হবে মোহনবাগানের। সেটি জিতলে পরেই ১৯ এপ্রিল আবাহনীর সঙ্গে হতে পারে গ্রুপে পর্বে ওঠার ম্যাচ। চতুর্থ দল নিশ্চিত হলে আগামী ১৯ থেকে ২৪ মে মূল লড়াই শুরু হবে কেন্দ্রীয় ভেন্যুতে।



সাতদিনের সেরা