kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১৩ মাঘ ১৪২৮। ২৭ জানুয়ারি ২০২২। ২৩ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

কোয়ার্টারে কিংস-জামাল লড়াই

স্বাধীনতা কাপ ফুটবল

ক্রীড়া প্রতিবেদক   

৯ ডিসেম্বর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কোয়ার্টারে কিংস-জামাল লড়াই

রিজার্ভ বেঞ্চের ফুটবলারদের নিয়ে বসুন্ধরা কিংস ৩-০ গোলে চট্টগ্রাম আবাহনীকে হারিয়ে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হিসেবে স্বাধীনতা কাপের কোয়ার্টার ফাইনালে পৌঁছেছে। এই গ্রুপ থেকে ২ পয়েন্ট করে পাওয়া নৌবাহিনী, পুলিশ ও চট্টগ্রাম আবাহনীর মধ্যে শ্রেয়তর গোল গড়ে পুলিশ হয়েছে গ্রুপ রানার্স আপ। শেষ আটে কিংসের প্রতিপক্ষ শেখ জামাল আর পুলিশ খেলবে শেখ রাসেলের বিপক্ষে। আবাহনীর প্রতিপক্ষ বাংলাদেশ সেনাবাহিনী এবং সাইফ স্পোর্টিং মুখোমুখি হবে স্বাধীনতা ক্রীড়া সংঘের।

বিজ্ঞাপন

নিয়মিত একাদশের আটজনকে বাইরে রেখে গতকাল বসুন্ধরা কিংস শুধু দুই বিদেশিকে নিয়ে নামে গ্রুপের শেষ ম্যাচ খেলতে। এর পরও চট্টগ্রাম আবাহনী লড়াই জমাতে পারেনি। ৬ মিনিটে একটা সুযোগ পেয়েও নাইজেরিয়ান ফরোয়ার্ড এবিমোবই পিটার বল জালে পাঠাতে পারেননি। এরপর কিংস আর সুযোগ দেয়নি। ২২ মিনিটে কাউন্টার অ্যাটাকে বক্সের বাইরে থেকে রবসন রোবিনহোর গড়ানো শটে গোল খেয়ে বসেন চট্টগ্রাম আবাহনীর গোলরক্ষক আজাদ হোসেন। বিরতির পর একচেটিয়া খেলে আদায় করে নেয় আরো দুই গোল। ৮০ মিনিটে বসনিয়ান ফরোয়ার্ড স্তোয়ান ভ্রানিয়েসকে ঠেকাতে বক্স ছেড়ে বেরিয়ে আসেন গোলরক্ষক আজাদ হোসেন। এরপর হাতে বল ঠেকিয়ে তিনি লাল কার্ড দেখে মাঠ ছাড়েন এবং ফ্রি-কিকের বিপদ ডেকে আনেন। স্তোয়ানের ফ্রি-কিকটি নতুন গোলরক্ষক সাইফুল ফিরিয়ে দিলেও ফিরতি বলে লক্ষ্যভেদ করেন ইব্রাহিম। নির্ধারিত সময়ের মিনিটখানেক আগে মতিন মিয়ার দৌড়ে তছনছ হয়ে যাওয়া আবাহনী হজম করে আরেক গোল। ৩-০ গোলের এই হারে চট্টগ্রাম আবাহনী বিদায় নেয় গ্রুপ পর্ব থেকে। দিনের প্রথম ম্যাচে নৌবাহিনীর সঙ্গে ১-১ গোলে ড্র করে বাংলাদেশ পুলিশ গ্রুপ রানার্স আপ হয়ে যায় কোয়ার্টারে। পুলিশের গোলদাতা এস এম বাবলু আর নৌবাহিনীর হয়ে গোল করেন জাহিদ হোসেন।



সাতদিনের সেরা