kalerkantho

মঙ্গলবার । ১১ মাঘ ১৪২৮। ২৫ জানুয়ারি ২০২২। ২১ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

ভারতে যুবাদের তিনে তিন

ক্রীড়া প্রতিবেদক   

৩ ডিসেম্বর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ইডেন গার্ডেন্স ভারতের ডেরা। সেই মাঠে স্বাগতিক দলের বিপক্ষে শতভাগ সাফল্য চাট্টিখানি কথা নয়। হোক তিন দলের এ সিরিজে ভারতেরই দুটি দল—অনূর্ধ্ব-১৯ ‘এ’ এবং ‘বি’ নামে। তবু প্রতিপক্ষের মাঠে খেলা তিনটি ম্যাচই জিতেছে রকিবুল হাসানের দল।

বিজ্ঞাপন

গতকাল ভারতের অনূর্ধ্ব-১৯ ‘এ’ দলের ম্যাচটি ৬ রানে জিতেছে বাংলাদেশের যুবারা।

টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে পুরো ৫০ ওভার খেলতে পারেনি বাংলাদেশ দল, ৪৭.২ ওভারে গুটিয়ে যায় ২৩০ রান করে। তবে বোলারদের কল্যাণে বিশেষ করে মেহরব হোসেনের কৃতিত্বে স্বাগতিকদের ২২৪ রানে থামিয়ে দিয়েছে বাংলাদেশের যুবারা। ভারত অনূর্ধ্ব-১৯ ‘এ’ দলের বিপক্ষে এটি রকিবুলদের দ্বিতীয় জয়। মাঝে স্বাগতিকদের ‘বি’ দলকেও একবার হারিয়েছে বাংলাদেশ। সেটা আগের ম্যাচেই, যে ম্যাচে সেঞ্চুরি করেছিলেন নওরোজ প্রান্তিক। গতকাল ৩ নম্বরে নামা ব্যাটসম্যান ফিফটি করার পথে ওপেনার মাহফিজুল ইসলামের সঙ্গে ৬৮ রানের জুটিও গড়েছেন। আর শুরুর উদ্বোধনী জুটিতে ৫০ রান উঠে যাওয়ায় ২৪ ওভারে বাংলাদেশের সংগ্রহ ২ উইকেটে ১১৮ রান। এই অবস্থায় যুবাদের ইনিংস ভারতীয়দের নাগালের বাইরেই চলে যাওয়ার কথা।

কিন্তু মিডল কিংবা লোয়ার অর্ডার সেই সুবিধাটা কাজে লাগাতে পারেনি। টপ অর্ডারে মাহফিজুল ও নওরোজের পর আর একটিও ফিফটি নেই বাংলাদেশ ইনিংসে। স্বাগতিক দলের ঋষিথ রেড্ডি একাই তুলে নিয়েছেন ৫ উইকেট। তাতে যুব বিশ্বকাপের এই প্রস্তুতি সফরে প্রথম হারের শঙ্কায় পড়েছিল বাংলাদেশ দল। তবে বোলারদের সাফল্যে কম পুঁজি নিয়েও জিতেছে বাংলাদেশ। নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারানো ভারতের লেজ ছেঁটে দিয়েছেন তানজিম হাসান সাকিব। তাঁর ও মেহরবের শিকার সমান ৩টি করে উইকেট। তাতে ওপেনার আংক্রিশ রঘুভানশির ম্যাচ সর্বোচ্চ ৮৮ রানের পরও হার নিয়েই মাঠ ছাড়তে হয়েছে ভারতের অনূর্ধ্ব-১৯ ‘এ’ দলকে।

সংক্ষিপ্ত স্কোর : বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দল : ৪৭.২ ওভারে ২৩০/১০ (মাহফিজুল ৫৬, নওরোজ ৬২, ঋষিথ ৫/৫৩)। ভারত অনূর্ধ্ব-১৯ ‘এ’ দল : ৪৯.৪ ওভারে ২২৪/১০ (আংক্রিশ ৮৮, আরিয়ান ৩৯, তানজিম ৩/২৯, মেহরব ৩/৩৬, রিপন ২/৫৩)।

ফল : বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ জয়ী ৬ রানে।



সাতদিনের সেরা