kalerkantho

সোমবার । ৩ মাঘ ১৪২৮। ১৭ জানুয়ারি ২০২২। ১৩ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

স্বাধীনতা কাপ ফুটবল

জয়ে শুরু ‘নতুন’ আবাহনীর

নতুন দলে কলিনদ্রেসের প্রথম ম্যাচ একদম খারাপ হয়নি। ৩৮ মিনিটে দুর্দান্ত এক মুভে তিনি বুঝিয়ে দিয়েছেন পায়ের ঝলক এখনো হারিয়ে যায়নি। আবার ইনজুরি টাইমে মাঝমাঠ থেকে তাঁর দুর্দান্ত শট ক্রসবার কাঁপিয়ে দেয়।

৩০ নভেম্বর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ক্রীড়া প্রতিবেদক : নতুন মৌসুমে জয়ে শুরু করেছে ‘নতুন’ আবাহনী। স্বাধীনতা কাপে তারা ২-১ গোলে হারিয়েছে স্বাধীনতা ক্রীড়া সংঘকে।

মৌসুম শুরুর টুর্নামেন্টে তারা সাধারণত খুব গোছানো থাকে না। এবার হয়েছে অন্য রকম, চার বিদেশি ও দেশিদের নিয়ে তারা তৈরি শুরু থেকেই। তবে ব্রাজিলিয়ান ডিরিয়েলটনকে বাইরে রেখে আকাশি-নীলরা বেশ শক্তিশালী একাদশ নিয়েই মাঠে নামে এবং রাফায়েল আগুস্তোর নেতৃত্বে দাপটের সঙ্গে খেলে ম্যাচ জিতেছে। ম্যাচ নিয়ন্ত্রণ এবং দুর্দান্ত গোলে আবাহনীর নতুন অধিনায়কের অভিষেকটাও হয়েছে চমৎকার। গোলের শুরু অবশ্য স্থানীয় মেহেদি হাসান রয়েলের হেডে।

মাঠে স্বাধীনতা ক্রীড়া সংঘের ওই রকম আধিপত্য না থাকলেও ১০ মিনিটে সহজ সুযোগটা মিলেছে তাদেরই। আবাহনী রক্ষণের ভুলের সুযোগ নিয়ে উজবেক নদির বেগের বাড়ানো লং বলটি বসনিয়ান নেদো তুর্কোভিচ তুলে দিয়েছিলেন পোস্টে। দুর্ভাগ্য তাদের, বল পোস্টে প্রতিহত হলে তারা লিড নিতে পারেনি। এর পর থেকে আবাহনীর দাপট এবং ২৯ মিনিটে নুরুল নাঈম ফয়সালের ক্রসে মেহেদি হাসান রয়েলের হেড জালে পৌঁছে গেলে এগিয়ে যায় আবাহনী। মিনিট চারেক বাদে ড্যানিয়েল কলিনদ্রেসের কর্নার কিকে রাফায়েলের হেড যায় পোস্ট ঘেঁষে। এক মৌসুম বাদে আবাহনীর জার্সিতে এই বিশ্বকাপারের ফেরায় ঢাকার ফুটবলে তৈরি হয়েছে নতুন আকর্ষণ। তাঁর পুরনো দল বসুন্ধরা কিংস ও আবাহনীর দ্বৈরথেও যোগ হবে নতুন মাত্রা। জমে উঠবে ফুটবল মৌসুমে শিরোপা লড়াই।

নতুন দলে এই বিশ্বকাপারের প্রথম ম্যাচ একদম খারাপ হয়নি। ৩৮ মিনিটে দুর্দান্ত এক মুভে তিনি বুঝিয়ে দিয়েছেন পায়ের ঝলক এখনো হারিয়ে যায়নি। আবার ইনজুরি টাইমে মাঝমাঠ থেকে তাঁর দুর্দান্ত শট ক্রসবার কাঁপিয়ে দেয়। তবে সারা মাঠ দাপিয়ে খেলেছেন রাফায়েল আগুস্তো, তার স্মারক হয়ে থাকবে ৭৪ মিনিটে দুর্দান্ত গোলটি। প্রতিপক্ষের পা থেকে বলটা কেড়ে কয়েক কদম এগিয়ে ডান পায়ের নিখুঁত শটে দলকে এগিয়ে নেন ২-০ গোলে। ৮৮ মিনিটে সেটা আরো বড় হতে পারত, রাকিব এককভাবে বল নিয়ে এগিয়ে গিয়ে মারেন ওপর দিয়ে। ইনজুরি টাইমে স্বাধীনতা ক্রীড়া সংঘের নদির বেগ একটি গোল শোধ করেন।



সাতদিনের সেরা