kalerkantho

রবিবার । ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৮। ৫ ডিসেম্বর ২০২১। ২৯ রবিউস সানি ১৪৪৩

প্রিভিউ

আজ তাদের ঘুরে দাঁড়ানোর লড়াই

২৬ অক্টোবর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



আজ তাদের ঘুরে দাঁড়ানোর লড়াই

১১৮ ও ৫৫। ৫৫ রানে অল আউট হওয়ায় হতাশাই বেশি হওয়ার কথা। ১১৮-তেও তো ফল একই। অর্থাৎ ব্যাটিংয়ে এমন স্কোর দিয়ে ম্যাচ জেতার আশা করা যায় না, বিশ্বকাপে তো নয়ই। ওয়েস্ট ইন্ডিজ, দক্ষিণ আফ্রিকারও মুঠো গলে ম্যাচটি বেরিয়ে গেছে আগেভাগেই। প্রোটিয়ারা বল হাতে পরে অস্ট্রেলিয়াকে কাঁপালে কী হবে, সেই লড়াইও বিফলে গেছে।

বিশ্বকাপে আজ তাই নতুন করে শুরু করতে হবে দুই দলকেই। ব্যাটে-বলে জয়ের আশা যেন থাকে। ৫৫ রানে অল আউট হওয়ার পর ক্যারিবীয়দের নিজেদের ফেরানোটা কঠিন। কোচ ফিল সিমন্স এই ব্যর্থতার একটা ব্যাখ্যা পেয়েছেন। তাতে কিয়েরন পোলার্ড, আন্দ্রে রাসেলরা নিজেদের সতর্ক করলে হয়, সিমন্সের মতে, ‘আমাদের খেলোয়াড়দের আক্রমণাত্মক মানসিকতায় সমস্যা নেই। বড় শট খেলতে চাওয়াও ঠিক আছে। কিন্তু বল বাছাইটা ঠিক করতে হবে। শট সিলেকশনই সেদিন আমাদের ডুবিয়েছে।’ আরব আমিরাতের কিছুটা ধীরগতির পিচে বুঝেশুনে খেলার বিকল্প নেই। পরশু বিরাট কোহলি বা বাবর আজমরাও তা দেখিয়েছেন। সিমন্স ইংলিশ বোলারদের কৃতিত্ব দিতে চাননি একেবারেই।

প্রোটিয়াদের বিপক্ষে অস্ট্রেলিয়ানরা সেদিন নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে বিপদ বাড়িয়েছিলেন বলে অবশ্য ম্যাচ শেষে স্বীকার করে নিয়েছিলেন টেম্বা বাভুমা। কিন্তু নিজেরাও পরিকল্পনা অনুযায়ী ব্যাট করতে পারেননি, সেটাও মেনেছেন। বোলাররা ম্যাচটাকে শেষ ওভার পর্যন্ত টেনে নিয়ে গিয়েছিলেন, বোলিং নিয়ে তাই অন্তত ভাবনা হওয়ার কথা নয় প্রোটিয়াদের। আজ তাই ব্যাটারদেরই ঘুরে দাঁড়ানোর পালা। যেমনটা ক্যারিবীয়দেরও।

ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে ৩-২ ব্যবধানে জেতা সিরিজে তাবরেজ শামসি দারুণ উজ্জ্বল ছিলেন। টি-টোয়েন্টির বর্তমান নাম্বার ওয়ান বোলার ক্যারিবীয়দের সেই ফেরার কাজটা কঠিন করে তুলবেন কোনো সন্দেহ নেই। আদিল রশিদ, মঈন আলীতে আজ অনুপ্রাণিতও থাকবেন শামসি। আবার ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সামান্য সুযোগেই ঝলক দেখানো আকিল হোসেনরাও ব্যাটিংয়ে প্রোটিয়াদের অস্বস্তিটা আরো দীর্ঘস্থায়ী করতে পারলেই খুশি থাকবেন। শেষ পর্যন্ত স্বরূপে ফিরতে পারবে কারা, সেটিই দেখার। ক্রিকইনফো

 



সাতদিনের সেরা