kalerkantho

মঙ্গলবার । ৩ কার্তিক ১৪২৮। ১৯ অক্টোবর ২০২১। ১১ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

নীরবতা ভাঙল হকিতে

২০ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নীরবতা ভাঙল হকিতে

ক্রীড়া প্রতিবেদক : তিন বছর পর হকিতে আবার দলবদলের আমেজ। কাল আবাহনীর সমর্থকরা স্লোগান দিতে দিতে মাঠে ঢুকল। পেছনে মিমো, নিলয়, রোমান, শিতুলরা। সবার গায়ে আকাশি-নীল জার্সি। তিন বছর পর দেশের শীর্ষ সারির ক্লাবের জার্সি আবার দেখা গেল হকি মাঠে। মাঠে ফিরবেন মোহামেডানের সাদা-কালোর জার্সিধারীরাও। সর্বশেষ লিগ হয়েছে ২০১৮ সালে। লম্বা বিরতির পর সেই লিগের উত্তেজনা আবার ছুঁয়েছে মওলানা ভাসানী হকি স্টেডিয়ামে।

কাল দলবদলের প্রথম দিন আবাহনীই শুধু আনুষ্ঠানিকতা সেরেছে। জাতীয় দলে খেলা ১০ খেলোয়াড়কে নিয়ে বরাবরের মতো চ্যাম্পিয়ন দলই গড়েছে আকাশি-নীলরা। দলে জাতীয় দলের খেলোয়াড়রা হলেন গোলরক্ষক আবু সাইদ নিপ্পন, ডিফেন্ডার খোরশেদুর রহমান, ফরহাদ আহমেদ শিতুল, রেজাউল করিম, মিডফিল্ডার রুম্মন সরকার, নাইম উদ্দিন, ফরোয়ার্ড হাসান জুবায়ের নিলয়, আরশাদ হোসেন, মাহবুব হোসেন ও পুস্কর খিসা মিমো। এর বাইরে আছেন নুরুজ্জামান নয়ন, বেলাল হোসেন, শফিউল আলম, শহিদুল্লা খোকন, আবেদ উদ্দিন, মোহাম্মদ মহসীন, আফসার উদ্দিন ও মেহরাব হোসেন। এই দল নিয়ে আত্মবিশ্বাসী আবাহনীর উপদেষ্টা কোচ মাহবুব হারুন, ‘আমরা পজিশন অনুযায়ী সেরা খেলোয়াড়দেরই নিয়েছি। আমাদের পছন্দের মধ্যে একজনকেই শুধু পাইনি। বিদেশি নিয়ে সেই জায়গাটা আমরা পূরণ করব।’ সেই একজন জাতীয় যুব দলের অধিনায়ক ও ডিফেন্ডার আশরাফুল ইসলাম। মোহামেডানে যোগ দিয়েছেন তিনি। রাসেল মাহমুদ জিমি, মাইনুল ইসলাম, সারোয়ার হোসেন, আশরাফুলদের নিয়ে মোহামেডানও এবার শিরোপা ধরে রাখার লড়াইয়েই নামবে। মেরিনার্সের সঙ্গে দুজন খেলোয়াড় নিয়ে গোলমালের জের মামলা পর্যন্ত গড়িয়েছে। কাল মেরিনার্সের বেশ কয়েকজন কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ক্লাবে ভাঙচুরের অভিযোগ এনে থানায় মামলা করা হয়েছে মোহামেডানের পক্ষ থেকে।



সাতদিনের সেরা