kalerkantho

বুধবার । ১৪ আশ্বিন ১৪২৮। ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১। ২১ সফর ১৪৪৩

অলিম্পিক কর্নার

থম্পসনের ডাবল ‘ডাবল’

থম্পসনের ডাবল ‘ডাবল’   

৪ আগস্ট, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



থম্পসনের ডাবল ‘ডাবল’

১০০ মিটারের পর ২০০ মিটার স্প্রিন্ট জিতলেন জ্যামাইকান এলেইন থম্পসন হেরাহ

উসাইন বোল্টের কল্যাণে ট্রিপল ‘ট্রিপল’-এর সঙ্গে পরিচিত হয়ে গেছে সবাই। টানা তিন অলিম্পিকে ১০০, ২০০ ও রিলের সোনা জিতে অমরত্ব পাওয়া কীর্তি গড়েছিলেন এই জ্যামাইকান। সতীর্থের ডোপ পাপে পরে অবশ্য একটি রিলের সোনা হারাতে হয়েছে তাঁকে। তবে মেয়েদের ট্র্যাকে ট্রিপল ট্রিপল তো দূরের কথা, ডাবল ডাবলই ছিল না এত দিন কারো। বোল্টেরই স্বদেশি এলেইন থম্পসন হেরাহ সেই লক্ষ্য নিয়েই এবার এসেছিলেন টোকিওতে। ফিরছেন কিন্তু সেই ইতিহাস গড়েই।

কাল টোকিওর অলিম্পিক স্টেডিয়ামে ২০০ মিটার স্প্রিন্ট জিতে পূর্ণ করেছেন তিনি এ আসরের ডাবল। ১০০ মিটার জিতেছিলেন যে আগেই। আর রিও অলিম্পিকের ‘ডাবল’ মিলে তাঁর এখন সেই ডাবল ‘ডাবল’-এর অবিস্মরণীয় কীর্তি। মেয়েদের ট্র্যাকে যা এর আগে করে দেখাতে পারেননি আর কেউ। ট্র্যাক অ্যান্ড ফিল্ডে একক চারটি সোনা জেতার রেকর্ডও তো নেই আর কোনো নারী অ্যাথলেটের। কাল ২১.৫৩ সেকেন্ডে ফিনিশিং লাইন ছুঁয়ে তাই অর্জনের নতুন চূড়া ছুঁয়েছেন ২৯ বছর বয়সী এই স্প্রিন্টার। ২০০ মিটারে ইতিহাসে দ্বিতীয় সেরা টাইমিং এটি। ১৯৮৮ সালে সিউল অলিম্পিকে যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরেন্স গ্রিফিথ জয়নারের গড়া ২১.৩৪ এখনো রেকর্ড। ১০০ মিটারেও গ্রিফিথের পর দ্বিতীয় সেরা টাইমিং থম্পসনের, গড়েছেন এ আসরেই। ১০০ মিটারে রুপা জেতা শ্যালি অ্যান ফ্রেজার ২০০ মিটারে হয়েছেন চতুর্থ। প্রায় পুরো সময়ে তিন নম্বরে থেকে দৌড়ালেও শেষ মুহূর্তে তাঁকে এবং যুক্তরাষ্ট্রের গ্যাবি থমাসকে (২১.৮৭) পেছনে ফেলে রুপা জিতেছেন নামিবিয়ার ক্রিস্টিন এমবোমা (২১.৮১)।

থম্পসন শুরুটা করেছেন দারুণ, ১০০ মিটার শেষে ব্যবধান বাড়িয়ে নিয়েছেন অনেকটা। সেই ব্যবধান ধরে রেখে অনেকটা অনায়াসেই সেরার মুকুট পরেছেন তিনি। রিওতে ২১.৭৮ সেকেন্ডে দৌড়েছিলেন, কাল সেটাই নামিয়ে আনেন ২১.৫৩ সেকেন্ডে। ১০০ মিটারেও রিওর টাইমিং (১০.৭১) ছাড়িয়ে যান টোকিওতে। স্প্রিন্টের ইতিহাসেই তাই এখন বড় নাম থম্পসন। এএফপি