kalerkantho

সোমবার  । ১২ আশ্বিন ১৪২৮। ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১। ১৯ সফর ১৪৪৩

পুলের রাজা ড্রেসেল, রানি ম্যাককিওন

২ আগস্ট, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



পুলের রাজা ড্রেসেল, রানি ম্যাককিওন

তুলনা চলে আসছিল মাইকেল ফেলপস আর মার্ক স্পিেজর সঙ্গে। কেলেব ড্রেসেল অবশ্য পরিচিতি চেয়েছিলেন নিজের। পেয়েছেনও সেটা। টোকিওতে দুটি বিশ্বরেকর্ডসহ পাঁচটি সোনা জিতে পুলের নতুন রাজা এখন তিনি। আর নতুন রানি নিঃসন্দেহে এমা ম্যাককিওন। চারটি সোনাসহ অস্ট্রেলিয়ার এই তারকা জিতেছেন সাত পদক। অলিম্পিক ইতিহাসে এক আসরে সাত পদক নেই কোনো নারী সাঁতারুর। এর আগে ১৯৫২ অলিম্পিকে সাতটি পদক জিতেছিলেন শুধু সোভিয়েত ইউনিয়নের জিমন্যাস্ট মারিয়া গোরখভসকায়া।

১০০ মিটার বাটারফ্লাইয়ে এবার নিজেরই বিশ্বরেকর্ড ভেঙেছেন ড্রেসেল। গতকাল ৫০ মিটার ফ্রিস্টাইলে সোনা জিতেছেন নতুন অলিম্পিক রেকর্ড গড়ে। ২১.০৭ সেকেন্ড সময় নিয়ে পেছনে ফেলেছেন ২০০৮ অলিম্পিকে সেজার সিওয়েলোর ২১.৩০ সেকেন্ডের টাইমিংয়ের কীর্তি। এক ঘণ্টা না যেতেই ৪ গুণিতক ১০০ মিটার মিডলে রিলেতে বিশ্বরেকর্ড গড়ে টোকিও অভিযান শেষ করেছেন ড্রেসেল। রায়ান মারফি, মাইকেল অ্যান্ড্রু ও জ্যাক অ্যাপেলের সঙ্গে ড্রেসেলের নতুন বিশ্বরেকর্ড ৩ মিনিট ২৬.৭৮ সেকেন্ড। পঞ্চম সাঁতারু হিসেবে অলিম্পিকের এক আসরে পাঁচ বা বেশি সোনা জয়ের রেকর্ড এখন ড্রেসেলের।

অস্ট্রেলিয়ান সাঁতারু এমা ম্যাককিওন অবশ্য কেড়ে নিয়েছেন কিংবদন্তি ইয়ান থর্প ও লেইসেল জোন্সের রেকর্ড। দুজনেরই অলিম্পিক পদক ৯টি। টোকিওতে সাতটি পদক জেতায় ম্যাককিওনের পদক এখন ১১টি। ৫০ ও ১০০ মিটারে নতুন অলিম্পিক রেকর্ড গড়ে সোনা জিতেছেন ম্যাককিওন। এবার সাঁতারে অস্ট্রেলিয়া জিতেছে সর্বোচ্চ ৯টি সোনা। ১১টি সোনাসহ ৩০টি পদক নিয়ে শীর্ষে যুক্তরাষ্ট্র।

এদিকে ছেলেদের হাই জাম্পে সমান ২.৩৭ মিটার লাফিয়েছিলেন কাতারের মুতাজ ইসা বারসিম ও ইতালির জিয়ানমারকো তামবেরি। অলিম্পিকের স্পিরিট মেনে সোনা ভাগাভাগি করে নেন দুজনই। উদযাপনটা করেন একে অন্যকে জড়িয়ে কান্নায় ভেঙে পড়ে। মেয়েদের ট্রিপল জাম্পে বিশ্বরেকর্ড ১৫.৬৭ মিটার লাফিয়ে সোনা জিতেছেন ভেনিজুয়েলার ইউলিমার রোহাস। ছেলেদের হকিতে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন আর্জেন্টিনাকে ৩-১ গোলে হারিয়ে জার্মানি এবং যুক্তরাজ্যকে ৩-১ গোলে হারিয়ে ৪৯ বছর পর শেষ চারে ভারত। গলফে ১০০ বছরেরও বেশি সময় পর সোনা যুক্তরাষ্ট্রের জ্যান্ডার শাফোলের। বিবিসি