kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৮ আশ্বিন ১৪২৮। ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১। ১৫ সফর ১৪৪৩

দুই সাঁতারুর সেরা টাইমিং টোকিওতে

৩১ জুলাই, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



দুই সাঁতারুর সেরা টাইমিং টোকিওতে

ক্রীড়া প্রতিবেদক : দুই সাঁতারু বরাবরের মতোই অলিম্পিক হিটে বাদ। তবে এবার নিজেদের সেরা টাইমিং করে বিদায় নিয়েছেন আরিফুল ইসলাম ও জুনাইনা আহমেদ। টোকিও অলিম্পিকে যাওয়ার আগে দুজনই ট্রেনিং করেছেন দেশের বাইরে। আরিফুল বৃত্তি নিয়ে ফ্রান্সে গিয়েছিলেন উন্নত ট্রেনিংয়ের জন্য। সেখানে বছর দুয়েক কাটিয়ে ওয়াইল্ড কার্ডে টোকিও অলিম্পিকে অংশ নিয়ে গতকাল ৫০ মিটার ফ্রিস্টাইলে ২৪.৮১ সেকেন্ড সময় নিয়েছেন। এর আগে তাঁর সেরা টাইমিং ছিল ২৪.৯২ সেকেন্ড, যা ২০১৯ সালে দক্ষিণ কোরিয়ায় ওয়ার্ল্ড চ্যাম্পিয়নশিপে করা। গতকাল টোকিওর অ্যাকুয়াটিকস সেন্টারে ৪ নম্বর হিটে আট প্রতিযোগীর মধ্যে তিনি তৃতীয় হয়েছেন। আর ৭৩ জন সাঁতারুর মধ্যে আরিফুল হয়েছেন ৫১তম।

এর চেয়ে বেশি প্রত্যাশাও ছিল না এই সাঁতারুর কাছে। এর আগে অলিম্পিক বৃত্তি নিয়ে ফ্রান্সে ট্রেনিংয়ের সুফল দেখা গিয়েছিল এসএ গেমস সাঁতারে। সেখানে রুপাজয়ী এই সাঁতারুকে দিয়ে যদি আগামী এসএ গেমসে স্বর্ণপদকের শূন্যতা পূরণ করা যায়, সেটাই হবে বাংলাদেশ সাঁতারের বড় প্রাপ্তি।

জুনাইনা আহমদের সাঁতার শিক্ষাও দেশের বাইরে, কোনো বড় ইভেন্ট হলে ইংল্যান্ডপ্রবাসী এই সাঁতারু লাল-সবুজের পতাকাতলে হাজির হন। তিনি ৫০ মিটার ফ্রিস্টাইলে ২৯.৭৮ সেকেন্ড সময় নিয়ে শেষ করেছেন। ৩ নম্বর হিটে ১ নম্বর লেনে সাঁতরানো জুনাইনা ৮১ জনের মধ্যে ৬৮তম হয়েছেন। আগের সেরা টাইমিং ২০১৯ সালের ওয়ার্ল্ড চ্যাম্পিয়নশিপে, ৩০.৯৬ সেকেন্ড। এর চেয়ে অনেক ভালো করেছেন তিনি টোকিওতে। ২০১৭ সালে ঢাকায় তাঁর শুরু বয়সভিত্তিক সাঁতার দিয়ে। এরপর পুলে ঝড় তোলেন ২০১৯ সালে জাতীয় সাঁতারে ৯টি সোনা জিতে। রীতিমতো চমকে দেওয়ার মতো পারফরম্যান্সে! এর মধ্যে আটটিই ছিল রেকর্ড! এভাবে দেশের সাঁতারে সম্ভাবনাময়ী হয়ে ওঠা ইংল্যান্ডপ্রবাসী এই সাঁতারু অলিম্পিকে গিয়ে নিজের টাইমিংয়ে উন্নতির ছাপ রাখেন। স্বাভাবিকভাবে তাঁকে ঘিরেই থাকবে এসএ গেমসের প্রত্যাশা।      

সাঁতার, আর্চারি, শ্যুটিংয়ের পর এবার ট্র্যাক অ্যান্ড ফিল্ডে জহির রায়হানের ইভেন্ট। আগামী ১ আগস্ট শুরু ট্র্যাক অ্যান্ড ফিল্ডে এই স্প্রিন্টারের ইভেন্ট হলেই বাংলাদেশের টোকিও অলিম্পিকের ইতি।



সাতদিনের সেরা