kalerkantho

মঙ্গলবার । ৬ আশ্বিন ১৪২৮। ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১। ১৩ সফর ১৪৪৩

টোকিও অলিম্পিক

আর্চারির তিন ইভেন্টে চমৎকার শুরু

২৪ জুলাই, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



আর্চারির তিন ইভেন্টে চমৎকার শুরু

ক্রীড়া প্রতিবেদক : অলিম্পিকের স্বপ্নযাত্রায় চমৎকার শুরু করেছেন দেশের দুই সেরা আর্চার। রিকার্ভ এককের র্যাংকিং রাউন্ডে রোমান সানা ৬৪ জনের মধ্যে সপ্তদশ আর দিয়া সিদ্দিকী ৩৬তম হয়ে নকআউট রাউন্ডে পৌঁছেছেন। তবে বড় সুখবরটা হলো, দুজনের এককের স্কোর মিলিয়ে মিশ্র দ্বৈতেও শেষ দল হিসাবে টিকে গেছে বাংলাদেশের এই জুটি। অর্থাৎ আর্চারির তিন ইভেন্টেই লাল-সবুজের লড়াই জারি আছে।

টোকিও অলিম্পিকে বড় প্রত্যাশার জায়গায় রোমান সানা। ২০১৯ সালে নেদারল্যান্ডসে বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপে ব্রোঞ্জজয়ী এই তারকা গতকাল ইউমেনোশিমা ফিল্ডে র্যাংকিং রাউন্ডে ১৭তম হয়েছেন ৬৬২ স্কোর গড়ে। পুরুষ রিকার্ভ এককের ৭২ শটের এই রাউন্ডে নিজের সেরা স্কোর ৬৮৬ (এসএ গেমসে) ছুঁতে না পারলেও তিনি চলতি মৌসুমে সেরা স্কোর গড়েছেন টোকিওতে। আগামী ২৭ জুলাই নক আউটে প্রথম রাউন্ডে তিনি মুখোমুখি হবেন র্যাংকিং রাউন্ডের ৪৮তম আর্চার ইংলিশ টম হলের।

তবে রিকার্ভ মহিলা এককে দিয়া সিদ্দিকী র্যাংকিং রাউন্ডে নিজের সেরা স্কোর গড়েছেন টোকিও অলিম্পিকে! ৬৩৫ স্কোর নিয়ে তিনি ৬৪ জনের মধ্যে হয়েছেন ৩৬তম। এলিমিনেশনের প্রথম রাউন্ডে তিনি আগামী ২৯ তারিখ লড়বেন ২৯তম হওয়া বেলারুশের কারিনা দিওমিনিস্কায়ার বিপক্ষে।

দুই আর্চারের সম্মিলিত স্কোর দাঁড়ায় ১২৯৭, যা দিয়ে বাংলাদেশের এই পদকজয়ী জুটি কোনো রকমে টিকে গেছেন অলিম্পিকের রিকার্ভ মিশ্র দ্বৈতে। অংশ নেওয়া ২৯ দলের মধ্যে ১৬ দল উত্তীর্ণ হয়েছে প্রি-কোয়ার্টার ফাইনালে। সেখানে কানাডা, স্পেন, মালয়েশিয়ার মতো শক্তিশালী দলকে বিদায় করে বাংলাদেশের এই জুটি প্রি-কোয়ার্টারে জায়গা করে নিয়েছেন শেষ দল হিসেবে। অলিম্পিকের মঞ্চে আজ হবে তাঁদের কঠিন পরীক্ষা র্যাংকিং রাউন্ডের শীর্ষ দল কোরিয়ার দেওক জি কিম ও স্যান আনের বিপক্ষে।

সুতরাং বাংলাদেশের কোয়ার্টার ফাইনালে পৌঁছানোটা হবে খুব কঠিন। সহজ-কঠিনের বিবেচনা পাশে সরিয়ে প্রথমে কোচ মার্টিন ফ্রেডরিখ তাঁর দুই আর্চারকে ধন্যবাদ দিতে চান। টোকিও থেকে ফোনে বাংলাদেশের এই সফল জার্মান কোচ দুই আর্চারের প্রশংসায় পঞ্চমুখ, ‘এটা মোটেও সহজ লড়াই ছিল না, অনেক ভালো ও শক্তিশালী দল ছিটকে গেছে। সেখানে দিয়া অনভিজ্ঞ হয়েও অলিম্পিকে এসে নিজের সেরা স্কোর করেছে, তার পারফরম্যান্সের জন্য হাততালি দিতে হবে। রোমানের স্কোর আরেকটু ভালো হতে পারত, মাঝে একটুখানি এলোমেলো হওয়ায় স্কোর কমে গেছে। এর পরও বলতে হবে, তারা দুজন অলিম্পিকে চমৎকার শুরু করেছে।’

প্রি-কোয়ার্টার ফাইনালে তাঁদের লড়তে হবে বিশ্বের এক নম্বর দলের সঙ্গে! ‘কোরিয়া বিশ্বের সেরা দল, এ ব্যাপারে কোনো দ্বিমত নেই। তাই বলে তাদের হারানো যাবে না, এমন নয়। তারাও মাঝেমধ্যে হারে’—দুই আর্চারকে উপভোগের মন্ত্র দিচ্ছেন মার্টিন। সেরা দলও মাঝেমধ্যে হারে যদি দিনটা তাদের না হয়। সেরকম এক দিনের প্রত্যাশায় আছে বাংলাদেশ দল।



সাতদিনের সেরা