kalerkantho

শনিবার । ১৬ শ্রাবণ ১৪২৮। ৩১ জুলাই ২০২১। ২০ জিলহজ ১৪৪২

বিধ্বংসী জার্মানি এখন আত্মবিশ্বাসী

২১ জুন, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বিধ্বংসী জার্মানি এখন আত্মবিশ্বাসী

হারার আগে যে কখনো বিকল হয় না জার্মানযন্ত্র! বর্তমান ইউরো চ্যাম্পিয়ন পর্তুগালকে ৪-২ গোলে গুঁড়িয়ে সেটা আরো একবার দেখাল জোয়াকিম ল্যোভের দল। জার্মান তারকা টমাস ম্যুলার এই জয়ে ফিরে পেয়েছেন হারানো আত্মবিশ্বাস, ‘আমাদের অহংকারী হলে চলবে না। তবে নিজেদের ওপর বিশ্বাস ধরে রাখতে হবে। দুর্দান্ত এই জয়ে উচ্ছ্বসিত সবাই।’

জার্মানির জয়ের নায়ক রবিন গোসেনস এক গোল করেছেন, একটির অ্যাসিস্ট করেছেন, তাঁর পাস বিপদমুক্ত করতে গিয়ে আত্মঘাতী গোল হয়েছে আরেকটি। পর্তুগিজ কিংবদন্তি ক্রিস্তিয়ানো রোনালদোর সঙ্গে জার্সি বদল নিয়ে একটা গল্পও আছে এই লেফট উইঙ্গারের। ২০১৯ কোপা ইতালিয়ার ফাইনাল শেষে জুভেন্টাসের রোনালদোর সঙ্গে জার্সি বদল করতে চেয়েছিলেন আতালান্তার হয়ে খেলা এই জার্মান। কিন্তু ফিরেই তাকাননি রোনালদো। এ নিয়ে লজ্জা পাওয়ার কথাও লিখেছেন নিজের আত্মজীবনীতে। এবার ম্যাচসেরা হওয়া গোসেনস অবশ্য চাননি রোনালদোর জার্সি, ‘রোনালদোর কাছে জার্সি চাইনি এবার। পর্তুগালের বিপক্ষে দারুণ জয়টা উপভোগ করছিলাম।’

১৫ মিনিটে প্রতিআক্রমণ থেকে রোনালদোর গোলে এগিয়ে গিয়েছিল পর্তুগালই। ইউরো ও বিশ্বকাপ মিলিয়ে রোনালদোর গোল এখন ১৯টি, যা ইউরোপিয়ান ফুটবলারদের মধ্যে মিরোস্লাভ ক্লোসার সঙ্গে যৌথ সর্বোচ্চ। ৩৫ মিনিটে গোসেনসের পাস বিপদমুক্ত করতে গিয়ে নিজেদের জালে জড়ান রুবেন দিয়াস। চার মিনিট বাদে রাফায়েল গুয়েরেরো করেন আরেকটি আত্মঘাতী গোল! ৫১ মিনিটে কাই হাভার্টজ ও ৬০ মিনিটে অপর গোলটি গোসেনসের। ৬৭ মিনিটে দিয়োগো জোতা এক গোল ফেরালেও যথেষ্ট ছিল না সেটা। বিধ্বস্ত হওয়ার দায়টা নিজের ওপরই নিলেন পর্তুগিজ কোচ ফার্নান্দো সান্তোস, ‘আমি চেয়েছিলাম ফুলব্যাকরা একটু ওপরে উঠে আক্রমণে সাহায্য করুক। তাতে মাঝমাঠে একজন খেলোয়াড়ের অভাব ফুটে উঠেছিল আমাদের। দায়টা আমার।’ এএফপি