kalerkantho

সোমবার । ১৮ শ্রাবণ ১৪২৮। ২ আগস্ট ২০২১। ২২ জিলহজ ১৪৪২

সিসিডিএম প্রধানকে রূপগঞ্জের চিঠি

‘বিশেষ’ ম্যাচে ‘নিরপেক্ষ’ আম্পায়ার দাবি

আজ থেকে মিরপুর ও বিকেএসপিতে একযোগে শুরু হতে যাওয়া সুপার এবং রেলিগেশন লিগের আগের দিন সেই একই দল ভেন্যু বদলের পাশাপাশি ‘নিরপেক্ষ’ আম্পায়ার ও ম্যাচ রেফারির নিয়োগ চেয়ে চিঠি দিয়েছে ঢাকার লিগ পরিচালনা সংস্থা সিসিডিএম প্রধান বরাবর। তাও আবার তাদের আবেদন একটি ‘বিশেষ’ ম্যাচকে ঘিরেই।

১৯ জুন, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ৪ মিনিটে



‘বিশেষ’ ম্যাচে ‘নিরপেক্ষ’ আম্পায়ার দাবি

ক্রীড়া প্রতিবেদক : অভিযোগ শুনতে বসে ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের (ডিপিএল) আম্পায়ারিং নিয়ে উল্টো শুধু স্তুতিবাক্যই শুনেছেন বলে দাবি নাজমুল হাসানের। দুই দিনে ১২টি ক্লাবের কর্মকর্তা, ম্যানেজার ও অধিনায়কদের সঙ্গে কথা বলে প্রশ্নবিদ্ধ আম্পায়ারিংয়ের কোনো অভিযোগই পাননি বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) সভাপতি। কাজেই ধরে নেওয়া যায়, লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জ ক্লাবের তরফ থেকেও কোনো অভিযোগ ছিল না। কিন্তু আজ থেকে মিরপুর ও বিকেএসপিতে একযোগে শুরু হতে যাওয়া সুপার এবং রেলিগেশন লিগের আগের দিন সেই একই দল ভেন্যু বদলের পাশাপাশি ‘নিরপেক্ষ’ আম্পায়ার ও ম্যাচ রেফারির নিয়োগ চেয়ে চিঠি দিয়েছে ঢাকার লিগ পরিচালনা সংস্থা সিসিডিএম প্রধান বরাবর। তাও আবার তাদের আবেদন একটি ‘বিশেষ’ ম্যাচকে ঘিরেই।

২১ জুন বিকেএসপিতে নির্ধারিত যে ম্যাচে তাদের প্রতিপক্ষ ওল্ড ডিওএইচএস। প্রথম পর্বে ১১ ম্যাচ খেলে মাত্র ১ পয়েন্ট পাওয়া রেলিগেশন লিগের তৃতীয় দল পারটেক্স স্পোর্টিং ক্লাবের ইতিমধ্যে প্রথম বিভাগে অবনমন নিশ্চিত হয়ে গেছে। অবনমন এড়ানোর লড়াই তাই যথাক্রমে ৭ ও ৬ পয়েন্ট করে পাওয়া রূপগঞ্জ এবং ডিওএইচএসের মধ্যেই। পারটেক্সের সঙ্গে দ্বিতীয় কোন দল নেমে যাবে, এই দুই দলের লড়াইয়েই তা নির্ধারিত হওয়ার কথা। সেই ম্যাচ সামনে রেখে রূপগঞ্জের শঙ্কা যে অমূলক নয়, তা ঘরোয়া ক্রিকেটসংশ্লিষ্ট সবারই জানা। যদিও চিঠিতে এর আগের আসরের রানার্স আপ রূপগঞ্জ সেরকম কিছুর উল্লেখ করেনি। তাদের ‘বিনীত অনুরোধ’টি এ রকম যে, ২১ জুন মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে সুপার লিগের কোনো খেলা নেই। তাই সেদিন যেন বিকেএসপি থেকে ম্যাচটি সরিয়ে মিরপুরে আনা হয়। অর্থাৎ ম্যাচটি লোকচক্ষুর অন্তরালে খেলতে চায় না তারা। ম্যাচটি ‘বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ বিধায়’ সিসিডিএম প্রধান বরাবর রূপগঞ্জের আরজি, ‘তৃতীয় আম্পায়ারের সাহায্যে রিভিউ সুবিধাসহ আইসিসি প্যানেলভুক্ত আম্পায়ার ও ম্যাচ রেফারি নিয়োগ করে খেলা পরিচালনা করার জন্য বিশেষভাবে অনুরোধ করছি।’

এই অনুরোধে মিশে থাকা ‘আতঙ্ক’ অবশ্য যথাসম্ভব আড়ালই করার চেষ্টা করেছে তারা। গতবার রান রেটে রানার্স আপ হওয়া দলের এবার অবনমন এড়ানোর লড়াইয়ে যে নামতে হলো, সে জন্য খেলোয়াড়দের ব্যর্থতাকেই দায়ী করা হয়েছে চিঠিতে। যদিও ২১ জুন তাদের প্রতিপক্ষ ডিওএইচএসকে নিয়ে চলতি লিগে নিয়মিতই ফিসফিসানি শোনা গেছে। প্রথম পর্বে আবাহনীকে সাধ্যের মধ্যে আটকে রেখেও এই দলটির উইকেট অক্ষত রেখে হার প্রশ্নের জন্ম দিয়েছিল। দুই ম্যাচ পর সেই বিকেএসপিতেই একই দলের ব্যাটিং আরেকবার প্রশ্নবিদ্ধ হয়। আসন্ন নির্বাচনকে সামনে রেখে বিসিবির ক্ষমতার বলয়েই থাকা আরেক দল ব্রাদার্সের ১৩৯ রান তাড়ায় শেষ ২ ওভারে ৯ উইকেট হাতে রেখে জেতার জন্য ১৩ রান দরকার যখন, তখনো ডিওএইচএসের ব্যাটিং সন্দেহ জাগিয়েছে। ২ রানের হারের চেয়েও বিস্ময়কর ছিল অফ স্টাম্পের বাইরের শেষ বলটি ওয়াইড ভেবে তাদের ব্যাটসম্যান প্রীতম সরকারের ছেড়ে দেওয়া। দুটো ম্যাচ বিস্ময় জাগিয়ে হারা এই ওল্ড ডিওএইচএস দলটিও যে বিসিবির ক্ষমতাসীনদের আনুকূল্যে পরিচালিত হয়, তাও ক্রিকেটাঙ্গনের কারো অজানা নয়। তাই রূপগঞ্জ শিবিরে ‘অন্যভাবে মার’ খাওয়ার ভয় ছড়িয়ে গিয়ে থাকলেও তা বিচিত্র নয়। বিকেএসপিতে ম্যাচসংশ্লিষ্ট লোক ছাড়া কারো প্রবেশাধিকার না থাকায় রূপগঞ্জ মিরপুরে সবার চোখের সামনেই খেলতে চায়। যাতে অনিয়ম কিছু হলেও তা চোখে পড়ে। রূপগঞ্জের চিঠি পাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে সিসিডিএম সদস্যসচিব আলী হোসেন বলেছেন, ‘চিঠি পেয়েছি। তবে আজ তো শুক্রবার। শনিবার এটি নিয়ে আলোচনা হবে।’



সাতদিনের সেরা