kalerkantho

শনিবার । ৯ শ্রাবণ ১৪২৮। ২৪ জুলাই ২০২১। ১৩ জিলহজ ১৪৪২

সেরা আম্পায়ারদের নিয়েই জিতেছে আবাহনী

১৪ জুন, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



সেরা আম্পায়ারদের নিয়েই জিতেছে আবাহনী

ক্রীড়া প্রতিবেদক : আবাহনীর একটা অপবাদ ঘুচেছে গতকাল। পুরনো সেট নয়, গতকাল মিরপুরে দেশের শীর্ষ দুই আম্পায়ার নিয়েই নেমেছিল প্রাইম ব্যাংকের বিপক্ষে শিরোপা রেসে পাল্লা দেওয়ার লড়াইয়ে। সেই লড়াইয়ে জিতেছেও আবাহনী। তবে বৃষ্টি আইনে ৩০ রানের এই জয়ের পরও নেট রান রেটে পয়েন্ট টেবিলের দুইয়ে আবাহনী। ওদিকে নিষেধাজ্ঞার কারণে গতকালের ম্যাচ খেলতে পারেননি সাকিব আল হাসান। এর পরও ওল্ড ডিওএইচএসের বিপক্ষে সহজ জয় তুলে নিয়েছে মোহামেডান। শিরোপা দৌড়ে থাকা প্রাইম দোলেশ্বর প্রত্যাশিত জয় পেয়েছে পারটেক্সের বিপক্ষে। লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জকে বৃষ্টি আইনে ৭ রানে হারিয়েছে শেখ জামাল ধানমণ্ডি। খেলাঘরের বিপক্ষে ৫ উইকেটে জিতেছে গাজী গ্রুপ। শাইনপুকুরের বিপক্ষে ১ রানে জিতেছে ব্রাদার্স।

ঘরোয়া ক্রিকেটে আম্পায়ারিং বিতর্ক পুরনো। এই বিতর্কে নাম জড়িয়ে আছে নামি ক্লাব আবাহনীরও। এই বিতর্ক দাবানলের মতো ছড়িয়ে পড়ে গত শুক্রবার মোহামেডানের বিপক্ষে দলটির ম্যাচে। আম্পায়ারের সিদ্ধান্তে ক্ষোভ প্রকাশ করে সাকিব শাস্তি পেয়েছেন। তবে সেই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে জোর আলোচনা শুরু হয় পক্ষপাতদুষ্ট আম্পায়ারিং নিয়েও। বিশেষ করে আবাহনী ম্যাচে নির্দিষ্ট আম্পায়াররাই কেন ম্যাচ পরিচালনার দায়িত্ব পাচ্ছেন— প্রশ্ন ওঠে। সে কারণেই কিনা গতকাল দুই আন্তর্জাতিক আম্পায়ার শরফুদ্দৌলা ইবনে শহিদ ও মাসুদুর রহমান আবাহনী ম্যাচ পরিচালনা করেছেন। আর ম্যাচের প্রতিপক্ষ প্রাইম ব্যাংক—শিরোপা রেসে যে ম্যাচটি অতীব গুরুত্বপূর্ণ। বিনা বিতর্কে শেষ হয়েছে ম্যাচটি এবং আবাহনীই জিতেছে। মুনিম শাহরিয়ারের ৫০ বলে অপরাজিত ৯২ রানের বীরত্বে টসজয়ী আবাহনী ৩ উইকেটে ১৮৩ রান তুলেই কার্যত ম্যাচের লাগাম হাতে তুলে নেয়। জবাব দিতে নেমে অধিনায়ক তামিম ইকবালের (৪১ বলে ৫৫) ফিফটির পর মোহাম্মদ মিঠুনের ক্ষণিকের লড়াই ছাড়া প্রাইম ব্যাংক ইনিংসে বলার মতো কিছু নেই। শেষদিকে বৃষ্টিতে খেলা কিছুক্ষণ বন্ধ থাকায় নতুন টার্গেটও ধরাছোঁয়ার বাইরে ছিল প্রাইম ব্যাংকের। ৩০ রানের হারে শেষ হয় ম্যাচের আনুষ্ঠানিকতা। এই জয়ে দুই দলেরই পয়েন্ট সমান ১২ করে। নেট রান রেটের সূক্ষ্ম হিসাবে এখনো শীর্ষে প্রাইম ব্যাংক।

সাকিবের নিষেধাজ্ঞার কারণে বিকেএসপিতে মোহামেডানের ম্যাচকে ঘিরেও ছিল বাড়তি আকর্ষণ। তিন নম্বরে নামা ইরফান শুক্কুরের ৪২ বলে ৬৮ রানের ইনিংসে ৫ উইকেটে ১৫৪ রানের স্বস্তিদায়ক স্কোর গড়ে মোহামেডান। পয়েন্ট টেবিলের নিচের দিকে থাকা ডিওএইচএস বৃষ্টিবিঘ্নিত ম্যাচে বেশ কাছেও চলে গিয়েছিল। কিন্তু হেরেছে ৫ রানের ব্যবধানে। টানা দ্বিতীয় জয়ে চার নম্বরে উঠে এসেছে মোহামেডান। বিকেএসপিতে অনুষ্ঠিত আরেকটি ম্যাচে ৬ উইকেটে ১৩৭ রান তুলেছিল রূপগঞ্জ। সৈকত আলী (৪৩) ও অধিনায়ক নুরুল হাসানের (৪৪*) ব্যাটে শেখ জামাল ৪ উইকেটে ১২৭ রান তোলার পর বৃষ্টি নামে। এরপর আর খেলা শুরু হয়নি, ততক্ষণে অবশ্য বৃষ্টি আইনে ৭ রানে এগিয়ে শেখ জামাল। লিগে এটা জামালের পঞ্চম জয়।

পারটেক্সের ৭ উইকেটে ১৩৪ রানের জবাবে ফজলে মাহমুদের (৭১) ফিফটিতে ৫ উইকেটে জিতেছে প্রাইম দোলেশ্বর। বৃষ্টি হানা দিয়েছিল গাজী ও খেলাঘরের মধ্যকার ম্যাচেও। ৪৮ বলে অপরাজিত ৫৫ রান করা অধিনায়ক মাহমুদ উল্লাহর কাঁধে চড়ে ৫ উইকেটে জিতেছে গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্স। আর মিজানুর রহমানের (৭৯*) ব্যাটে শাইনপুকুরের বিপক্ষে ১ রানে জিতেছে ব্রাদার্স।