kalerkantho

রবিবার । ১১ আশ্বিন ১৪২৮। ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১। ১৮ সফর ১৪৪৩

‘নিখুঁত’ ম্যাচ খেলতে না পারার হতাশা

২৯ মে, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ক্রীড়া প্রতিবেদক : সিরিজ পকেটে ভরে ফেলার পর শেষ ম্যাচে একেবারে ‘নিখুঁত’ পারফরম্যান্সের লক্ষ্য স্থির করেছিল বাংলাদেশ। কিন্তু তৃতীয় ওয়ানডেতেই গড়বড়টা হলো সবচেয়ে বেশি। ক্যাচ পড়ল, এক কুশল পেরেরাকেই সেঞ্চুরি করার পথে জীবন দেওয়া হলো তিনবার। বোলিংয়েও প্রভাব পড়ল এর। এরপর রান তাড়ায় উধাও আগের দুই ম্যাচের ছন্দও।

তাই সিরিজ জেতার আনন্দও হারের হতাশায় বিলীন হলো। অধিনায়ক তামিম ইকবালের প্রতিক্রিয়াও তাই যেমন হওয়ার কথা, হলো তেমন, ‘গত ম্যাচের পর এবং এই ম্যাচের শুরুতে আমি একটি কথা বলেছিলাম। আমরা সিরিজ জিতেছি কিন্তু একবারও নিখুঁত ম্যাচ খেলিনি। আমরা এই সিরিজে আমাদের সম্ভাবনার পুরোটা দিয়ে খেলতে পারিনি। সিরিজ জেতার পরও তাই বলতে হচ্ছে, আমাদের কাজ করার মতো কিছু জায়গা রয়ে গেছে।’

শেষ ম্যাচে শ্রীলঙ্কাকে জয়ের পথে এগিয়ে দেওয়ায় সহায়ক ভূমিকা রাখার দায়ও নিজেদের কাঁধে নিতে দ্বিধা করলেন না বাংলাদেশের ওয়ানডে অধিনায়ক, ‘ওরা আক্রমণাত্মক মানসিকতা নিয়ে এই ম্যাচ খেলতে নেমেছিল। এবং আমরা সেটি করতে ওদের সাহায্যই করেছি। আমরা বেশি শর্ট বল করে ফেলেছি। আমাদের সামনে আসা সুযোগগুলোও নিতে পারিনি। গুরুত্বপূর্ণ সময়ে দুটো ক্যাচ ফেলেছি। আমাদের হয়তো আরা ৩০ রান কম তাড়া করতে হতো।’

২৩৭ রান করে সিরিজসেরা  মুশফিকুর রহিমের কণ্ঠেও জয় দিয়ে সিরিজ শেষ করতে না পারার হতাশা শোনা গেল, ‘গত কয়েক মাস আমরা নিজেদের সেরা ক্রিকেটটা খেলতে পারিনি। তবে সৌভাগ্যক্রমে প্রথম দুই ম্যাচে নিজেদের পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করতে পেরেছি। দুর্ভাগ্যবশত আমরা ভালোভাবে শেষ করতে পারলাম না।’



সাতদিনের সেরা