kalerkantho

শনিবার । ৫ আষাঢ় ১৪২৮। ১৯ জুন ২০২১। ৭ জিলকদ ১৪৪২

ব্যর্থতার সব দায় ডমিঙ্গোর নয়

ক্রীড়া প্রতিবেদক   

১০ মে, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



শ্রীলঙ্কা সফরে তাঁর পদ দলনেতার হলেও খালেদ মাহমুদ আসলে গিয়েছিলেন অনেক দায়িত্ব নিয়েই। এর একটি এটিও ছিল যে হেড কোচ রাসেল ডমিঙ্গোকে খুব কাছ থেকে দেখে দলে তাঁর ভূমিকা ও প্রভাব বিশ্লেষণ। একের পর এক ব্যর্থতায় এই প্রোটিয়া কোচের বিষয়ে চূড়ান্ত কোনো সিদ্ধান্তে যাওয়ার আগে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডও (বিসিবি) মাহমুদের মতামত জানবে নিশ্চিতভাবেই। আর শ্রীলঙ্কায় দুই টেস্টের সিরিজে ডমিঙ্গোর বিষয়ে স্বচ্ছ ধারণা হয়ে যাওয়ার কথা মাহমুদেরও। সেটি দক্ষিণ আফ্রিকান কোচের পক্ষে নাকি বিপক্ষে?

সে প্রশ্নের জবাবও গতকাল যথাসম্ভব দেওয়ার চেষ্টা করলেন বাংলাদেশ দলের সাবেক এই অধিনায়ক। মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে শ্রীলঙ্কা সিরিজ সামনে রেখে ঐচ্ছিক অনুশীলনের ফাঁকে সংবাদমাধ্যমকে বিসিবি পরিচালক মাহমুদ বলছিলেন, ‘উনি (ডমিঙ্গো) জেতার জন্যই মরিয়া। একজন কোচ জিততেই চান। তিনি চাইবেন যথাসম্ভব ভালো ফল এনে দিতে। তিনি চেষ্টাও করছেন, কিন্তু হয়তো তাঁর দুর্ভাগ্য বলেই হচ্ছে না। আমি বলব, ওনার অধীনে অনুশীলন খারাপ হচ্ছে না।’

যদিও মানছেন যে কিছু ভুল তবু হয়ে যাচ্ছে। সেটি পরিকল্পনায় যেমন হচ্ছে, তেমনি সিদ্ধান্ত নেওয়ার ক্ষেত্রেও। বিশেষ করে শ্রীলঙ্কায় দ্বিতীয় টেস্টে একজন বাড়তি স্পিনার না খেলানোর বিষয়টিও ছিল জোর আলোচনায়। ক্যান্ডিতে প্রথম টেস্টে ড্র করা বাংলাদেশ দলের ব্যাটসম্যানরা শেষ ম্যাচে অভিষিক্ত প্রাভীন জয়াবিক্রমার বাঁহাতি স্পিনে রীতিমতো খাবি খেয়েছেন। হারের হতাশা দিয়েই সফর শেষ করে আসা দল এখন দেশের মাটিতে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে সেই শ্রীলঙ্কারই মুখোমুখি হওয়ার অপেক্ষায়। এর আগেই ডমিঙ্গোর ভাগ্য নির্ধারিত হয়ে গেল কি না, তা নিয়ে অবশ্য কোনো মন্তব্যেই গেলেন না মাহমুদ, ‘আমাদের কিছু ভুল হচ্ছে। হয়তো পরিকল্পনাতেও কিছু ভুল আছে, আমি সেটি অস্বীকার করব না। আমি মনে করি, দলের মধ্যে যোগাযোগ আরো বাড়াতে হবে। আমি জানি না, কত দিন তিনি থাকবেন বা কী বিষয়। এটি তো আসলে বোর্ডের ব্যাপার। তা নিয়ে আমার কথা বলা একদমই ঠিক হবে না। কারণ ওনার সঙ্গে চুক্তিটা বোর্ডের।’

বোর্ড সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে তাঁর মতামত চাইলে সেটি ইতিবাচকই হবে, তেমন ইঙ্গিত অবশ্য মাহমুদের কথায় আছে, ‘আমি যতটুকু ওনাকে কাছ থেকে দেখেছি, আমি বলব তিনি কাজ করেন। তিনি ছেলেদের উৎসাহিত করেন। অনেক সময় পরিকল্পনার সঠিক প্রয়োগ হয়, কখনো আবার হয় না। সে জন্য আপনি তাঁকে দোষও দিতে পারেন না। সুতরাং আমি দোষাদুষিতে যেতে চাই না।’ মাহমুদ যা চান, ‘অতীত ভুলে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজ জয়ই এখন আমাদের লক্ষ্য হওয়া উচিত।’



সাতদিনের সেরা