kalerkantho

শনিবার । ৫ আষাঢ় ১৪২৮। ১৯ জুন ২০২১। ৭ জিলকদ ১৪৪২

ইউরোপিয়ান ফুটবলে ‘ফাইনাল’-এর রাত

প্রিমিয়ার লিগে ম্যানচেস্টার সিটি শিরোপার দুয়ারে। আজ চেলসিকে হারালেই চ্যাম্পিয়ন তারা। ম্যাচটি আবার চ্যাম্পিয়নস লিগ ফাইনালের ‘ড্রেস রিহার্সাল’। মুনশেনগ্লাডবাখকে হারালে বায়ার্নও আজ জিততে পারে টানা নবম বুন্দেসলিগা। বার্সেলোনার মাঠে অ্যাতলেতিকোর ম্যাচটি গড়ে দিতে পারে লা লিগার গতিপথ। ইউরোপিয়ান ফুটবলের শিরোপা নির্ধারণী রাতই যেন আজ।

৮ মে, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



ইউরোপিয়ান ফুটবলে ‘ফাইনাল’-এর রাত

চেলসিকে হারালেই শিরোপা ম্যানসিটির

চ্যাম্পিয়নস লিগে ইংল্যান্ডের জয়জয়কার। ইস্তাম্বুলের ফাইনাল নিশ্চিত করেছে ম্যানচেস্টার সিটি ও চেলসি। সেই ফাইনালের আগে আজ প্রিমিয়ার লিগে মুখোমুখি দুই দল। ইতিহাদে চেলসিকে হারালেই সর্বশেষ চার বছরে তিনবার লিগ জয়ের আনন্দে মাতবে পেপ গার্দিওলার দল। আর আবুধাবি গ্রুপ ক্লাব কেনার পর গত ১০ বছরে হবে পঞ্চম প্রিমিয়ার লিগ। ৩৪ ম্যাচ শেষে ম্যানসিটির পয়েন্ট ৮০, এক ম্যাচ কম খেলা ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড দুইয়ে ৬৭ পয়েন্ট নিয়ে। চেলসিকে হারালে সিটিজেনদের পয়েন্ট হবে ৮৩। শেষ পাঁচ ম্যাচে এই ব্যবধান কমানোর আর সুযোগ থাকবে না ম্যানইউর।

শিরোপার সুযোগ না থাকলেও চ্যাম্পিয়নস লিগে টিকে থাকতে চেলসির জন্য ম্যাচটি গুরুত্বপূর্ণ। ৩৪ ম্যাচে ৬১ পয়েন্ট নিয়ে তারা চার নম্বরে। সেরা চারে থেকে চ্যাম্পিয়নস লিগে যেতে চেলসির সঙ্গে লড়াইয়ে আছে ওয়েস্ট হাম, টটেনহাম ও লিভারপুল। পয়েন্ট হারালে তাই চাপে পড়বে টমাস টুখেলের দল।

 

অপেক্ষায় বায়ার্ন

গত সপ্তাহে মাইঞ্জকে হারালে টানা নবম বুন্দেসলিগা নিশ্চিত হয়ে যেত বায়ার্ন মিউনিখের। উল্টো সেই ম্যাচ হারতে হয়েছে বায়ার্নের। উৎসবের অপেক্ষা বেড়েছে তাতে, সেটা শেষও হতে পারে আজ। বরুশিয়া মুনশেনগ্লাডবাখকে হারালেই হান্সি ফ্লিকের দলের নিশ্চিত হয়ে যাবে শিরোপা। এমনকি মাঠে নামার আগেও হতে পারে উৎসব। সে ক্ষেত্রে বরুশিয়া ডর্টমুন্ডের মাঠে হারতে হবে লিপজিগকে। ৩১ ম্যাচ শেষে বায়ার্নের পয়েন্ট ৭১ আর লিপজিগের ৬৪। আজ হারলে শেষ দুই ম্যাচে ৭ পয়েন্টের ব্যবধান কমানো সম্ভব নয় ইউলিয়ান নাগলসমানের দলের। এএফপি

 

অ্যাতলেতিকোর মুখোমুখি বার্সা

২০১৪ সালের লা লিগা। ন্যু ক্যাম্পে শেষ ম্যাচে অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদকে হারালেই শিরোপা জিতত বার্সেলোনা। কাতালানরা শুরুতে এগিয়ে গেলেও শেষ পর্যন্ত ডিয়েগো গোদিনের হেডে ১-১ সমতা। শিরোপা যায় অ্যাতলেতিকোর ঘরে। সাত বছর পর এমন নাটকীয় কিছুই হয়তো অপেক্ষা করছে ন্যু ক্যাম্পে। আজ শেষ ম্যাচ না হলেও লা লিগার গতিপথ ঠিক করে দিতে পারে বার্সেলোনা-অ্যাতলেতিকোর লড়াই। ক্লাব ছাড়ার পর লুই সুয়ারেস প্রতিপক্ষ হয়ে ফিরছেন ন্যুক্যাম্পে। মেসিসহ সাবেক সতীর্থদের আজ ৯০ মিনিটের জন্য হলেও হারাতে মুখিয়ে তিনি।

৩৪ ম্যাচ শেষে অ্যাতলেতিকোর পয়েন্ট ৭৬ আর বার্সেলোনার ৭৪। ডিয়েগো সিমিওনের দল ২ পয়েন্টে এগিয়ে। ম্যাচটির প্রস্তুতি বার্সেলোনা নিয়েছে ৩-২ গোলে ভ্যালেন্সিয়াকে হারিয়ে। অ্যাতলেতিকো নিয়েছে এলচের মাঠে ১-০ গোলে জিতে। ইনজুরি টাইমে অবশ্য পেনাল্টি পেয়েছিল এলচে। স্পট কিক থেকে গোল করতে ব্যর্থ হওয়াটা সৌভাগ্য বয়ে এনেছে অ্যাতলেতিকার। ভাগ্যটা আজও সঙ্গ দেবে কি?



সাতদিনের সেরা