kalerkantho

রবিবার । ২৬ বৈশাখ ১৪২৮। ৯ মে ২০২১। ২৬ রমজান ১৪৪২

এবার গোল্ডেন শু লেভানদোস্কির?

১৪ এপ্রিল, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



এবার গোল্ডেন শু লেভানদোস্কির?

গত মৌসুমটা নিজেরই করে নিয়েছিলেন রবার্ত লেভানদোস্কি। ৫৬ গোল করে বায়ার্নকে জিতিয়েছেন সম্ভাব্য ছয় শিরোপার সবগুলো। নিজে হয়েছেন ফিফার ‘দ্য বেস্ট’। এর পরও আক্ষেপ ছিল একটা। ইউরোপিয়ান লিগে সর্বোচ্চ গোলদাতার সম্মান ‘গোল্ডেন শু’ পাওয়া হয়নি এই পোলিশের। লািসওর চিরো ইম্মোবিলে ৩৬ গোল করে ছাড়িয়ে যান সবাইকে। ৩৪ গোল নিয়ে লেভা ছিলেন দুইয়ে। সেই ইম্মোবিলে এবার নিজের ছায়া। সিরি ‘এ’তে গোল মাত্র ১৪টি। আর গোলমেশিন লেভানদোস্কির ধার বেড়েছে আরো। ২৫ ম্যাচেই গোল ৩৫টি!

ইউরোপের মর্যাদার পাঁচ লিগে প্রতি গোলের জন্য পয়েন্ট ২। তাই ৭০ পয়েন্ট নিয়ে ‘গোল্ডেন শু’ জয়ের সুবাসই পাচ্ছেন লেভানদোস্কি। দুইয়ে থাকা ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো পিছিয়ে ১০ গোল আর ২০ পয়েন্টে। বুন্দেসলিগায় লেভানদোস্কিদের ম্যাচ বাকি আরো ছয়টি। আর সিরি ‘এ’তে জুভেন্টাসের আটটি। চোটের জন্য লিগে বায়ার্নের হয়ে সর্বশেষ ম্যাচটি খেলা হয়নি লেভানদোস্কির। তবে দলের সঙ্গে অনুশীলন শুরু করেছেন আবার। পরের ছয় ম্যাচে আর পাঁচ গোল করলে বুন্দেসলিগায় এক মৌসুমে জার্ড মুলারের সর্বোচ্চ ৪০ গোলের কীর্তিও ছুঁয়ে ফেলবেন লেভা। তাঁর লক্ষ্যও সেটা, ‘আমি প্রতিটি ম্যাচ ধরে খেলতে চাই। এই মৌসুমে ছন্দে আছি। ৪০ গোল অসম্ভব কিছু নয়।’

ইউরোপের মর্যাদার পাঁচ লিগে প্রতি গোলের জন্য পয়েন্ট ২। তাই ৭০ পয়েন্ট নিয়ে ‘গোল্ডেন শু জয়ের সুবাসই পাচ্ছেন লেভানদোস্কি। দুইয়ে থাকা ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো পিছিয়ে ১০ গোল আর ২০ পয়েন্টে। বুন্দেসলিগায় লেভানদোস্কিদের ম্যাচ বাকি আরো ছয়টি।

১০০ মিলিয়ন ইউরোয় জুভেন্টাস ক্রিস্তিয়ানো রোনালদোকে কিনেছিল চ্যাম্পিয়নস লিগ জিততে। সে আশায় গুঁড়েবালি। গত তিন মৌসুমে সেমিফাইনালের গণ্ডিই পার হতে পারেনি জুভেন্টাস। করোনায় টালমাটাল অর্থনীতিতে এই মৌসুম শেষে তাঁকে ছেড়েও দিতে পারে ইতালিয়ান ক্লাবটি। যদিও ২৭ ম্যাচে ২৫ গোল নিয়ে রোনালদোই সিরি ‘এ’র শীর্ষ গোলদাতা এই পর্যন্ত। তাঁর পারফরম্যান্সে বোঝার উপায় নেই বয়স পেরিয়ে গেছে ৩৬ বছর। এর পরও লেভানদোস্কির সঙ্গে ১০ গোলের ব্যবধান কমিয়ে আনাটা কঠিন তাঁর জন্য।

৩৩ বছর বয়সী লিওনেল মেসি সেরা ছন্দে নেই এবারের মৌসুমে। এর পরও লা লিগায় সর্বোচ্চ ২৩ গোল তাঁর। আরো একবার পিচিচি জেতাটা খুবই সম্ভব মেসির। তবে এবার অন্তত গোল্ডেন শু জেতার স্বপ্ন দেখছেন না তিনিও। এ ছাড়া ফ্রাংকফুর্টের আন্দ্রে সিলভার গোল ২৩ আর পিএসজির কিলিয়ান এমবাপ্পের ২১টি। তাঁরাও অনেক পিছিয়ে লেভানদোস্কির চেয়ে। সব মিলিয়ে গোল্ডেন শু জেতাটা হয়তো সময়েরই অপেক্ষা লেভার। গোলডটকম



সাতদিনের সেরা