kalerkantho

মঙ্গলবার । ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮। ১৮ মে ২০২১। ৫ শাওয়াল ১৪৪

মেসির শেষ ‘এল ক্লাসিকো’?

১০ এপ্রিল, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



মেসির শেষ ‘এল ক্লাসিকো’?

লিওনেল মেসির শেষ ‘এল ক্লাসিকো’ কি আজ? কিছুদিন পরই শেষ হচ্ছে বার্সেলোনার সঙ্গে এই কিংবদন্তির চুক্তির মেয়াদ। ম্যানচেস্টার সিটি ও পিএসজি মুখিয়ে তাঁকে পেতে। যদিও নতুন বার্সা প্রেসিডেন্ট হুয়ান লাপোর্তা আশাবাদী মেসি থাকবেন বার্সেলোনাতেই। শেষ না হলেও আলফ্রেদো দ্য স্তেফানো স্টেডিয়ামে আজকের এল ক্লাসিকোটা রাঙাতে চাইবেন মেসি। ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো জুভেন্টাসে যাওয়ার পর সর্বশেষ ছয় এল ক্লাসিকোয় কোনো গোল বা অ্যাসিস্ট নেই তাঁর! অথচ ঐতিহ্যবাহী দল দুটির দ্বৈরথে সবচেয়ে বেশি ২৬ গোল মেসিরই।

ম্যাচের ভাগ্য যে মেসি গড়ে দিতে পারেন, ভালোই জানা রিয়ালের ফরাসি ফরোয়ার্ড করিম বেনজিমার। তিনি নিজে এই মৌসুমে করেছেন ২৬ গোল, যার ১৮টি লা লিগায়। মেসি আর নিজের ছন্দ নিয়ে লা লিগা টিভিকে বেনজিমা জানালেন, ‘বার্সেলোনা সব সময় বল ধরে রেখে খেলে। ওদের গোলরক্ষক অসাধারণ আর আছে মেসি। বার্সার জন্য সবই করে থাকে ও। আমাদের সাবধান থাকতে হবে কারণ মেসি ভীষণ বিপজ্জনক। এটা আমার সেরা মৌসুম কি না জানি না। তবে গোল করছি আমি আর চাই দলকে জেতাতে।’

রোনালদোর চলে যাওয়া, গত দুই মৌসুম চ্যাম্পিয়নস লিগ থেকে রিয়ালের শেষ ষোলোর গেরোয় আটকানো, আর পিএসজির কাছে বার্সার বিধ্বস্ত হওয়ায় প্রশ্ন উঠতেই পারে লা লিগার মান কমে যাওয়া নিয়ে। তবে রিয়াল-বার্সার লড়াই এখনো হাজির রোমাঞ্চের পসরা সাজিয়ে। উন্মাদনা আর উত্তেজনায় বুঁদ থাকেন সমর্থকরা। আজ আলফ্রেদো দ্য স্তেফানোয় ‘এল ক্লাসিকো’র গুরুত্বটা আরো বাড়ছে পয়েন্ট টেবিলের কারণে। সমান ২৯ ম্যাচ শেষে অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদের পয়েন্ট ৬৬, বার্সেলোনার ৬৫ আর রিয়ালের ৬৩। এই ম্যাচটাই গড়ে দিতে পারে শিরোপার গতিপথ। তবে নিজেদের শান্তই রাখছেন জিনেদিন জিদান, ‘আমরা কিছু জিতে যাইনি। চ্যাম্পিয়নস লিগ ও লা লিগা জয়ের অভিযানে আছি ভালোভাবে। শেষ রক্তবিন্দু দিয়ে সেই চেষ্টাই করে যাব।’

বার্সেলোনার দায়িত্ব নিয়ে প্রথম এল ক্লাসিকোয় বিধ্বস্ত হয়েছিলেন রোনাল্ড কোম্যান। ন্যু ক্যাম্পে দল হেরেছিল ১-৩ গোলে। এরপর অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদ আর কাদিজের কাছে হারায় শিরোপার আশা ছেড়েই দিয়েছিলেন বার্সা সমর্থকরা। তবে লা লিগায় টানা ১৯ ম্যাচ অপরাজিত থেকে ডুবতে বসা নৌকাটাকে উদ্ধার করেছেন কোম্যান। এখন স্বপ্ন দেখছেন সবার আগে তীরে পৌঁছানোরও। খেলোয়াড় হিসেবে এল ক্লাসিকোর অভিজ্ঞতা আছে তাঁর। একবার জিতেছিলেন ৫-০ গোলেও। নিজের সমৃদ্ধ অভিজ্ঞতার ঝুলিটা খুলে দলকে জেতাতে মরিয়া তিনি, ‘ওরা জায়গা ছাড়বে না আমাদের জন্য। তবে আমরাও প্রস্তুত।’

চোটের জন্য রিয়াল অধিনায়ক সের্হিয়ো রামোস এখন বেঞ্চে। রাফায়েল ভারানে আক্রান্ত করোনায়। তবু লা লিগায় রিয়াল অপরাজিত টানা ৯ ম্যাচ। এই সময়ে গোল হজম করেছে মাত্র পাঁচটি। রক্ষণদেয়াল ভাঙতে তাই বিশেষ কিছুই করতে হবে লিওনেল মেসি, উসমান দেম্বেলে, আন্তোয়ান গ্রিয়েজমানদের। মার্কা