kalerkantho

শুক্রবার । ৪ আষাঢ় ১৪২৮। ১৮ জুন ২০২১। ৬ জিলকদ ১৪৪২

ফ্রান্সে থেকেও উন্নতি নেই আরিফের

৭ এপ্রিল, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ফ্রান্সে থেকেও উন্নতি নেই আরিফের

ক্রীড়া প্রতিবেদক : প্রায় আড়াই বছর ফ্রান্সে উন্নত প্রশিক্ষণে থেকেও পারফরম্যান্সে উন্নতি নেই আরিফুল ইসলামের। কাল নিজের শেষ ইভেন্ট ৫০ মিটার ব্রেস্ট স্ট্রোকে সোনা জিতেছেন ঠিকই, কিন্তু টাইমিংয়ে নিজের সেরাটাও ছুঁতে পারেননি। এর আগে ১০০ মিটার ব্রেস্ট স্ট্রোকে হেরেই গেছেন তিনি সুকুমার রাজবংশীর কাছে।

কাল ৩০.০৭ সেকেন্ডে ৫০ মিটার জেতেন আরিফ। এই ইভেন্টে তাঁর নিজেরই রেকর্ড ২৯.৭৭ সেকেন্ডের। ২৫ মিটার পুলে একই ইভেন্টে গত এসএ গেমসেও রুপা জিতেছিলেন তিনি এর চেয়ে ভালো টাইমিং করে। গেমস শুরুর আগে জানিয়েছিলেন ১০০ মিটার ব্রেস্ট স্ট্রোকে অলিম্পিক কোয়ালিফায়িং টাইমিং ছুঁতে চান। কিন্তু সেই ইভেন্টে সেটির ধারেকাছেও ছিল না আরিফের পারফরম্যান্সে। ব্রেস্ট স্ট্রোকে ২০০৬ এসএ গেমসে সোনা জেতা শাহজাহান আলী এই আরিফকে দেখে বিস্মিতই হয়েছেন, ‘সত্যি বলতে ওর টাইমিং আমাকে অবাক করেছে। ফ্রান্সে উন্নত প্রশিক্ষণে থেকে ওর টাইমিং আমাদের স্থানীয় সাঁতারুদের চেয়েও খারাপ হবে কেন? ১০০ মিটার ব্রেস্ট স্ট্রোকে অন্তত ১:০২-এ সাঁতরানোর কথা তাঁর, সেখানে ওর লেগেছে ১.০৭, এটা মোটেও প্রত্যাশিত না। জানি না, ওখানে ওর প্রশিক্ষণ ঠিকমতো হচ্ছে না, নাকি ওরই চেষ্টায় কমতি আছে। করোনার কারণেও অনুশীলন কম হতে পারে।’ আরিফ নিজেও করোনায় অনুশীলনে ব্যাঘাত ঘটার কথা বলেছেন, ‘ফ্রান্সে লকডাউন শেষ হওয়ার পর এটা মাত্রই দ্বিতীয় প্রতিযোগিতা আমার। সামনে আশা করি আরো ভালো করব।’ যদিও বাংলাদেশে থাকা অন্য সাঁতারুরা করোনার পর এই প্রথমবার পুলে নেমে ১১টি নতুন রেকর্ড গড়েছেন, সেখানে আরিফের টাইমিং পেছনের দিকেই। কাল ২০০ মিটার ব্যক্তিগত মিডলেতে নতুন জাতীয় রেকর্ড গড়েছেন কাজল মিয়া।

গেমসে কাল কারাতে শুরু হয়েছে বান্দরবানে। প্রথম দিন মেয়েদের একক কাতা জিতে নিয়েছেন বান্দরবান জেলা ক্রীড়া সংস্থার নুমে মারমা, হুমায়রা আক্তার জিতেছেন রুপা। ছেলেদের দলগত কাতা জিতেছেন আনসারের সান-মুন-নুরুজ্জামানরা, মেয়েদের দলগত সোনা অবশ্য সেনাবাহিনীর।



সাতদিনের সেরা