kalerkantho

শনিবার । ২৭ চৈত্র ১৪২৭। ১০ এপ্রিল ২০২১। ২৬ শাবান ১৪৪২

জোকোভিচের কীর্তি

৯ মার্চ, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



জোকোভিচের কীর্তি

মার্চেই ‘বড়দিন’ উদযাপন করতে পারেন নোভাক জোকোভিচ! উপলক্ষ তো ছোট নয়। প্রথম খেলোয়াড় হিসেবে রেকর্ড গড়েছেন ৩১১ সপ্তাহ র‌্যাকিংয়ের শীর্ষে থাকার। ভেঙেছেন রজার ফেদেরারের ৩১০ সপ্তাহের পুরনো রেকর্ড। গতকাল র‌্যাকিং প্রকাশের পরই টুইটারে জোকাভিচের উচ্ছ্বাস, ‘আজ অনেক বড় দিন।’

করোনার মাঝেও উদযাপন করেছে জোকোভিচের শহর বেলগ্রেডের মানুষ। টাউন হলের সামনে বড় পর্দায় দেখানো হয়েছে তাঁর ক্যারিয়ারের গুরুত্বপূর্ণ মুহূর্তের ভিডিও, যা দেখতে ভিড় করেছিলেন হাজারো সমর্থক। দেশটির জনপ্রিয় দৈনিক ‘ভেকার্ন নোভোস্তি’র শিরোনাম, ‘কেউ যা পারেনি সেটাই করেছে জোকোভিচ’।

টানা সবচেয়ে বেশি ২৩৭ সপ্তাহ র‌্যাকিংয়ে শীর্ষে থাকার রেকর্ডটা এখনো অবশ্য ফেদেরারের। জোকোভিচ দুই দফায় শীর্ষে ছিলেন টানা ৮৮ সপ্তাহ। সর্বশেষ ২০২০ সালের ফেব্রুয়ারিতে নাদালের কাছ থেকে দখলে নেন এক নম্বরের মুকুট। আর পিট সাম্প্রাসের সমান রেকর্ড যৌথ ষষ্ঠবার বছরটা শেষ করেন শীর্ষে থেকে।

২০০৫ সালে জোকোভিচ যখন সেরা ১০০-তে আসেন তত দিন একটা ফ্রেঞ্চ ওপেন জেতা হয়ে গেছে রাফায়েল নাদালের। ২০০৬ সালের জুনে সেরা ৫০, অক্টোবরে সেরা ২০ আর পরের বছর মার্চে নাম লেখান সেরা ১০-এ। র‌্যাকিংয়ের মুকুট প্রথমবার পান ২০১১ সালের ৪ জুলাই ২৪ বছর বয়সে। উইম্বলডন ফাইনালে রাফায়েল নাদালকে হারানোর পরদিনই পেয়েছিলেন স্বীকৃতিটা। সেই নাদাল ২০টি গ্র্যান্ড স্লাম জিতলেও র‌্যাকিংয়ে শীর্ষে ছিলেন ২০৯ সপ্তাহ। জোকোভিচ জিতেছেন ১৮টি গ্র্যান্ড স্লাম। তাঁর চেয়ে দুটি বেশি গ্র্যান্ড স্লাম ফেদেরার ও নাদালের। এই দুজনকে ছাড়িয়ে গ্র্যান্ড স্লামের চূড়ায়ও হয়তো উঠে যাবেন জোকোভিচ। এএফপি

মন্তব্য