kalerkantho

শনিবার । ২৭ চৈত্র ১৪২৭। ১০ এপ্রিল ২০২১। ২৬ শাবান ১৪৪২

এশিয়া কাপ না হলে ঘরোয়া ক্রিকেট

৮ মার্চ, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



এশিয়া কাপ না হলে ঘরোয়া ক্রিকেট

ক্রীড়া প্রতিবেদক : আনুষ্ঠানিক ঘোষণা আসেনি এখনো। তবে মহামারির কারণে পিছিয়ে ২০২১ সালে চলে আসা এশিয়া কাপ আয়োজন যে আগামী বছর গিয়েও ঠেকতে পারে, সে ধারণা আগাম দিয়ে রেখেছিলেন পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি) সভাপতি এহসান মানি। ভারত বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে উঠলে এ আসর চলতি বছর মাঠে গড়ানোর সম্ভাবনা ক্ষীণ বলেই জানিয়েছিলেন তিনি। দেশের মাটিতে ইংল্যান্ডকে হারিয়ে বিরাট কোহলির দল ফাইনালে উঠে যাওয়ায় তাই একই সময়ে নির্ধারিত এশিয়া কাপের ভাগ্য আরো বছরখানেকের জন্য ঝুলেই গেল। তাতে অবশ্য আসরের অন্যান্য দেশগুলোর কিছুটা অবসর মিলবে। ব্যতিক্রম নয় বাংলাদেশও। ফাঁকা সেই সময়ে একটি ঘরোয়া টুর্নামেন্টই করার ভাবনা বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি)।

সংস্থার প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা নিজাম উদ্দিন চৌধুরী সে ভাবনার কথা জানালেও এশিয়া কাপ আরেক দফা পিছিয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা নিয়ে কোনো মন্তব্যই করতে চাইলেন না, ‘এশিয়া কাপ আয়োজন পুরোপুরিই এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিলের (এসিসি) বিষয়। আমরা যদিও পূর্ণ সদস্য এবং এর সঙ্গে সম্পৃক্ত। তবে এ বিষয়ে মিডিয়ায় কিছু না বলে এসিসির সঙ্গে যোগাযোগ করাই ভালো হবে বলে মনে করি।’ অবশ্য একই সময়ে ঘরোয়া টুর্নামেন্ট আয়োজনের চিন্তার কথাও বলতে ভুললেন না নিজাম, ‘ফাঁকা সময় (এশিয়া কাপ না হওয়ার কারণে) পাওয়া গেলে ঘরোয়া একটি টুর্নামেন্ট করা যায় কি না, তা নিয়ে আমরা কাজ করছি। ওই সময় জাতীয় দলের ক্রিকেটাররাও ফিট থাকবে। আমরা ক্রিকেট ক্যালেন্ডার নিয়েও কাজ করছি। যত দ্রুত সম্ভব বোর্ডে পূর্ণাঙ্গ ক্রিকেট ক্যালেন্ডার উপস্থাপন করতে চাই।’ ওই সময়ের আগেই দেশে এবং দেশের বাইরে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে জাতীয় দলের ক্রিকেটারদের পর পর দুটো আন্তর্জাতিক সিরিজ খেলা হয়ে যাবে। বিসিবি প্রধান নির্বাহী জানিয়েছেন, দুই টেস্টের সিরিজ খেলতে বাংলাদেশ দল শ্রীলঙ্কায় যাবে ১২ এপ্রিল। সেখানে ছয়-সাত দিনের কোয়ারেন্টিন করতে হবে তাঁদের। আর তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ খেলতে শ্রীলঙ্কা দলের বাংলাদেশে আসার সম্ভাব্য তারিখ ২০ মে।

মন্তব্য