kalerkantho

শুক্রবার । ২০ ফাল্গুন ১৪২৭। ৫ মার্চ ২০২১। ২০ রজব ১৪৪২

বিকল্প নিয়ে আর দুর্ভাবনা নেই!

২৪ জানুয়ারি, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



বিকল্প নিয়ে আর দুর্ভাবনা নেই!

ক্রীড়া প্রতিবেদক : ২০১৯ বিশ্বকাপে নৈপুণ্যের ঘাটতি পূরণে বিকল্প খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিল না। এরপর শ্রীলঙ্কা সফরে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে গো-হারার পরও ‘পাইপলাইন’ নিয়ে হাহাকার শোনা গেছে। মাঝে করোনা বিরতির কারণে প্রায় ১০ মাস পর আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফেরা বাংলাদেশ দল হাতে এক ম্যাচ রেখেই সিরিজ জেতায় নাকি নির্বাচকরা বিপাকে— কাকে রেখে কাকে খেলাবেন! ক্রিকেটের পরিভাষায় যেটাকে বলে ‘মধুর সমস্যা’। গতকাল সংবাদমাধ্যমের কাছে নিজের সন্তুষ্টির কথা জানিয়েছেন বোর্ড সভাপতি নাজমুল হাসানও।

‘পারফরম্যান্সের কথা যদি জিজ্ঞাসা করেন—সাকিব, মিরাজ; ওরা ভালো করেছে। বোলিং, ফিল্ডিং নিয়ে আমি সন্তুষ্ট’, তবে ব্যাটিংয়েও অসন্তুষ্ট নন নাজমুল হাসান, ‘ব্যাটিংয়ে একটা ধারাবাহিকতা ফিরে এসেছে। সাকিবকে নিয়ে আমরা অনেক চিন্তিত ছিলাম, কত দিন লাগবে ওর ছন্দ ফিরে পেতে। বোঝা যাচ্ছে যে ওর সময় লাগছে না। খুব তাড়াতাড়ি ফর্মে ফিরে এসেছে। এ ছাড়া অন্য যারা আছে, আমরা অত্যন্ত আশাবাদী।’

বোর্ড সভাপতির এই আশাবাদের জ্বালানি জুগিয়েছে বিকল্প খেলোয়াড়ের সংখ্যা, তেমনটাই বলেছেন তিনি, ‘আগে একজন খেলোয়াড় চোট পেলে বদলি কে খেলবে—এ নিয়ে চিন্তায় ছিলাম। বিশ্বাস করুন, এখন নির্বাচক, কোচ, অধিনায়ক চিন্তা করে কাকে বাদ দেবে। এত বিকল্প আছে প্রত্যেক খেলোয়াড়ের। এটা আমাদের ভবিষ্যতের জন্য ভালো।’ প্রথম ওয়ানডেতে ছয়জনের অভিষেক হয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজের পক্ষে। সেই দলের বিপক্ষে টানা দুই জয়ে আকস্মিকভাবে অস্বস্তি উড়িয়ে নিয়ে গেছে স্বস্তি।

সিরিজ জয় নিশ্চিতের পর গতকাল দুপুরে চট্টগ্রামে গেছে বাংলাদেশ দল। গেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজও। তো, সিরিজ নিশ্চিত হয়ে যাওয়ায় তৃতীয় এবং শেষ ওয়ানডেতে একাদশে পরিবর্তন হওয়ার সম্ভাবনা নিয়ে চারদিকে আলোচনা হচ্ছে। বিশেষ করে স্কোয়াড ১৮ জনের যখন, তখন নতুন কাউকে বাজিয়ে দেখতেই পারেন নির্বাচকরা। এ প্রসঙ্গে নাজমুল হাসানের অভিমত, ‘একাদশে পরিবর্তন আসতেই পারে। তবে এমন কোনো পরিবর্তন চাই না, যাতে কাউকে অবমূল্যায়ন করা হয়।’

অন্য একটি কারণে ঢালাও পরিবর্তনের পক্ষে নন বোর্ড সভাপতি। এই সিরিজ দিয়েই বাংলাদেশ ঢুকেছে ওয়ানডে চ্যাম্পিয়নশিপে, যেখানে প্রতিটি জয়ের পয়েন্ট মূল্যও আছে। ক্যারিবীয়দের মিরপুরে হারিয়ে দুই ম্যাচ থেকে ২০ পয়েন্ট তুলে নিয়েছেন তামিম ইকবালরা। তাই চট্টগ্রামের ম্যাচ থেকেও আরো ১০ পয়েন্ট লক্ষ্য বাংলাদেশের। সেটি মনে করিয়ে দিয়েছেন নাজমুল, ‘আমাদের ওয়ানডে চ্যাম্পিয়নশিপ শুরু হয়েছে। দুই ম্যাচ জিতে আমরা ২০ পয়েন্ট পেয়েছি। একেকটি ম্যাচ এখন গুরুত্বপূর্ণ। কোনো ম্যাচকে খাটো করে দেখার সুযোগ নেই। এ জন্যই আমরা প্রত্যেকটি খেলা অত্যন্ত গুরুত্বের সঙ্গে নিচ্ছি।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা