kalerkantho

শনিবার । ১৪ ফাল্গুন ১৪২৭। ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১। ১৪ রজব ১৪৪২

নারী দলে গোলকিপিং কোচ ও ফিজিও

২৩ জানুয়ারি, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ক্রীড়া প্রতিবেদক : ছেলেদের ফুটবলের মতো দেশের মহিলা ফুটবলের কোচিং স্টাফেও যোগ হচ্ছে নতুন গোলকিপিং কোচ ও ফিজিও। বসুন্ধরা কিংস মহিলা ফুটবল দলের সাফল্যের সুবাদে ক্লাবের গোলকিপিং কোচ সেলিম মিয়া ও ফিজিও লাইজু ইয়াসমিন লিপাকে নিয়োগ দিয়েছে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন। এ দুজন বাফুফের বয়সভিত্তিক মহিলা ফুটবল দল ও সিনিয়র দলের সঙ্গে কাজ করবেন।

সেলিম মিয়া জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ডেপুটি ডিরেক্টর হলেও ফুটবলে ‘এ’ লাইসেন্স সার্টিফিকেটধারী কোচ। তবে গোলরক্ষক কোচিংয়ের প্রথম পাঠ লেভেল-১ শেষ করেছেন কেবল, অপেক্ষায় আছেন বাকি কোর্সগুলোর। বাফুফের কোচিং প্যানেলে যোগ দিয়ে তিনি খুশি, ‘এর আগে বসুন্ধরা কিংসে কাজ করেছি, এরপর ফেডারেশনের কোচ হয়ে কাজ করতে পারাটা আমার জন্য সৌভাগ্যের। ভালো কয়েকজন গোলরক্ষক তৈরির চেষ্টা করব। তবে বাফুফের সঙ্গে চুক্তি লম্বা সময়ের জন্য নয়, ক্লাবের মহিলা ফুটবল শুরু হলে আমাকে আবার ফিরে যেতে হবে।’

কোনো অ্যাসাইনমেন্ট ছাড়া মহিলা দলের জন্য প্রথমবারের মতো ফিজিও নিয়োগ দিয়েছে বাফুফে। লাইজু ইয়াসমিন লিপা স্পোর্টস ফিজিও হিসেবে প্রথম কাজ করেছেন বসুন্ধরা কিংসের মেয়ে ফুটবল দলে। এখন আরো বড় পরিসরে কাজের সুযোগ পেয়ে তিনি বলছেন, ‘দেশে গণস্বাস্থ্য বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পাস করার পর আমি ভারতে গিয়ে স্পোর্টস ফিজিও নিয়ে লেখাপড়া করেছি। এটা যেহেতু আমার আগ্রহের জায়গা তাই বাফুফের বয়সভিত্তিক দলের মেয়েদের সঙ্গে কাজটা আমি উপভোগ করব।’ বাফুফের তত্ত্বাবধানে প্রায় ৪০ জন মেয়ে ফুটবলারের ট্রেনিং হয় সারা বছর। তাঁদের জন্য একজন ফিজিও খুব জরুরি। তা ছাড়া নারী ফুটবল উন্নয়নের জন্য ফিফা-এএফসি থেকে বিশেষ বরাদ্দ দেওয়া হয় প্রতিবছর।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা