kalerkantho

শনিবার। ২ মাঘ ১৪২৭। ১৬ জানুয়ারি ২০২১। ২ জমাদিউস সানি ১৪৪২

দাপুটে জয়ে শুরু অস্ট্রেলিয়ার

২৮ নভেম্বর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



দাপুটে জয়ে শুরু অস্ট্রেলিয়ার

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফেরাটা একদম সুখকর হয়নি ভারতের। গত ফেব্রুয়ারির পর প্রথম ম্যাচ খেলতে নেমে অস্ট্রেলিয়ার রানপাহাড়ে চাপা পড়ে একেবারে চিড়েচ্যাপ্টা অবস্থা বিরাট কোহলির দলের। সিডনির প্রথম ওয়ানডেতে স্টিভেন স্মিথের বিধ্বংসী শতরান, অ্যারন ফিঞ্চের অধিনায়কোচিত সেঞ্চুরির সঙ্গে ডেভিড ওয়ার্নারের হাফসেঞ্চুরি এবং গ্লেন ম্যাক্সওয়েলের ১৯ বলে ৪৫ রানের ছোট্ট ঝড়ে রীতিমতো ৩৭৪ রানের পাহাড় গড়েছিল অস্ট্রেলিয়া। ওই বিশাল লক্ষ্য তাড়া করে জিততে হলে অসাধারণ কিছু করা চাই। কিন্তু হার্দিক পাণ্ডে ও শিখর ধাওয়ান ছাড়া অন্যরা বলার মতো কিছু অবদান রাখতে না পারায় ৬৬ রানের বড় হার নিয়ে মাঠ ছাড়তে হয়েছে বিরাট কোহলির দলকে।

সিডনি ক্রিকেট গ্রাউন্ডে টস জিতে প্রথমে ব্যাটিংয়ে নেমে অস্ট্রেলিয়াকে ভালো শুরু এনে দেন দুই উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান ডেভিড ওয়ার্নার ও অ্যারন ফিঞ্চ। ওয়ার্নারকে ফিরিয়ে তাদের ১৫৬ রানের জুটিটা ভাঙেন মোহাম্মদ সামি। ওয়ার্নারের বিদায়ের পর দুই সেঞ্চুরিয়ান ফিঞ্চ ও স্মিথের মধ্যেও গড়ে ওঠে আরেকটি শতরানের জুটি। ১১৪ রানের কার্যকর শতরান অধিনায়ক ফিঞ্চের। শুরুর দিকে কিছুটা ভাগ্যের সহায়তা পাওয়া স্মিথ খেলেন ৬৬ বলে ১০৫ রানের বিধ্বংসী ইনিংস। তাদের সঙ্গে ম্যাক্সওয়েলও (১৯ বলে ৪৫) ব্যাটে ঝড় তোলায় পৌনে চার শ হয়েছে অস্ট্রেলিয়ার স্কোর। বিশাল লক্ষ্যের পিছু ছুটতে নেমে শিখর ধাওয়ানের হাফসেঞ্চুরির পর হার্দিকের ব্যাটিংয়ে ক্ষীণ আশাও অবশ্য জেগে উঠেছিল ভারতের। কিন্তু অ্যাডান জাম্পাদের বোলিং তোপে তাদের সে স্বপ্ন মিলিয়ে গেছে দূর দিগন্তে। ক্রিকইনফো  

অস্ট্রেলিয়া : ৫০ ওভারে ৬/৩৭৪ (ফিঞ্চ ১১৪, স্মিথ ১০৫, ওয়ার্নার ৬৯, ম্যাক্সওয়েল ৪৫; সামি ৩/৫৯)। ভারত : ৫০ ওভারে ৩০৮/৮ (হার্দিক ৯০, ধাওয়ান ৭৪; জাম্পা ৪/৫৪)। ফল : অস্ট্রেলিয়া ৬৬ রানে জয়ী। ম্যান অব দ্য ম্যাচ : স্টিভেন স্মিথ।

মন্তব্য