kalerkantho

সোমবার। ৪ মাঘ ১৪২৭। ১৮ জানুয়ারি ২০২১। ৪ জমাদিউস সানি ১৪৪২

কালের কণ্ঠ’র যাত্রায়ও ম্যারাডোনা

২৭ নভেম্বর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কালের কণ্ঠ’র যাত্রায়ও ম্যারাডোনা

ক্রীড়া প্রতিবেদক : মিরপুরের এসওএস হারম্যান মেইনার স্কুল অ্যান্ড কলেজের বিশাল হলরুমে তখন নির্বাচিত শিক্ষার্থীদের নিয়ে চলছে বিশ্বকাপ কুইজ প্রতিযোগিতা। প্রশ্নের সঠিক উত্তর দিয়ে কেউ কেউ জিতে নিচ্ছে তাৎক্ষণিক পুরস্কার। পরে দেখা গেল ভুল উত্তর দেওয়া শিক্ষার্থীরাও পুরস্কারের দাবি জানিয়ে গলা ফাটাচ্ছে। শুধু তারাই নয়, হলরুমের বাইরেও অনেকেই অপেক্ষায়। বের হওয়া মাত্রই কুইজ প্রতিযোগিতার সঙ্গে জড়িত কাউকে ধরে যদি...।

কী ছিল সেই পুরস্কার? টি-শার্ট, ক্যাপ ও ফুটবল। সামান্য সে পুরস্কারও স্কুলের শিক্ষার্থীদের কাছে অমূল্য হয়ে ওঠার কারণ সেসবে যে ডিয়েগো ম্যারাডোনার ছবির সঙ্গে খোদাই করা ছিল তাঁর অটোগ্রাফও। এ রকম একটা কিছুর দখল পেতে কিশোর-কিশোরীদের সে কী আকুতি! অথচ ওরা কেউ ম্যারাডোনার খেলা দেখেনি। কেবল বড়দের কাছে তাঁর ফুটবলীয় কীর্তির গল্পই শুনেছে। তাতেই এমন ভালোলাগা যে তাঁর অটোগ্রাফ সংবলিত সামান্য টি-শার্ট, ক্যাপ আর ফুটবলের অসামান্য হয়ে ওঠা। একের পর এক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে গিয়ে কালের কণ্ঠ’র ভলান্টিয়ারদের তাই নির্দিষ্টসংখ্যক পুরস্কারের বাইরেও বাড়তি বরাদ্দের দাবির মুখে পড়ে গলদঘর্ম অবস্থা। ২০১০ সালে দক্ষিণ আফ্রিকায় অনুষ্ঠিত বিশ্বকাপের সময় এই ছিল প্রতিদিনের চিত্র। বিশ্বকাপ জুন-জুলাইয়ে, এর ঠিক মাস ছয়েক আগে ১০ জানুয়ারি কালের কণ্ঠ’র যাত্রা। তত দিনে বিশ্বকাপ ফুটবলের সময়ও ঘনিয়ে আসছে। সেই সময়েই বিশাল এক চমক নিয়ে হাজির হয় পত্রিকাটি। বাংলাদেশে শুধুমাত্র কালের কণ্ঠেই ছাপা হচ্ছিল ম্যারাডোনার কলাম। সেই সঙ্গে বাংলাদেশে এই আর্জেন্টাইন ফুটবল ঈশ্বরের অটোগ্রাফ ব্যবহার করার স্বত্বও পায় কালের কণ্ঠই। ম্যারাডোনার সই দিয়ে করা নানা সামগ্রীর সঙ্গে দেয়ালঘড়ির চাহিদাও তাই তুঙ্গে উঠে যায়।

মন্তব্য