kalerkantho

শুক্রবার । ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৭। ২৭ নভেম্বর ২০২০। ১১ রবিউস সানি ১৪৪২

দোহায় অনুশীলনে বাংলাদেশ

২৩ নভেম্বর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



দোহায় অনুশীলনে বাংলাদেশ

ক্রীড়া প্রতিবেদক : কাতারে ঢোকার পরই ম্যানেজার, ফিজিও দুজন কঠোর আইসোলেশনে। ফুটবলাররা হোটেলে কক্ষবন্দি। প্রথম দুই দিন জিম সেশনও হয়নি। দ্বিতীয় দফা করোনা পরীক্ষায় আসলে ঝুলে ছিল সব কিছু। বরং ম্যানেজার-ফিজিওর সংস্পর্শ নিয়ে চাপা উদ্বেগ আছে দলে—এরপর আর কে? অবশেষে এক দমকা হাওয়ার মতো করোনা পরীক্ষার দ্বিতীয় ফলে সব শঙ্কা দূর। ফুটবলাররা মুক্তির আনন্দ নিয়ে কাল কাতারে প্রথম অনুশীলন করেছেন ঘাসের মাঠে।

দোহার মাটিতে প্রথম প্রস্তুতি হয়েছে জেমি ডে-কে ছাড়াই। করোনায় আক্রান্ত হওয়ার সাত দিন পর পরশু দ্বিতীয় পরীক্ষায়ও পজিটিভ হয়েছেন কোচ। করোনার লক্ষণও একেবারে যায়নি। তাই সহকারী কোচ স্টুয়ার্ট ওয়াটকিসের অধীনই কাতারে অনুশীলন শুরু জামাল ভূঁইয়াদের। প্রথম দিনের অনুশীলন সেশন শেষে ফুরফুরে ছিলেন ৫৪ বছর বয়সী এ কোচ, ‘মুক্ত বাতাসে এই সুন্দর ঘাসে অনুশীলনে নামতে পেরে আজ সবাই ভীষণ খুশি। ৯০ মিনিট পূর্ণোদ্যমে সবাই সব কাজ করেছে। পাসিং, মুভমেন্টসহ শেষ ৩০ মিনিট গেম খেলা হয়েছে। ফিটনেসের ওপর কাজ করা হয়েছে কিছু। এখানে আবহাওয়া চমৎকার। আশা করি সামনের দিনগুলো পুরোপুরি কাজে লাগিয়ে আমরা ম্যাচের জন্য তৈরি হয়ে যাব।’

পরবর্তী ১০ দিনে দুটি প্রস্তুতি ম্যাচও খেলবে বাংলাদেশ। জেমি চেয়েছিলেন এশিয়ান চ্যাম্পিয়নদের মুখোমুখি হওয়ার আগে তেমনি শক্তিশালী কোনো দলের বিপক্ষে নিজেদের ঝালিয়ে নিতে। কিন্তু শেষ পর্যন্ত কাতার শীর্ষ লিগের কোনো দলকে পায়নি বাফুফে। ২৫ ও ২৮ নভেম্বর দুটি ম্যাচের প্রথমটির প্রতিপক্ষ কাতার সেনাবাহিনী এবং দ্বিতীয়টি দ্বিতীয় বিভাগের লুসাইল স্পোর্টস ক্লাবের বিপক্ষে। দুটি ম্যাচই হবে কাতার সময় বিকেল সাড়ে ৫টায়। ৪ ডিসেম্বর কাতার-বাংলাদেশ ম্যাচও শুরু হবে একই সময়ে (বাংলাদেশ সময় রাত ১০টা)।

ওই সময় জেমি কি দলের সঙ্গে থাকবেন? প্রশ্নটি রয়েই গেছে। তবে দলের সঙ্গে না যাওয়া সহকারী কোচ মাসুদ কায়সার কাল দোহায় পৌঁছেছেন। ম্যানেজার আমের খান ও ফিজিও ফুয়াদ করোনা নেগেটিভ হলেও আইসোলেশনে আছেন। আজ দ্বিতীয় পরীক্ষায় উতরাতে পারলেই দলের সঙ্গে যোগ দিতে পারবেন তাঁরা।

অনুশীলন মাঠ থেকে কাল পাঠানো ভিডিওতে ওয়াটকিসের মতো গোলরক্ষক আশরাফুল ইসলামকে উচ্ছ্বসিত লেগেছে। হোটেলে ফিরেই অবশ্য তারকা ফুটবলার বাদল রায়ের মৃত্যুর খবরে মুষড়ে পড়েছেন সবাই। আশরাফুল বলছিলেন, ‘আমাদের ফুটবলের এক কিংবদন্তিকে হারালাম। খুব কষ্ট লাগছে।’ এই শোক চেপেই অবশ্য আজ আবার মাঠে নেমে পড়তে হবে তাঁদের।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা