kalerkantho

শুক্রবার । ৭ কার্তিক ১৪২৭। ২৩ অক্টোবর ২০২০। ৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

ওয়েস্ট ইন্ডিজকেও তো আসতে হবে!

৩০ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



ওয়েস্ট ইন্ডিজকেও তো আসতে হবে!

ক্রীড়া প্রতিবেদক : শ্রীলঙ্কা সফর স্থগিত হয়ে যেতে না যেতেই ঘোষিত হলো বাংলাদেশের নিউজিল্যান্ড সফরের সূচি। আগামী মার্চে তিনটি করে ওয়ানডে আর টি-টোয়েন্টি খেলার সূচির সঙ্গে যে বিবৃতি জুড়ে দিয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি), তাতে বলা হয়েছে করোনা বিরতির পর এটিই হতে যাচ্ছে জাতীয় দলের প্রথম বিদেশ সফর। একই সঙ্গে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফেরাও নয় তো?

শ্রীলঙ্কায় তিন টেস্টের সিরিজ দিয়ে ফেরার কথা থাকলেও ফেরা হয়নি। নিউজিল্যান্ড সফরের আগে ফেরা হবেই, সে নিশ্চয়তাও দিতে পারছেন না কেউ। যদিও জানুয়ারিতে ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলের বাংলাদেশ সফরে আসার কথা রয়েছে। কিন্তু পরিস্থিতিও এমন যে কথা থাকলেও অনেক কিছুই বদলে যাচ্ছে। আগে থেকে ঠিক হয়ে থাকা সময়ে বাংলাদেশে করোনার চালচিত্র কেমন থাকে এবং সেই সময়ে অতিথি দল আসতে চায় কি না, ইত্যাকার নানা সংশয়ও ঘিরে আছে সংশ্লিষ্টদের। না হলে বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজাম উদ্দিন চৌধুরী কেন বলবেন যে, ‘এর (নিউজিল্যান্ড সফরের) আগে ওয়েস্ট ইন্ডিজের আসার সূচি আছে। তখন যদি আন্তর্জাতিক সিরিজ আয়োজনের মতো পরিস্থিতি হয় এবং ওয়েস্ট ইন্ডিজ নিশ্চিত করে, সে ক্ষেত্রে আমরা ওদের দিয়েই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট শুরু করব। এখন পর্যন্ত সূচিতে আগে হোম সিরিজটিই আছে।’

ওই সময়টায় বাংলাদেশে কনকনে শীতও। এই মৌসুমকে সামনে রেখে খোদ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও সবাইকে সতর্ক থাকার আহ্বান জানিয়েছেন। যেহেতু শীতে করোনা বেড়ে যাওয়ার আশঙ্কার কথাও বিশেষজ্ঞরা বলে থাকনে। নিজাম উদ্দিনের বক্তব্যেও সে প্রসঙ্গ এলো, ‘আমরা সর্বাত্মক চেষ্টা করব সিরিজটি আয়োজনে। তবে পরিস্থিতিও বিবেচনা করতে হবে। শুধু তো আমাদের ওপরই নির্ভর করে না। সরকারি সহযোগিতা লাগবে আন্তর্জাতিক সিরিজ খেলতে। সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হচ্ছে পরিবেশ-পরিস্থিতি অনুকূলে কি না। কারণ একটি পূর্বাভাস তো এমনও আছে যে ওই সময়ে বাড়তেও পারে (করোনা)। সব কিছু মাথায় রেখেই সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।’

সে ক্ষেত্রে নিউজিল্যান্ডই হতে পারে গত মার্চ থেকে করোনা বিরতিতে থাকা বাংলাদেশের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফেরার মঞ্চ। আগামী ২৪ ফেব্রুয়ারি রওনা হওয়ার সূচি জাতীয় দলের। প্রস্তুতির জন্য পর্যাপ্ত সময় রাখা হয়েছে বলেই সফরের প্রথম ম্যাচ হতে হতে ১৩ মার্চ। ডানেডিনে ওয়ানডে দিয়ে শুরু হবে খেলা। সফরের ছয়টি ম্যাচ হবে ছয়টি শহরে। ক্রাইস্টচার্চ ও ওয়েলিংটনে পরের দুটি ওয়ানডে ১৭ ও ২০ মার্চ। ২৩, ২৬ ও ২৮ মার্চ তিনটি টি-টোয়েন্টি হবে নেপিয়ার, অকল্যান্ড ও হ্যামিল্টনে। শ্রীলঙ্কা সফর নিয়ে যে তিক্ত অভিজ্ঞতা হয়েছে, নিউজিল্যান্ড যাওয়ার আগে সেরকম কিছু হবে না বলে নিশ্চিত বিসিবির ক্রিকেট অপারেশনস কমিটি প্রধান আকরাম খান, ‘আমরা ওখানে যাওয়ার আগে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও পাকিস্তানও যাবে।’ বাংলাদেশ যাওয়ার ঠিক আগে যাবে অস্ট্রেলিয়াও। পরিস্থিতি অনুকূল হওয়ায় একযোগে চারটি সিরিজের সূচি ঘোষণা করে দিয়েছে নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট (এনজেডসি)। অথচ প্রতিকূলতার কারণে জানুয়ারিতে ওয়েস্ট ইন্ডিজের আসা নিয়ে নিশ্চিত করে কিছু বলার অবস্থায় নেই বিসিবি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা