kalerkantho

শুক্রবার । ৭ কার্তিক ১৪২৭। ২৩ অক্টোবর ২০২০। ৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

সিদ্দিক ফিরেছেন, জামালরা কবে?

২৫ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সিদ্দিক ফিরেছেন, জামালরা কবে?

ক্রীড়া প্রতিবেদক : বলবয় হিসেবে ক্যারিয়ার শুরু করে সিদ্দিকুর রহমান খ্যাতির শীর্ষে উঠেছেন। কুর্মিটোলা গলফ ক্লাবে ‘অনারারি মেম্বার’ করা হয়েছে তাঁকে। জামাল হোসেন, সাখাওয়াত হোসেন, সজীব আলীসহ দেশের অন্য শীর্ষ গলফারদের সঙ্গেও তাঁর ব্যবধান অনেক। যে কারণে সিদ্দিক এখন সাভার ক্লাবে অনুশীলন শুরু করতে পারলেও অন্যরা আছেন করোনার অন্ধকারেই।

সম্প্রতি ঢাকার বাইরের ক্লাবগুলো খুলে দেওয়া হয়েছে। তবে সেখানে এখনো সীমিত পরিসরে শুধু ক্লাব সদস্যরাই অনুশীলন করতে পারছেন। এই সুবাদে সিদ্দিক অনুশীলন করছেন। কিন্তু দেশের বাকি সব পেশাদার গলফারের জন্য এখনো ক্লাবের দুয়ার বন্ধ। বাংলাদেশের বেশির ভাগ পেশাদারই কুর্মিটোলার। সেই ক্লাব খোলা নিয়ে এখনো কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। ছয় মাস কোর্সের বাইরে থাকায় পারফরম্যান্স শূন্যে নেমে আসার বিষয়টা তো আছেই, তার চেয়ে বড় বিষয় খেলা বন্ধ থাকায় এই পেশাদারদের আয়ের পথও বন্ধ।

ক্রীড়াঙ্গনের অন্যান্য খেলায় পেশাদারির ব্যাপারটা সেভাবে নেই। বেশির ভাগ খেলাই এখন বাহিনী বা সংস্থার খেলোয়াড়দের ওপর নির্ভরশীল। যেসব খেলায় লিগ হয়, সেই লিগ এতটাই অনিয়মিত যে খেলাটাকে কেউ ক্যারিয়ার হিসেবেই নিতে পারে না। কিন্তু গলফের ব্যাপারটা ভিন্ন, গলফাররা খেলেনই প্রাইজমানির জন্য। সারা বছর তাই যত বেশি সম্ভব টুর্নামেন্ট খেলতে চান তাঁরা। সেই টুর্নামেন্টই যখন বন্ধ, একেবারে নিম্নবিত্ত পরিবার থেকে উঠে আসা এই পেশাদারদের জন্য এখন পেট চালানোই কঠিন। গলফার দুলাল হোসেন যেমন বলছিলেন, ‘আমাদের সিনিয়র কয়েকজন গলফারের স্পন্সর আছে, কিন্তু বেশির ভাগেরই তা নেই। ওরা ক্যারিয়ারটা টিকিয়ে রাখতে পারবে কি না সন্দেহ। এই সময়ে কেউ আম বিক্রি করেছে, ডাব বিক্রি করছে, খাবারের দোকান দিয়ে জীবন চালাচ্ছে। অনেকে ঘরভাড়া দিতে পারছে না।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা