kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১৩ কার্তিক ১৪২৭। ২৯ অক্টোবর ২০২০। ১১ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

নতুন মাঠে নজর মানিকের

এত দিনেও ফুটবলের জন্য সব সুযোগ-সুবিধাসম্পন্ন একটি স্টেডিয়াম করা হয়নি। এ ছাড়া আছে অর্থের অভাব, অথচ দেশের অর্থনীতি এখন অনেক বড়। সেখানে ফুটবলের জন্য বরাদ্দ থাকতেই পারে।

২৪ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



নতুন মাঠে নজর মানিকের

ক্রীড়া প্রতিবেদক : ফুটবলের নির্বাচনে একদম নতুন মুখ আতাউর রহমান ভূঁইয়া মানিক। সহসভাপতি প্রার্থী হয়েই বুঝতে পারছেন ফুটবলের আলো-আঁধারি রূপ। পক্ষ-বিপক্ষের ডামাডোলের মধ্যে কাজী সালাউদ্দিনের প্যানেল থেকে সহসভাপতি পদে নির্বাচনমুখী এই ব্যবসায়ী ফুটবলে কাজ করতে আগ্রহী, ‘ফুটবল নিয়ে চারদিকে খুব আলোচনা-সমালোচনা হচ্ছে। তবে আমার মনে হচ্ছে, ফেডারেশনে ঢুকে কাজ করার অনেক জায়গা আছে।’

প্রতি নির্বাচনেই শোনা যায় ফুটবল উন্নয়নের নানা গল্প। তবে নির্বাচনের পর সেসব শেষ পর্যন্ত গল্পই থেকে যায়। তাতে সমস্যাগুলো রয়ে গেছে আগের মতো। আতাউর রহমান মানিকের মনে হয়েছে, ‘এত দিনেও ফুটবলের জন্য সব সুযোগ-সুবিধাসম্পন্ন একটি স্টেডিয়াম করা হয়নি। এ ছাড়া আছে অর্থের অভাব, অথচ দেশের অর্থনীতি এখন অনেক বড়। সেখানে ফুটবলের জন্য বরাদ্দ থাকতেই পারে। বড় সুবিধা হলো, আমাদের ক্রীড়ানুরাগী প্রধানমন্ত্রী। ফুটবলের সমস্যাগুলোকে চিহ্নিত করে একটা প্রস্তাবনা নিয়ে তাঁর কাছে গেলে অবশ্যই তিনি সহযোগিতা করবেন।’ সারা দেশে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের জন্য পূর্ণাঙ্গ স্টেডিয়াম আছে বেশ কয়েকটি। ফুটবলের আছে ‘সব খেলার ভেন্যু’ বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়াম, এর বাইরে কোনো আন্তর্জাতিক ফুটবল ভেন্যু নেই। ফেডারেশনের তরফ থেকেও কোনো তাগাদা ছিল না, তাই সরকারও ভাবেনি! সত্যি বললে, এত বছরে প্রধানমন্ত্রীর কাছে বড় কোনো পরিকল্পনা নিয়ে যায়নি ফুটবল। অথচ সাফল্যের খবর পেলেই তিনি ডেকে ফুটবলারদের হাতে তুলে দিয়েছেন অর্থ পুরস্কার।

এবারও বেশ লম্বা ইশতেহার দিয়েছে কাজী সালাউদ্দিনের প্যানেল। তার কতটুকু পূরণ সম্ভব হতে পারে? মানিকের জবাব, ‘এখানে স্বল্প মেয়াদে ও দীর্ঘ মেয়াদে উন্নয়নের কথা বলা হয়েছে। কিছু এখনই পূরণ করা যাবে আর কিছু কাজ শুরু করে যাবে।’ দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনায় অনেক কিছু থাকলেও তিনি ব্যক্তিগতভাবে মনে করেন, ‘বিশ্বকাপের স্বপ্ন আমাদের থাকতে হবে। এটা রাতারাতি হবে না, কিন্তু লক্ষ্য নিয়ে না এগোলে কোনো দিন কোথাও পৌঁছানো যাবে না। আমরা হয়তো ওই লক্ষ্যে কাজ করব, পরে যারা আসবে তারা হয়তো আরেক ধাপ এগিয়ে নিয়ে যাবে। এখন যেটা উপলব্ধি করছি, ফুটবলে ভালো কিছু শুরু করা দরকার।’ এ দেশের ফুটবলে বিশ্বকাপ দূর কল্পনার জিনিস। একসময়ের দক্ষিণ এশীয় পরাশক্তি বাংলাদেশ এখন সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের সেমিফাইনালে ওঠা ভুলে গেছে। অর্থাৎ ক্ষয়রোগে ভুগছে ফুটবল। তার চিকিৎসা করতে হবে গোড়া থেকে। এ জন্য আগে নির্বাচন জিততে হবে, চার সহসভাপতি পদের জন্য আট প্রার্থী। ‘কঠিন প্রতিদ্বন্দ্বিতা’ জিতে মানিক হতে চান ফুটবলের সংগঠক।

মন্তব্য