kalerkantho

শুক্রবার । ১৪ কার্তিক ১৪২৭। ৩০ অক্টোবর ২০২০। ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

করোনায় আবার পিছু হটছে দাবা

১৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



করোনায় আবার পিছু হটছে দাবা

ক্রীড়া প্রতিবেদক : জাতীয় জুনিয়র চ্যাম্পিয়নশিপ করার ঘোষণা দিয়েও পিছু হটছে দাবা ফেডারেশন। কারণ আর কিছু নয়, করোনা। সীমিত পরিসরে স্বাস্থ্যবিধি মেনে খেলাধুলা শুরুর অনুমোদন মিললেও কর্মকর্তারা মাঠে নেমে দেখছেন পরিস্থিতি ততটা সহজ নয়। যেখানে সরকার থেকে স্কুল-কলেজ খোলারই এখনো সিদ্ধান্ত হয়নি, সেখানে এই মুহূর্তে জুনিয়র দাবা করা নিয়ে সংশয়ে বাংলাদেশ দাবা ফেডারেশন সাধারণ সম্পাদক শাহাবউদ্দিন শামীম।

সীমিত পরিসরে স্বাস্থ্যবিধি মেনে খেলাধুলা শুরুর অনুমোদন মিললেও কর্মকর্তারা মাঠে নেমে দেখছেন পরিস্থিতি ততটা সহজ নয়। যেখানে সরকার থেকে স্কুল-কলেজ খোলারই এখনো সিদ্ধান্ত হয়নি, সেখানে এই মুহূর্তে জুনিয়র দাবা করা নিয়ে সংশয়ে বাংলাদেশ দাবা ফেডারেশন সাধারণ সম্পাদক শাহাবউদ্দিন শামীম।

‘আমরা ভেবেছিলাম এ মাসেই জুনিয়র টুর্নামেন্ট দিয়ে দাবাটাকে আবার স্বাভাবিক অবস্থায় নিয়ে আসবো, কিন্তু সার্বিক অবস্থা পর্যালোচনা করে আসলে খুব বেশি ভরসা পাচ্ছি না। বিভিন্ন জায়গা থেকেই শুনছি এই মুহূর্তে ছেলে-মেয়েদের খেলায় দিতে আগ্রহী হবেন না বেশির ভাগ অভিভাবক। এর পরও আমরা জেলাগুলোতে চিঠি পাঠাব, কতটা ইতিবাচক সাড়া পাওয়া যাবে জানি না। জুনিয়র দাবার পর আমাদের জাতীয় মহিলা দাবা ছিল ক্যালেন্ডারে। মেয়েরাও জানিয়ে দিয়েছে, এই মুহূর্তে তারা টুর্নামেন্ট খেলতে পারবে না’—বলছিলেন শাহাবউদ্দিন শামীম। এ অবস্থায় ঘুরেফিরে আবার অনলাইন টুর্নামেন্টের কথাই ভাবতে হচ্ছে দাবা ফেডারেশনকে। বিভিন্ন ক্লাবের আয়োজনে ঘরোয়াভাবে এমন টুর্নামেন্ট হয়েছে বেশ কয়েকটি। গোল্ডেন স্পোর্টিং ক্লাবের আয়োজনে সজীব ওয়াজেদ জয় অনলাইন দাবায় বিদেশিরাও অংশ নিয়েছেন। নতুন করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নামে অনলাইন র‌্যাপিড দাবা আয়োজন করতে যাচ্ছে তারা। ফেডারেশন সম্পাদক চাইছেন এই টুর্নামেন্টটাকেই সাউথ এশিয়ান চেস কাউন্সিলের ব্যানারে করতে। বর্তমান দাবা সভাপতি বেনজীর আহমেদ এই কাউন্সিলের সভাপতি। টুর্নামেন্টটাকে সে ক্ষেত্রে আরো বড় পরিসরে করার ইচ্ছা তাদের। যেখানে দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর বাইরের দাবাড়ুদেরও অংশ নেওয়ার সুযোগ থাকবে।

তবে এতে দাবার বর্ষপঞ্জি শুরুতেই বিঘ্নিত হলো। ক্যালেন্ডার অনুযায়ী ১০ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হওয়ার কথা ছিল জুনিযর দাবা, ২০ সেপ্টেম্বর থেকে একটি রেটিং আসর এবং এরপর ১ অক্টোবর থেকে হওয়ার কথা জাতীয় মহিলা দাবা। সেসব কাগজ-কলমে রেখে এখন আবার অনলাইনেই ঝুঁকতে হচ্ছে ফেডারেশনকে।

মন্তব্য