kalerkantho

মঙ্গলবার । ১৪ আশ্বিন ১৪২৭ । ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০। ১১ সফর ১৪৪২

চলছে প্রস্তুতি

আশায় আছে বিসিবি

১৬ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



আশায় আছে বিসিবি

ছবি : মীর ফরিদ

ক্রীড়া প্রতিবেদক : আজ কোয়ারেন্টিন শিথিল করা নিয়ে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) প্রস্তাব কভিড-১৯ টাস্কফোর্সের কাছে পেশ করবে শ্রীলঙ্কার ক্রিকেট বোর্ড (এসএলসি)। যদি অনুমোদন মেলে, তবে মেঘ সরিয়ে হাসবে মমিনুল হকদের আবারও আন্তর্জাতিক মাঠে ফেরার সম্ভাবনার সূর্য। যদিও লঙ্কাদ্বীপের ক্রিকেটসংশ্লিষ্ট কেউই এ সূর্যোদয়ের ব্যাপারে খুব একটা আশাবাদী নন।

দেশটির জনপ্রিয় ইংরেজি পত্রিকা ‘দি আইল্যান্ড’ সংশয় প্রকাশ করেছে, ‘এ বছর হয়তো আর আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলা হবে না শ্রীলঙ্কার।’ একই দৈনিকের ভাষ্য মতে, কভিড-১৯ পরিস্থিতি যে দক্ষতার সঙ্গে সামাল দেওয়া হয়েছে, তাতে সরকারি নির্দেশনা মেনে সব বিদেশি দলকেই দুই সপ্তাহের কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে।

তবে গত পরশু বিসিবির পক্ষ থেকে দুই সপ্তাহের কোয়ারেন্টিন মেনে অক্টোবরের শেষ ভাগে তিন টেস্টের সিরিজ খেলা সম্ভব নয়; এ খবর জানার পর শ্রীলঙ্কার ক্রীড়ামন্ত্রীর টুইটে নতুন আশার সঞ্চার হয়। তিনি অনুরোধ করেন এসএলসি বিষয়টি নিয়ে যেন স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে আলোচনায় বসে। তার আগে গতকাল সভা করেছে শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ড। সেখানে বাংলাদেশের দেওয়া নতুন প্রস্তাবেও কিছু কাটছাঁট করেছে এসএলসি। যেমন—সাত দিন কোয়ারেন্টিনের পাশাপাশি ৪২ জনের স্কোয়াড পাঠানোর অনুমোদন চেয়েছিল বিসিবি। কিন্তু কোয়ারেন্টিনের মেয়াদ কমানোর প্রস্তাবনায় আপত্তি না থাকলেও স্কোয়াডের কলেবর ৩০ থেকে সর্বোচ্চ জনা পাঁচেক বাড়ানোর প্রস্তাব নিয়ে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের অধীন কভিড-১৯ টাস্কফোর্সের সঙ্গে বসবে এসএলসির প্রতিনিধিদল। আজ যদি অনুমোদন মেলে, তবে বিসিবির করা সফর পরিকল্পনা অপরিবর্তিত থাকবে। অন্যথায় ঘরোয়া কোনো টুর্নামেন্ট আয়োজনে পুরোপুরি মনোযোগী হতে হবে সংস্থাটিকে।

এখনো আশা আছে। তাই প্রস্তুতি এবং সফরে যাওয়ার আগে করোনা প্রটোকলও পূর্বপরিকল্পনামতোই আছে। দফায় দফায় কভিড টেস্টের পর ২৭ তারিখ কলম্বোর উদ্দেশে যাত্রা করবে বাংলাদেশ দল। কলম্বোয় পৌঁছে আবারও কভিড টেস্ট। এরপর ডাম্বুলায় কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে হোটেল রুমে। তাই কোয়ারেন্টিন দুই সপ্তাহ থেকে গেলে শ্রীলঙ্কা সফরের পরিকল্পনা আপাতত বাদ দেবে বাংলাদেশ। আর যদি সাত দিনের কোয়ারেন্টিনের অনুমোদন মেলে, তাহলে অক্টোবরের ২৪ তারিখ বাংলাদেশের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফেরার দিন।

এদিকে শ্রীলঙ্কার পত্র-পত্রিকায় গতকাল প্রকাশিত দেশটির ক্রিকেট প্রধান শাম্মী সিলভার একটি মন্তব্য, ‘আমি জানি না তারা (বিসিবি) কেন সাত দিনের কোয়ারেন্টিনের কথা বলছে। আমাদের সঙ্গে তাদের এ বিষয়টি নিয়ে কোনো আলোচনাই হয়নি।’ অথচ ১২ সেপ্টেম্বর রাতে এসএলসির প্রস্তাব পাওয়ার কিছুক্ষণ আগেও বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজাম উদ্দিন চৌধুরী জানিয়েছিলেন, কোয়ারেন্টিনের মেয়াদ কমিয়ে আনার বিষয়টি নিয়ে এসএলসি তাদের সরকারের সঙ্গে দেন-দরবার করছে। গতকাল সন্ধ্যায় বিষয়টি পরিষ্কার করেছেন বিসিবির প্রধান নির্বাহী, ‘ওদের সঙ্গে ১৪ দিন (দুই সপ্তাহ) নিয়ে কখনোই আলোচনা হয়নি। শুরু থেকেই আমরা জানতাম, কভিড নেগেটিভ হলে ওখানে গিয়ে দুই দিন পরই অনুশীলন করা যাবে। আর কোয়ারেন্টিন হবে সাত দিনের।’ সেটি দুই সপ্তাহের হওয়ার খবর বিসিবি প্রথম জানতে পারে ১২ সেপ্টেম্বর রাতে, এসএলসি থেকে পাঠানো ভিসা আবেদনপত্রের সঙ্গে সংযুক্ত থাকা দেশটির স্বাস্থ্য নির্দেশিকায়—জানিয়েছেন নিজাম উদ্দিন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা