kalerkantho

মঙ্গলবার । ৭ আশ্বিন ১৪২৭ । ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০। ৪ সফর ১৪৪২

যোগ হচ্ছে তিন টি-টোয়েন্টিই

১১ আগস্ট, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



যোগ হচ্ছে তিন টি-টোয়েন্টিই

ক্রীড়া প্রতিবেদক : তিন টেস্টের সঙ্গে শ্রীলঙ্কা সফরে ওয়ানডে না টি-টোয়েন্টি সিরিজ যোগ হচ্ছে, আগের দিনও সে বিষয়ে নিশ্চিত কিছু বলতে শোনা যায়নি বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা নিজাম উদ্দিন চৌধুরীকে। তবে কাল জানালেন, টেস্ট সিরিজের সঙ্গে তিনটি টি-টোয়েন্টি খেলারও প্রস্তাব তাঁরা পেয়েছেন শ্রীলঙ্কা ক্রিকেটের (এসএলসি) কাছ থেকে। এই সিরিজটি বাংলাদেশ টেস্ট সিরিজের আগে না পরে খেলবে, সে সিদ্ধান্ত হওয়া বাকি এখনো।

নিজাম উদ্দিন এসএলসির কাছ থেকে টি-টোয়েন্টি খেলার প্রস্তাব পাওয়ার কথা বললেও কয়েক দিন আগে অন্য রকমই শোনা গিয়েছিল আকরাম খানের মুখে। বিসিবির ক্রিকেট অপারেশনস কমিটির প্রধান বলেছিলেন, ‘আমরা খুব করে চাচ্ছি কিছু টি-টোয়েন্টি খেলতে। কিন্তু এসএলসির কাছ থেকে ইতিবাচক সাড়া এখনো পাইনি। আশা করি পাওয়া যাবে।’ যদিও বিসিবি প্রধান নির্বাহীর দাবি, বিষয়টি সে রকম ছিল না কখনোই, ‘তিনটি টি-টোয়েন্টি খেলার প্রস্তাব সব সময় এসএলসির তরফ থেকেই ছিল। আমরা নিজেরা কখনো বলিনি।’

এসএলসির প্রস্তাব গ্রহণে তাহলে এত বিলম্ব কেন? জবাবে নিজাম উদ্দিন বলেছেন, ‘আসলে এসএলসি চাচ্ছিল টেস্ট সিরিজটি দুই ম্যাচের বানিয়ে তিনটি টি-টোয়েন্টি খেলতে। কিন্তু আমরা কোনোভাবেই একটি টেস্ট কম খেলতে রাজি হইনি।’ তাই জুলাই-আগস্টে নির্ধারিত সিরিজটি স্থগিত হওয়ার পর নতুন করে শুরু আলোচনায় টেস্ট ম্যাচের সংখ্যা অপরিবর্তিত রাখার দেন-দরবারেও পেরিয়ে গেছে কিছু সময়। শেষ পর্যন্ত তিন টেস্টই খেলবে বাংলাদেশ, ‘আমরা জানিয়েছিলাম যে টেস্টকেই অগ্রাধিকার দিচ্ছি। কাজেই টেস্ট সিরিজ তিন ম্যাচেরই হতে হবে। এরপর সীমিত ওভারের ম্যাচ খেলার সুযোগ থাকলে বিবেচনা করা হবে বলেও জানিয়ে দেওয়া হয়েছিল।’ এরই ধারাবাহিকতায় যুক্ত হচ্ছে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ। তবে সে বিষয়ে এখনই চূড়ান্ত কিছু বলে দিতে চান না নিজাম উদ্দিন, ‘এটি নিশ্চিত যে আমরা তিন টেস্টের সিরিজ খেলতে যাচ্ছিই। টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলার প্রস্তাব নিয়ে বোর্ডে আলোচনা হবে। সেটি আমরা টেস্ট সিরিজের আগে না পরে খেলব, ঠিক করার ব্যাপার আছে তাও। আশা করছি, সে সিদ্ধান্তও খুব দ্রুতই নিয়ে ফেলতে পারব আমরা।’ এমনিতে ২০ সেপ্টেম্বরের পর শ্রীলঙ্কায় যাওয়ার পরিকল্পনার কথাও আগেই জানিয়ে রেখেছেন তিনি। তবে সিরিজ শুরু হতে হতে অক্টোবরের মাঝামাঝি। এর আগের সময়টি শ্রীলঙ্কায় দীর্ঘ প্রস্তুতি নেবে বাংলাদেশ শিবির।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা