kalerkantho

মঙ্গলবার । ১৪ আশ্বিন ১৪২৭ । ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০। ১১ সফর ১৪৪২

ক্রিকেটারদের পরীক্ষা এক মাস আগে

৯ আগস্ট, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



ক্রিকেটারদের পরীক্ষা এক মাস আগে

ক্রীড়া প্রতিবেদক : জাতীয় ফুটবল দলের ক্যাম্প শুরুর খবর আশার আলোর সঙ্গে ছড়িয়েছে আশঙ্কাও। একসঙ্গে কভিড-১৯ আক্রান্ত হয়েছেন ১৮ খেলোয়াড়! এই দুঃসংবাদের প্রভাব পড়ার কথা দেশের অন্যান্য ক্রীড়া ফেডারেশনেও। বিশেষ করে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডে (বিসিবি), যারা সেপ্টেম্বরে শ্রীলঙ্কায় দল পাঠানোর প্রস্তুতি সারছে। কিন্তু সংস্থার প্রধান নির্বাহী নিজাম উদ্দিন চৌধুরী কিংবা নির্বাচক হাবিবুল বাশারের মনে কোনো আশঙ্কা নেই। করোনা পরিস্থিতি সামাল দিয়ে মাঠে ফেরার প্রস্তুতি যে বিসিবি শুরু করেছে অনেক আগেই।

শ্রীলঙ্কা সফর চূড়ান্ত হলে প্রস্তুতির শেষ ধাপ শুরু করবে বিসিবি। গতকাল এমনটাই বলেছেন নিজাম উদ্দিন, ‘ফুটবলের ব্যাপারটা সম্পর্কে আমি বিস্তারিত জানি না। খবরে দেখেছি অনেকে আক্রান্ত হয়েছে। আমাদের বেলায়ও এমনটা হতে পারে ভেবে আতঙ্কিত নই। কারণ করোনাভাইরাস মহামারির রূপ নিতেই আমরা বিশেষ অ্যাপের মাধ্যমে সব ক্রিকেটারের সঙ্গে যোগাযোগ রাখছি। এখন ব্যক্তিগতভাবে ক্রিকেটাররা প্র্যাকটিস করছে। তবে দলগতভাবে প্র্যাকটিস শুরু হওয়ার আগে সবার পরীক্ষা করানো হবে।’

দলগত অনুশীলন শুরু হবে সেপ্টেম্বরে প্রস্তাবিত শ্রীলঙ্কা সফর নিশ্চিত হলেই। ‘হাতে সময় আছে। তাই এখনই ক্রিকেটারদের ঢালাওভাবে করোনা পরীক্ষা করাব না। তবে শ্রীলঙ্কা সফর নিশ্চিত হওয়ার পর সফরের অন্তত এক মাস আগে সবার পরীক্ষা করানো হবে,’ গতকাল বলেছেন বিসিবির প্রধান নির্বাহী। আর সেই পরীক্ষার সর্বোত্তম পন্থাই বিসিবি অবলম্বন করবে বলে জানিয়েছেন নিজাম উদ্দিন, ‘বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের সঙ্গে আমাদের মেডিক্যাল টিমের নিয়মিত যোগাযোগ আছে। তাঁদের মাধ্যমে জেনেছি সোয়াব (করোনা পরীক্ষার নমুনা) যদি ফুসফুস থেকে নেওয়া হয়, তবে অপেক্ষাকৃত নিখুঁত রেজাল্ট পাওয়া যায়। আমরা সেই পন্থায় সবার পরীক্ষা করাব। সেই পরীক্ষাও দুবার করাব, যেন পুরোপুরি নিশ্চিত হওয়া যায়। তবে এখনই না, শ্রীলঙ্কা সফর চূড়ান্ত হওয়ার পর করব।’

সফরের এক মাস আগে করানোর পর যদি কয়েকজনের ফল ‘পজিটিভ’ও আসে, তাতে চিন্তিত নন নির্বাচক হাবিবুল বাশার, ‘পজিটিভ কারো আসতেই পারে। তবে হাতে সময় পাওয়া যাবে। পজিটিভ এলে ওই ক্রিকেটার দুই সপ্তাহের জন্য আইসোলেশনে যাবে। এর পরও হাতে দুই সপ্তাহ সময় থাকবে। আর শ্রীলঙ্কায় গিয়ে আরো সপ্তাহ দুয়েক প্রস্তুতির জন্য সময় পাব। তাই দুশ্চিন্তা করছি না।’ তাঁর দুশ্চিন্তা আরো কমিয়ে দিয়েছে ইংল্যান্ডের মাটিতে অনুষ্ঠিত দুটি টেস্ট সিরিজ, ‘মোট চারটা টেস্ট হলো। কেউ আক্রান্ত হয়েছে?’

হাবিবুল বাশারের এই প্রশ্নেই রয়েছে করোনা আতঙ্ক জয় করে মাঠে ফেরার পরামর্শ।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা