kalerkantho

শনিবার । ৩১ শ্রাবণ ১৪২৭। ১৫ আগস্ট ২০২০ । ২৪ জিলহজ ১৪৪১

ইউরোপিয়ান ফুটবল

গোল বাঁচিয়েছেনও ওকাম্পোস

৮ জুলাই, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



গোল বাঁচিয়েছেনও ওকাম্পোস

তিনি উইঙ্গার। গোল করা কিংবা করানোই কাজ। সেভিয়ার লুকাস ওকাম্পোসও পরশু গোল করেছেন এইবারের বিপক্ষে। পাশাপাশি গোলরক্ষক হয়ে সেভও করেছেন দুটি! নিয়মিত গোলরক্ষক টমাস ভাচলিক চোট পেয়ে মাঠ ছাড়েন ম্যাচের শেষ দিকে। ততক্ষণে পাঁচজন বদলি করে ফেলেছেন সেভিয়ার কোচ ইউলেন লোপেতেগি। গোলকিপারের জার্সি পরে তাই পোস্টে দাঁড়িয়ে পড়েন ওকাম্পোস। আর্জেন্টাইন এই উইঙ্গার কর্নারের পর দারুণ দুটি ‘সেভ’ করে বাঁচিয়েছেনও দলকে। ৫৬ মিনিটে তাঁর একমাত্র গোলেই ১-০ ব্যবধানের জয়ে সেরা চারে থেকে চ্যাম্পিয়নস লিগ খেলা অনেকটা নিশ্চিত করে ফেলেছে সেভিয়া।

এদিকে প্রিমিয়ার লিগে টটেনহাম ১-০ গোলে হারায় এভারটনকে। মর্যাদার এই লিগে এটা ২০০তম জয় হোসে মরিনহোর। পঞ্চম ম্যানেজার হিসেবে কীর্তিটা তাঁর। মরিনেহার আগে অ্যালেক্স ফার্গুসন ৫২৮, আর্সেন ওয়েঙ্গার ৪৭৬, হ্যারি রেডন্যাপ ২৩৬, ডেভিড ময়েস পেয়েছেন ২০৭ জয়। মরিনহোর মাইলফলকে পা রাখার ম্যাচেই আবার মারামারিতে জড়িয়েছেন তাঁরই দলের দুই খেলোয়াড় হুগো লরি ও সন হিউং মিন! বিরতির ঠিক আগে বলের নিয়ন্ত্রণ হারানোর পরও সেটা ফিরে পাওয়ার চেষ্টা করেননি সন। সুযোগ পেয়ে গোল করতে বসেছিলেন এভারটনের রিচার্লিসন। বিরতির বাঁশি বাজার পর মাঠ ছাড়ার সময় মেজাজ হারিয়ে সনের সঙ্গে তর্ক জুড়ে দেন গোলরক্ষক লরি। একপর্যায়ে ধাক্কাও মারেন এই দক্ষিণ কোরিয়ানকে। সন উল্টো হাত তুলতে গেলে সতীর্থরা আলাদা করে দেন দুজনকে। এই মারামারিকেও অবশ্য ‘সুন্দর’ মনে হয়েছে মরিনহোর, ‘এটা খুব সুন্দর দৃশ্য, যা সম্ভবত আমাদের বৈঠকের ফল।’ শেফিল্ডের কাছে আগের ম্যাচে ৩-১ গোলে হারার পরের উত্তপ্ত টিম মিটিংটাকেই হয়তো ‘বৈঠক’ বলেছেন মরিনহো। এই জয়ে ৩৩ ম্যাচে ৪৮ পয়েন্ট নিয়ে আট নম্বরে উঠে এসেছে টটেনহাম।

লা লিগায় শিরোপার দৌড় থেকে ছিটকে গেলেও চ্যাম্পিয়নস লিগ খেলা অনেকটা নিশ্চিত সেভিয়ার। পরশু এইবারের বিপক্ষে জয়ে ৩৪ ম্যাচে তাদের পয়েন্ট ৬০। সমান ম্যাচে ৫৪ পয়েন্ট নিয়ে পাঁচ নম্বরে ভিয়ারিয়াল। শেষ চার ম্যাচে ৬ পয়েন্টের ব্যবধান মেটানো কঠিন। তাই গোল করে ও গোলরক্ষক হয়ে ম্যাচ বাঁচিয়ে খুশি লুকাস ওকাম্পোস, ‘রাতটা অবিশ্বাস্য ছিল। অনুশীলনের মাঝে মজা করে গোলকিপার হই। তবে কখনো ভাবিনি এত বড় ম্যাচে গোলবারের নিচে দাঁড়াতে হবে। জয়টা গুরুত্বপূর্ণ আমাদের জন্য।’ ইএসপিএন

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা