kalerkantho

মঙ্গলবার । ২৭ শ্রাবণ ১৪২৭। ১১ আগস্ট ২০২০ । ২০ জিলহজ ১৪৪১

এএফসি কাপের জন্য দৌড়ঝাঁপ

৩ জুলাই, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



ক্রীড়া প্রতিবেদক : ২০২১ এএফসি কাপের দ্বিতীয় দল হওয়ার দৌড়ঝাঁপ শুরু হয়ে গেছে। এ টুর্নামেন্ট খেলার প্রথম শর্ত হলো এএফসি ক্লাব লাইসেন্সিংয়ে উত্তীর্ণ হওয়া। সেটা উতরানোর পরই ঘরোয়া পারফরম্যান্সের হিসাব-নিকাশ হবে। তাই লাইসেন্সিংয়ের শর্ত পূরণে আগ্রহী ৯টি ক্লাব আবেদন করেছে বাফুফের কাছে।

এর মধ্যে ফেডারেশন কাপ চ্যাম্পিয়ন হিসেবে বসুন্ধরা কিংসের আগামী এএফসি কাপ খেলা একরকম নিশ্চিত। যদিও বাফুফের কম্পিটিশন ম্যানেজার জাবের বিন তাহের আনসারী বলেছেন, ‘বসুন্ধরা কিংস ফেডারেশন কাপ চ্যাম্পিয়ন হিসেবে এগিয়ে আছে; কিন্তু এএফসির লাইসেন্সিং শর্ত পূরণ করলে পরেই তারা খেলার সুযোগ পাবে। লাইসেন্সিং করে এএফসি কাপের দুটো স্লটে খেলার সুযোগ পেতে ৯টি ক্লাব আবেদন করেছে।’

গতবার লাইসেন্সিং প্রক্রিয়া পেরিয়ে বসুন্ধরা কিংস এখন খেলছে ২০২০ এএফসি কাপ। এএফসির মানদণ্ড অনুযায়ী লাইসেন্সিংয়ের জন্য তাদের সবই আছে। তাতে ক্লাব, মাঠ, জিম, বয়সভিত্তিক দলসহ অন্য আনুষঙ্গিক শর্ত পূরণ করে ফেডারেশন কাপ চ্যাম্পিয়নরা আবারও এএফসি কাপ খেলবে।

এখন প্রশ্ন, দ্বিতীয় দল কোনটি হবে? করোনায় প্রিমিয়ার লিগ মাঝপথে বাতিল হয়ে যাওয়ায় ফেডারেশন কাপের রোল অব অনারই মাপকাঠি। সে ক্ষেত্রে ফেডারেশন কাপ রানার্স-আপ হিসেবে রহমতগঞ্জ এগিয়ে আছে। তাদের সাধারণ সম্পাদক ইমতিয়াজ আহমেদ সবুজও এএফসি কাপ খেলার স্বপ্ন দেখেন, ‘ভালো একটা দল গড়ে আমরা এএফসি কাপ খেলতে চাই।’ চাইলেই যে হবে না, আগে এএফসির ক্লাব লাইসেন্সিং প্রক্রিয়া উতরাতে হবে। তারা ব্যর্থ হলে ফেডারেশন কাপের স্ট্যান্ডিং অনুযায়ী অন্যরা সুযোগ পাবে। বসুন্ধরা কিংসকে বাইরে রাখলে দ্বিতীয় দল হওয়ার লড়াইয়ে আছে আট দল। ক্লাবগুলো হলো ঢাকা আবাহনী, শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র, সাইফ স্পোর্টিং ক্লাব, শেখ জামাল ধানমণ্ডি ক্লাব, মোহামেডান স্পোর্টিং, রহমতগঞ্জ, ব্রাদার্স ইউনিয়ন ও উত্তর বারিধারা।

আগের বছর এএফসির লাইসেন্সিং প্রক্রিয়া উতরেছে মাত্র তিনটি দল—বসুন্ধরা কিংস, আবাহনী ও সাইফ স্পোর্টিং। এ বছর লাইসেন্স নবায়নের ক্ষেত্রে এই তিন দলকে ফেভারিট ধরা যায়। ফেডারেশন কাপ রানার্স-আপ রহমতগঞ্জের ভাগ্যে কী আছে, সেটা বোঝা যাবে এএফসির লাইসেন্সিং প্রক্রিয়া শুরুর পর। ‘সামনে এএফসির কম্পিটিশন কমিটির সভা আছে, এরপরই তারা লাইসেন্সিং প্রক্রিয়া শুরু করবে। এটা শেষ হওয়ার পরই বোঝা যাবে কারা এএফসি কাপে খেলবে’—বলেছেন বাফুফের কম্পিটিশন কমিটির ম্যানেজার। প্রক্রিয়ায় রহমতগঞ্জ বাদ পড়লে ভাগ্য খুলবে অন্য কোনো ক্লাবের।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা