kalerkantho

শুক্রবার। ২৬ আষাঢ় ১৪২৭। ১০ জুলাই ২০২০। ১৮ জিলকদ ১৪৪১

কঠিন লড়াইয়ের আগে বার্সায় গৃহদাহ

৩০ জুন, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



আবারও অশান্তি বার্সেলোনায়! সেল্তা ভিগোর সঙ্গে ম্যাচেই সহকারী কোচ এদের সারাবিয়াকে মাঠে এড়িয়ে গিয়েছিলেন লিওনেল মেসি। আর ম্যাচের পর ড্রেসিংরুমে কোচ কিকে সেতিয়েনের ওপর সিনিয়র খেলোয়াড়দের চড়াও হওয়ার খবরও দিয়েছে ‘মার্কা’। লুই সুয়ারেসের কথাতে স্পষ্টও সেটা, ‘ঘরের বাইরে অনেক পয়েন্ট হারিয়েছি আমরা, অন্য মৌসুমে যা হতো না। আমার মনে হয় কোচরা আছেন পরিস্থিতির পর্যালোচনার জন্যই।’

এর আগে এরনেস্তো ভালভের্দের চাকরি হারানো নিয়ে স্পোর্টিং ডিরেক্টর এরিক আবিদাল সরাসরি আঙুল তুলেছিলেন খেলোয়াড়দের দিকে। ক্লাব প্রেসিডেন্ট হোসে মারিয়া বার্তেমেউয়ের ওপর অনাস্থা জানিয়ে পদত্যাগ করেছেন কয়েকজন পরিচালক। এবার সেতিয়েনের সঙ্গে খেলোয়াড়দের দ্বন্দ্বে গৃহদাহের আগুন জ্বলছে নতুন করে। তবে গতকালের সংবাদ সম্মেলনে অশান্তির খবর অস্বীকার করেছেন সেতিয়েন, ‘দলের স্বার্থে আমরা সবাই ভূমিকা রাখছি। সত্যিটা হচ্ছে আমি এমন একটা পর্যায়ে আছি যেখানে শিখছি অনেক কিছু। এটা একটা প্রক্রিয়া। লা পালমাস ও সেভিয়ার কোচ হওয়ার পর শুরুতেও এমন কিছু দেখে এসেছি।’

এর মাঝেই আজ ন্যু ক্যাম্পে বার্সেলোনার অগ্নিপরীক্ষা অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদের বিপক্ষে। ৩২ ম্যাচে ৬৯ পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে কাতালানরা। শীর্ষে থাকা রিয়ালের চেয়ে পিছিয়ে ২ পয়েন্টে। অ্যাতলেতিকো ৫৮ পয়েন্ট নিয়ে এখন তিনে। আজ পয়েন্ট হারালে শিরোপার দৌড় থেকে আরো পিছিয়ে পড়বে বার্সেলোনা। সে ক্ষেত্রে চাকরি টিকিয়ে রাখা কঠিন কিকে সেতিয়েনের। বার্সেলোনার মতো দলের শিরোপাহীন মৌসুম মানে কোচের মসনদ টলে ওঠা। সেতিয়েনও জানেন সেটা। এর সঙ্গে যোগ হয়েছে খেলোয়াড়দের অনাস্থা। সাবেক তারকা জাভি এর্নান্দেসও নাকি প্রস্তুত কোচের দায়িত্ব নিতে। পাহাড়সমান চাপ নিয়ে সেতিয়েন পারবেন কি অ্যাতলেতিকোকে হারিয়ে শিরোপা দৌড়ে টিকে থাকতে?

একটি পরিসংখ্যানে অবশ্য আশাবাদী হতে পারে বার্সা সমর্থকরা। ২০১০ সালের পর লা লিগায় অ্যাতলেতিকো হারাতে পারেনি বার্সাকে। আর ন্যু ক্যাম্পে ২০০৬ সালের পর জয় নেই মাদ্রিদের দলটির। তবে সব শেষ দেখায় স্প্যানিশ সুপার কাপ সেমিফাইনালে সিমিওনেদের জয় ৩-২ ব্যবধানে। তা ছাড়া করোনা মহামারিতে নতুন করে লিগ শুরুর পর সব শেষ চার ম্যাচ জিতেছে অ্যাতলেতিকো। ছয় নম্বর থেকে তিনে উঠে আসায় বাড়তি আত্মবিশ্বাস নিয়েই আজ খেলার কথা তাদের। মার্কা

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা