kalerkantho

বুধবার । ৩১ আষাঢ় ১৪২৭। ১৫ জুলাই ২০২০। ২৩ জিলকদ ১৪৪১

চার-পাঁচ দিনের মধ্যে ব্যক্তিগত অনুশীলন

৬ জুন, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



চার-পাঁচ দিনের মধ্যে ব্যক্তিগত অনুশীলন

ক্রীড়া প্রতিবেদক : একক অনুশীলনের সুযোগ চাওয়া মুশফিকুর রহিমকে অপেক্ষায় রেখেছিল বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নিশ্চিত করার জন্যই ছিল সে অপেক্ষা। সব কিছু ঠিক থাকলে দেশের অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যানের অনুশীলনে নেমে পড়ার অপেক্ষাও দ্রুতই ফুরানোর কথা। সেটি আগামী চার-পাঁচ দিনের মধ্যেও হতে পারে বলে জানিয়েছেন বিসিবি প্রধান নির্বাহী নিজাম উদ্দিন চৌধুরী।

তিনি অবশ্য এও জানিয়েছেন যে মুশফিক একা নন, আরো কয়েকজন ক্রিকেটারও একক অনুশীলনের সুযোগ চেয়েছিলেন তাদের কাছে। তবে ব্যক্তিগত অনুশীলনের অনুকূল পরিবেশ নিশ্চিত করার স্বার্থেই তারা সময় নিয়েছেন, ‘সুযোগ-সুবিধার দিকগুলো প্রস্তুত না করে আমরা ওদের অনুশীলন করতে দিতে পারি না। মুশফিকসহ আরো চার-পাঁচজন ক্রিকেটারকে বিষয়টি বুঝিয়েও বলা হয়েছে। এখন আমরা সব কিছু প্রস্তুত করছি। করা হয়ে গেলেই ওরা কেউ চাইলে ব্যক্তিগতভাবে এসে অনুশীলন করে যেতে পারবে। আশা করি, আগামী চার-পাঁচ দিনের মধ্যেই আমরা সেই ব্যবস্থা করে দিতে পারব।’

সেই ব্যবস্থা শুধু ঢাকায় নয়, করা হচ্ছে ঢাকার বাইরেও। বিসিবি প্রধান নির্বাহী জানালেন সে রকমই, ‘মিরপুর ছাড়াও চট্টগ্রাম, সিলেট, খুলনা, রাজশাহী ও কক্সবাজারে আমাদের যেসব স্থাপনা রয়েছে, সেসব জায়গাও আমরা প্রস্তুত করছি। ওই সব জায়গায় অবস্থান করা ক্রিকেটাররাও ব্যক্তিগত অনুশীলনের সুযোগটি নিতে পারবে। সে জন্য নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় অনুশীলন করতে হবে তাদের।’ নিজস্ব ব্যবস্থাপনার ব্যাখ্যাও দিয়েছেন তিনি, ‘ব্যক্তিগত অনুশীলন হলেও তা একার হবে না। কারণ নেট বোলার এবং অন্যান্য সাপোর্ট স্টাফ লাগবে। এগুলোর ব্যবস্থাও আমরাই করব। নিজস্ব ব্যবস্থাপনা বলতে বোঝাতে চাইছি, একজন ক্রিকেটার বাসা থেকে আসবে এবং অনুশীলনের পর ফিরবেও। তাঁর কারণে বাসার লোকজন যেন ঝুঁকির মধ্যে পড়ে না যায়, সেই সচেতনতা যেন থাকে। এবং নিজেকেও যেন নিরাপদে রাখে।’ ব্যক্তিগত অনুশীলন উন্মুক্ত হলেও তত্ক্ষণাৎ সুযোগটি নিতে চান না ওয়ানডে অধিনায়ক তামিম ইকবাল, ‘আমি আরো দেখতে চাই। যখন আক্রান্ত ছিল ৩০ জন, তখনই সব কিছু বন্ধ হয়েছিল। আর এখন আক্রান্ত তিন হাজার হচ্ছে যখন, তখন শুরু করি কী করে? তার পরও এটি যার যার ব্যক্তিগত ব্যাপার। অনুরোধ থাকবে, শুরু করলেও যেন বুঝে-শুনে করে।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা